বিমূর্ত বিলাস

মনোরমা মরালীর মত লম্বা গ্রীবায় তোমার
তালুর পেছনটা দিয়ে একটু ছোঁয়া দিতে চাই,
ইচ্ছে হয় চিকণ থুতনিটাকে একটু ধরে দেখি,
আংগুলের ডগা দিয়ে ওজন মাপার মত করে।
টিপছাড়া কপালের মাঝখানটাতে নিখুঁতভাবে
একটি উজ্বল টিপ এঁকে দিয়ে দেখি কতটা জ্বলে!
আরক্তিম কপোল যুগলে খুঁজে পাই কিনা দেখি
একটি তৃষ্ণার্ত অলির বসার মত কোন স্থান।
কালো চোখের তারার ঝিকিমিকি দেখে দেখে
নির্নিমেষ কাটাতে চাই জীবনের বাকীটা প্রহর।
ঢাকা
২৯ মার্চ ২০১৫
স্বর্বস্বত্ব সংরক্ষিত।

৮৩০ বার দেখা হয়েছে

৯ টি মন্তব্য : “বিমূর্ত বিলাস”

  1. নূপুর কান্তি দাশ (৮৪-৯০)

    খায়রুল ভাই,
    এত মনোরম এবং কামনায় থরোথরো অথচ অমলিন শব্দ-বাক্য কি করে ছবি আঁকেন?
    এই যে গতিময়তা -- যেনবা একটিমাত্র রেখায় বা একটিই নিঃশ্বাসে রচিত হল প্রেমের এ অপূর্ব আখ্যান -- আমি যেন দেখতে পেলাম সৌমিত্র চ্যাটার্জি কথাগুলো বলছেন অপর্ণা সেনকে। আঃ

    জবাব দিন
  2. সাইদুল (৭৬-৮২)

    ইচ্ছে হয় চিকণ থুতনিটাকে একটু ধরে দেখি,
    আংগুলের ডগা দিয়ে ওজন মাপার মত করে।

    এরকম চমৎকার দুটি লাইন অনেক দিন পড়িনি


    যে কথা কখনও বাজেনা হৃদয়ে গান হয়ে কোন, সে কথা ব্যর্থ , ম্লান

    জবাব দিন

মন্তব্য করুন

দয়া করে বাংলায় মন্তব্য করুন। ইংরেজীতে প্রদানকৃত মন্তব্য প্রকাশ অথবা প্রদর্শনের নিশ্চয়তা আপনাকে দেয়া হচ্ছেনা।