প্রবাসে প্রলাপ ০০৩

গত সপ্তাহ পুরাটা জুড়ে অসুস্থ হয়ে ঘরে শুয়ে শুয়ে দিন কাটিয়েছি। সেটা থেকে বের হয়ে এই সপ্তাহে কেমন যেন কোথাও যেতে নিলেই খালি মনে হয় অসুস্থ ছিলাম আর যাই ছিলাম গত সপ্তাহ তো কোথাও বের হতে হয়নি শান্তিই ছিল। টার্মের শেষের দিকে এসে এখন পড়ালেখার কথা মাথায় আনতে হচ্ছে ভার্সিটিতেও দেখি বেশ কিছু রিপোর্ট জমে গেছে। যাই হোক কষ্ট করে এক মাস কাটিয়ে দিতে পারলে পরের দেড়মাস ছুটি কাটাব আপাতত সেটাই গিয়ার। হঠাৎ করে খুব দেশে যেতে ইচ্ছে করছিল মনে হয় অসুস্থ থাকার প্রভাব। গত এক সপ্তাহে শুয়ে শুয়ে যা করেছি তা হল বাংলাদেশের খেলা দেখেছি আর পেপার মুখস্থ করেছি।
বাংলাদেশের যে কি হল প্রতিদিন ফাউল ফাউল খেলতেছে। শ্রীলংকার সাথে ভেবেছিলাম জিতেই যাবে মনে বেশ কষ্ট দিয়েছে। সেই সুখসুখ কষ্টটা ঠিকমত অনুভব করে শেষ না করতেই জিম্বাবুয়ের সাথে হেরে গেল। তাও এমন হার যা নিয়ে কিছু বলতে পারছি না। ১২৪ রান মাত্র সেটা নিয়ে কিভাবে জয়ের আশা করা যায় বুঝিনা। আমার হিসাবে সবচেয়ে ব্যালেন্স একটা টিম এখন বাংলাদেশের ৮জন সলিড ব্যাটসম্যান (তথাকথিত ) নিয়েও যদি এই অবস্থা হয় তাহলে কই যাই।
বাংলাদেশের যে কি হচ্ছে আমি বেশ চিন্তিত। খুব দিন বদলের আশায় ছিলাম। হাসিনার কথাবার্তা শুনে খুব উৎসাহিত হয়েছিলাম এইবার বুঝি ওদের মতি ফিরেছে। প্রতিদিন পেপারে পড়ি ছাত্রলীগ এই করছে সেই করছে আর নেতারা বলে চলছে কাউকেই ক্ষমা করা হবে না। এই কথার কথা গুলা বলে আর কতদিন আমাদের সামনে বাহবা নিবে। আর তো সহ্য হচ্ছে না। এক একবার এক এক দল ক্ষমতায় আসবে আর এক এক বার তাদের ছাত্রদল/ছাত্রলীগ এসে সব দখল করবে এরকম আর কতদিন চলবে। কবে এগুলোর একটা শেষ দেখব আল্লাহই জানেন। হাসিনা যদি ছাত্রলীগের কার্যক্রম স্থগিত ঘোষণা করে তাহলে আমার মনে হয় একটা বিহিত হবে প্লাস সবার জন্যই একটা ভাল দৃষ্টান্ত হবে। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আবারো উলটাপালটা কথা বলল। প্রশাসনে নাকি বিএনপি,জামাত এর লোক এইজন্য কোন পদক্ষেপ নেওয়া যাচ্ছে না। কি যে উনি বুঝাতে চেয়েছেন কে জানে। কেন যেন প্রথম থেকেই স্বরাষ্ট্র আর পররাষ্ট্র আমার ভাল লাগে নি। এক মাস যাওয়ার আগেই স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অনেক উলটাপালটা কথা বলে ফেলেছেন। এবার কিছু কাজ দেখালেই বাঁচা যায়। কেন যেন দেশের গতি প্রকৃতি দেখে কোন সরকার আছে বলে মনে হচ্ছে না। একই অবস্থা বিশ্বেরও। কোন নীতি কি আছে কিনা কে জানে। কেন ইসরায়েল প্যালেস্টাইনকে আক্রমণ করল কেনই বা এইসব চালাচ্ছে আল্লাহ মাবুদ।
অনেক বকবক করে ফেললাম। এত কিছু লেখার পর একবার পড়ে কেন যেন নিজেকে আব্দুল গাফফার চৌধুরীর মত মনে হচ্ছে।

১১ টি মন্তব্য : “প্রবাসে প্রলাপ ০০৩”

  1. আলম (৯৭--০৩)

    পানিসম্পদমন্ত্রী রমেশ চন্দ্র সেন বলেছেন,

    ভারত থেকে পানি কম পেলেও প্রতিবাদ করা যাবে না। বরং যতটুকু পানি পাওয়া যাচ্ছে, বাংলাদেশের জন্য তা-ই সৌভাগ্য।
    জবাব দিন
  2. সাকেব (মকক) (৯৩-৯৯)
    স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আবারো উলটাপালটা কথা বলল। প্রশাসনে নাকি বিএনপি,জামাত এর লোক এইজন্য কোন পদক্ষেপ নেওয়া যাচ্ছে না।

    এইটা স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী না, প্রতিমন্ত্রী বলছে...
    অবশ্য ফারাক নাই..


    "আমার মাঝে এক মানবীর ধবল বসবাস
    আমার সাথেই সেই মানবীর তুমুল সহবাস"

    জবাব দিন
  3. তাইফুর (৯২-৯৮)

    সেইদিন কানে ধরছি, বাংলাদেশের খেলা দেখুম না, গল্পও শুনুম না।
    ম্যালাদিন আগে কানে ধরছি, বাংলাদেশের রাজনীতি নিয়া কিছু শুনুম না।
    আমি এই ব্লগ পড়ি নাই ... মন্তব্যও করি নাই।


    পথ ভাবে 'আমি দেব', রথ ভাবে 'আমি',
    মূর্তি ভাবে 'আমি দেব', হাসে অন্তর্যামী॥

    জবাব দিন

মওন্তব্য করুন : বন্য (৯৯-০৫)

জবাব দিতে না চাইলে এখানে ক্লিক করুন।

দয়া করে বাংলায় মন্তব্য করুন। ইংরেজীতে প্রদানকৃত মন্তব্য প্রকাশ অথবা প্রদর্শনের নিশ্চয়তা আপনাকে দেয়া হচ্ছেনা।