বড় হয়ে তুমি কি হতে চাও ??

১৫  নভেম্বর  ২০০৯

ঢাকা থেকে যাওয়ার আগে ফেসবুক এ একটা স্ট্যাটাস দিয়েছিলাম

‘ যেদিন কোচিং এর জন্য প্রথম ঢাকাই আসলাম সেদিন এর লক্ষ্য আর আজ যখন চলে যাচছি তখন কার প্রাপ্তি !! হয়ত ফার্মগেটের এই সাত রাস্তার মোড়ের মতই আমাদের জীবনের একটা টার্ন তৈরি হচ্ছে’

ক্লাস ১ থেকে শুরু করে ক্লাস ১২ পর্যন্ত যে কইবার Aim in Life বা জীবনের লক্ষ্য রচনা লিখেছি সব গুলোর বিষয়ই আমি ডাক্তার হব । এমনকি সরাসরি যতবার বড় হয়ে কি হতে চাও ? এ প্রশ্নের জবাব দিয়েছি এক শব্দের উত্তরে ডাক্তার । শুধু যে মুখে বলতাম ডাক্তার হব তা বললে ভুল হবে, ডাক্তার হবার জন্য মানসিক প্রস্ততি সহকারে পড়ালেখাও করেছি ক্লাস ১১-১২ থেকেই। HSC পরিক্ষার পরে অনতিবিলম্বে ভরতি হই রেটিনা কোচিং সেন্টার এ । প্রথম ১ মাস মোটামুটি  ভালো  অবস্থার মধ্যেই ছিলাম । কিছুদিনের মধেই HSC পরিক্ষার রেজাল্ট দিল । নেগেটিভ কিছু নেই। স্কোর সর্বোচ্চ। ssc hsc সকল বিষয়ে এ+। আবার নতুন উদ্দমে পুরাতন লক্ষ্যের দিকে ধীর পায়ে এগিয়ে চলা।

২ আগস্ট ২০০৯

ISSB পরিক্ষার দিন। মনে প্রশ্ন আসতে পারে মেডিক্যাল কোচিং করে ISSB কি জন্য?

ক্যাডেট কলেজে পড়ার কারনে সরাসরি ISSB দেওয়ার সুযোগ এবং ক্লাস ১২ এ পড়ার সময় কিছু চমকপ্রদ সিদ্ধান্ত এর ফল। ক্লাস ১২ এ আমাদের বলা হয়েছিল সবাইকে ISSB এর মুখোমুখি হতে হবে। অনেকে এর বিপরীতে নিজেদের টিকিয়ে রাখতে সক্ষম হল আবার আমার মত অনেকে কৌতূহল ও ক্ষীণ ইচ্ছা নিয়ে ISSB এর জন্য আবেদন পত্র পূরণ করি।

কলেজে স্টাফদের আচরন, প্রিন্সিপাল ও আডজু্টান্ট এর প্রতি রাগ ও কিছু সাধারন কারন আর্মি তে পরিক্ষা না দেওয়ার অন্যতম কারন ছিল। কিন্তু সবচেয়ে মজার বাপার হল, যখন দেখলাম army,navy, air force এর ফর্ম দেওয়া হয়েছে এবং নিজের পছন্দকে অগ্রাধিকার দেওয়া হচ্ছে।

‘Only to attend ISSB’ এই ব্যানারে কয়েকজনের একটা ছোটখাটো গ্রুপ তৈরি হয় এবং এক এক জনের পছন্দ আলাদা কারন দ্বারা প্রভাবিত যে তারা কিসে পরিক্ষা দিবে  army , navy না air force। আর্মি তে পরিক্ষা দেওয়ার জন্য যে ফর্ম দেয়া হয়েছিল তার বিশাল বিস্তৃতি এবং OMR পুরনের ঝামেলা এড়াতে বেশিরভাগ পোলাপাইন এর ক্ষেত্রেই Air Force এর ফর্ম টা অগ্রাধিকার পেল !!!

Air Force এর ফর্ম ছিল মাত্র ২ পাতা,সীমিত তথ্য এবং দাম্ ২০০টাকা !!!!!!

আমার নিজের কথাই আসি, ফর্ম ছোট হওয়ার কারনে Air Force অগ্রাধিকার পেল ।এবার ফর্ম কেনার পালা। মুন্তাসির, আমার ক্লাসমেট, Air Force এ পরিক্ষা দিবে কিন্তু চোখের চশমার জন্য সিদ্ধান্ত পাল্টে আর্মির ফর্ম ও কিনল। ওর সাথে কথা বলে ওর কাছ থেকে Air Force এর ফর্ম কিনে আয়োজন করে ৫ মিনিটের মধ্যে ফর্ম পূরন করে হাউস বেয়ারাকে ২ কপি ছবি লাগিয়ে জমা দিয়ে দেবার জন্য বলি। ব্যাস! কাজ শেষ।

 

জুলাই মাসের ২০ তারিখের দিকে আব্বুর কাছে ISSB এর চিঠি আসে। পরিক্ষার তারিখ ২ আগস্ট। যারা Air Force এর জন্য আবেদন করছে তাদের সবার এক সাথে ।তখনও আমি রেটিনার নিয়মিত ছাত্র। ১ তারিখে রেটিনার ক্লাস টেষ্ট শেষ করে ISSB এর জন্য দরকারি জিনিসপত্র সংগ্রহে বের হই।কলেজের পিটি ড্রেস সাথেই ছিল। পরদিন সকালে ISSB এর গেটে হাজির হলাম।

ISSB

Extempore exam দেওয়ার মজাই আলাদা । প্রথম দিন IQ ও screen test । টিকে গেলাম ।পরবর্তী ৪ দিন থাকতে পারব!!!!! খুবই খুশি!

সব কিছুই মোটামুটি average /above average কইরা ২ দিন পার করে DP ভাইভার সম্মুখীন। DP কেন Air Force এ পরিক্ষা দিলাম প্রশ্ন করলে উপরুক্ত ঘটনা সাবলীল ভাষায় বলে ফেলি!! আর কোন কারন জানতে চাইলে বলি Air Force একাডেমী বাড়ীর কাছে।। আরও অনেক প্রশ্ন ও উত্তর……………………. ভাগ্যের পরিহাসে আমরা যারা পরিক্ষা দিয়েছিলাম শুধু আমি গ্রীন কার্ড পাই।

অতঃপর হেড কোয়াটার এ   রিপোরটিং  তারপর মেডিকেল, এই করতে করতে পরবর্তী ১ মাস। তখনও আমার ডাক্তার হওয়ার ইচ্ছা আছে…………।

শেষ কথা

একাডেমীতে ২ বছর ট্রেনিং শেষ করে কমিশন পাওয়ার পরেও মাঝখানের ৩ বছরের ঘটনা গুলো স্বপ্নের মত মনে হয়……… সবই আল্লাহর ইচ্ছা।

p

১,৮২৩ বার দেখা হয়েছে

১৫ টি মন্তব্য : “বড় হয়ে তুমি কি হতে চাও ??”

মন্তব্য করুন

দয়া করে বাংলায় মন্তব্য করুন। ইংরেজীতে প্রদানকৃত মন্তব্য প্রকাশ অথবা প্রদর্শনের নিশ্চয়তা আপনাকে দেয়া হচ্ছেনা।