তোমাকে হারিয়ে আমি আজ হা-হুতাশ করছি ভরা বর্ষায় আর পূর্ণিমার রাতে

বৃষ্টি এখনো হয়, আমি ভিজতে থাকি একা একা,
বৃষ্টির কান্নায় মিশে যায় আমার চোখের জল,
তোমার গুনগুন গানের সুরেলা আওয়াজ আমাকে
এখনো তাড়িয়ে বেড়ায়, খুব কি প্রয়োজন ছিল
দু’জনের দুই ভিন্ন পথ? – নাকি প্রয়োজন ছিল
দুই ভিন্ন পথে যাওয়ার?
রাতের পূর্ণিমায় তোমার উচ্ছ্বাস আর আমার ঘুম থেকে জ়েগে ওঠা,
বিরক্ত মনে আমার অনুযোগ আর তোমার বিষণ্ণ মন –
প্রতি পূর্ণিমায় একই নাটক, পরদিন সকালে নূতন করে দিন শুরু;
আজ ঘুম নেই চোখে, আমি একা দাঁড়িয়ে বারান্দায় –
শুধু নেই তোমার উচ্ছ্বাস।
ভাল নেই মন, তুমি ভাল আছ কি?
নাকি আমার মতো তুমিও খুঁজে বেড়াও সুখের মোহনা?
অকুল নদীর মাঝখানে সাঁতরে বেড়াই আমি
হাবুডুবু খেতে থাকি, মোহনার খোঁজে –
তুমিও আমার মতো খুঁজে বেড়াও, কিন্তু সে মোহনা আমার নয়।
হাতে হাত ধরে একসাথে শুরু হয়েছিল যে পথ চলা
আজ লক্ষ্যের পার্থক্যে সে পথ হয়ে গেছে ভিন্ন,
তবু আজও অনুভব করি তোমার সেই দু’টি হাতের স্পর্শ,
তুমি কর কি?

৬৬০ বার দেখা হয়েছে

৫ টি মন্তব্য : “তোমাকে হারিয়ে আমি আজ হা-হুতাশ করছি ভরা বর্ষায় আর পূর্ণিমার রাতে”

মন্তব্য করুন

দয়া করে বাংলায় মন্তব্য করুন। ইংরেজীতে প্রদানকৃত মন্তব্য প্রকাশ অথবা প্রদর্শনের নিশ্চয়তা আপনাকে দেয়া হচ্ছেনা।