“বিয়ার বয়স হইছে তোমার”—-

ঘটনাটা কত সালের ভুলে গেছি…….

কোন একটা ইনটেকের ভাইয়ারা এক্সকারসন থেকে ফিরেছেন, উনারা কে কি উল্টাপাল্টা 😛 জিনিস নিয়া আসছেন হাউসে, তা চেক করার জন্য বিনা নোটিশে একরাতে ইন্সপেকশন শুরু হলো একেবারে প্রিন্সিপাল স্যারের নেতৃত্বে,কিন্তু এইবার একেবারে হাউস খালি করে আমাদের নামিয়ে আনা হলো নিচে……..আমাদের স্টাফরা বিভিন্ন আজব আজব জিনিস খুঁজে আনতে লাগলেন……..যেমনঃ ব্যক্তিগত পোষাক, বিশেষত হাফপ্যান্ট, মাল্টিকালার মোজা, পত্রিকা, মোমবাতি ইত্যাদি

কিন্তু ফাঁসলো মাত্রই ক্লাশ এইট পড়ুয়া একজন ক্যাডেট…….তার বোধহয় জীবনে তখন দুইটা প্রেমই ছিল, ক্রিকেট দেখা আর নায়িকাদের পোষ্টার জমানো……. অনেক পোষ্টার এনে স্টাফরা জড়ো করে রাখলেন…….তো স্বাভাবিকভাবেই এই বিশাল স্তুপের দিকেই প্রিন্সিপাল স্যারের নজর পড়লো…….উনি এক স্টাফকে জিজ্ঞাসা করলেন কার এইগুলো……স্টাফ জানালো তার নাম…….

বেচারি ক্লাশ এইটে তখন, আক্ষরিক অর্থেই কাঁপতে কাঁপতে সে এগিয়ে গেল…….স্যার প্রচন্ড জোরে ওকে বললেন, “তোমার কাছে মেয়েদের ছবি কেন??? বিয়ার বয়স হইছে তোমার??”……এর উত্তরে ও যা বললো সেটা অবিশ্বাস্যই ঠেকেছিল সেদিন, “মেয়ে না স্যার, নায়িকেদের পোষ্টার।”…….আরে বিপদ, প্রিন্সিপাল স্যার আকাশ থেকে পড়লেন, “নায়িকারা কি পুরুষ মানুষ হয় নাকি??”……ছেঁড় সব, একটা একটা করে ছেঁড়……..

এখনো চোখে ভাসে দৃশ্যটা……রাতের বেলা নীল স্লিপিং স্যুট পরা রনি ওর সাধের একেকটা পোষ্টার ছিঁড়ে যাচ্ছে আর কুলকুল করে ঘামছে……

এবার আসল ব্যাপারটা বলি…….সেদিনের বিয়ার বয়স না হওয়া ছেলেটা সপ্তাহ তিনেক আগে বিয়ে করেছে, ভালবেসেই বিয়ে করেছে স্বর্ণাকে…..যাওয়া হয়নাই……হঠাৎ করে মনে হলো ওর ঐ ঘটনাটা…….জিজ্ঞাসা করলাম এই ঘটনাটা লেখা যাবে কিনা…..সানন্দে রাজি হলো ও……ওদের জীবনটা যেন খুব সুন্দর হয় এইটাই কামনা করি

ও আচ্ছা ওর পরিচয়টাই তো দেইনাই……প্রথম আলোর ক্রীড়া সাংবাদিক, আরিফুল ইসলাম……ওর ক্যাডেট নাম ছিল রনি……

৩,৭৩৮ বার দেখা হয়েছে

৫৮ টি মন্তব্য : ““বিয়ার বয়স হইছে তোমার”—-”

  1. রকিব (০১-০৭)

    শুভেচ্ছা রইলো রনি ভাই আর স্বর্ণা ভাবীর জন্য। তানভীর ভাই আর রশিদ ভাইরেও শুভেচ্ছা দিতে মঞ্চায়। 😛


    আমি তবু বলি:
    এখনো যে কটা দিন বেঁচে আছি সূর্যে সূর্যে চলি ..

    জবাব দিন
  2. যতখানি মনে পড়ে, পোস্টারটা ছিল আমিশা প্যাটেলের।"কাহো না পেয়ার হ্যা" করে তখন খুব হিট।রোল করা পোস্টার স্টাফ খুলতে লাগলেন, আর প্রিন্সিপালের সামনে উন্মুক্ত হলে প্রথমে আমিশার বুক (আবক্ষ কিনা!), তারপর গলা, আর তারপর সুন্দর মুখখানি।

    জবাব দিন
    • রশিদ (৯৪-০০)

      :)) :)) আপু দারুন একটা প্রশ্ন রেখেছেন.......ও খেলাধুলা বিশেষ করে ক্রিকেটের বিশাল ফ্যান ছিল কলেজে থাকতেই.......খুবই ওয়াচফুল-ও......আশা করি সাংবাদিক হিসেবেও খুব ভালো করবে, সত্যি বলতে করছেও......ও ছিল আমার পরের ইনটেকের

      জবাব দিন

মন্তব্য করুন

দয়া করে বাংলায় মন্তব্য করুন। ইংরেজীতে প্রদানকৃত মন্তব্য প্রকাশ অথবা প্রদর্শনের নিশ্চয়তা আপনাকে দেয়া হচ্ছেনা।