ব্যাকগিয়ার……

তখন সম্ভবত আমরা ক্লাস টেন এ। অলরেডী আমি আর আমিন ওমর ফারুক হাউসের ক্লাস টুয়েলভের টার্গেট। এর আগে আবার একদিন হাসান স্যার আমাদের ডেকে নিয়ে থ্রেট দিসেন যে আমরা নাকি হাউসকে ব্যাকগিয়ার দিচ্ছি (ব্যাকগিয়ার হলো : ইচ্ছে করে কম্পিটিশনে খারাপ করা। ক্লাস টুয়েলভের সাথে আমাদের রেশারেশি ছিল বলে ক্লাস টুয়েলভ ধারনা করতো আমরা ইচ্ছে করে হাউস কম্পিটিশনে খারাপ করতাম)। আমাদেরকে উনি হাউস থেকে বের করে দিয়ে হাসপাতালে রাখবেন ।
সেই সময় আবার ওমর ফারুক হাউস চ্যাম্পিয়ন হওয়ার পথে । সো আমরা বেশ ভালোই চাপের মধ্যে ছিলাম। ক্লাস টুয়েলভের ইসমাইল ( মনে হয় সে তখন হাউস প্রিফেক্ট ), সোহেল, বদর আমাদের ডেকে নিয়ে বেশ ভালো করে শাসিয়ে দিলো । আর আমার এবং আমিনের টার্গেট ঠিক করে দিলো ত্রিশের মধ্যে আসার। আমরা ক্রস কান্ট্রি এর দিনে ভাবলাম যে একটু আগে আগে থাকা দরকার । না হলে আবার ঝামেলা করবে টুয়েলভ। তাই বেশ সিরিয়াসলি প্রথম থেকেই দঔড়ানো শুরু করলাম। প্রথম দিকে ভালোই যাচ্ছিলাম। ফেরার পথে আমরা আলোচনা করছিলাম যে যাক মনে হয় প্রথম দিকেই আছি। পথে সাইদ স্যারকে দেখলাম ছবি তুলছেন । আমরা ভাবলাম গুল্লি মারি ক্রসকান্ট্রি এর। স্যারকে বল্লাম আমাদেরও ছবি তুলতে। স্যার বললেন একটু পিছনে যাও । আমরা পিছনে  গিয়ে হেলেদুলে পোস দিয়ে দোউড়িয়ে এলাম। এরমধ্যে এনাম ভাই দেখে ফেলল যে আমরা নাকি পেছনে যাওয়ার জন্য উল্টো দিকে দোউড়াচ্ছি। যথারীতি আবার আমাদের বিচারের মুখোমুখি হতে হলো ক্লাস টুয়েলভের কাছে হাউসকে ব্যাকগিয়ার দেয়ার দায়ে…….

৯৪৯ বার দেখা হয়েছে

২৭ টি মন্তব্য : “ব্যাকগিয়ার……”

মন্তব্য করুন

দয়া করে বাংলায় মন্তব্য করুন। ইংরেজীতে প্রদানকৃত মন্তব্য প্রকাশ অথবা প্রদর্শনের নিশ্চয়তা আপনাকে দেয়া হচ্ছেনা।