কবিতা: আগাম বর্ষায় পোকার সাথে বসবাস……..

মশা মারতে গালে চড় দেয়ার আগেই
সাঁই করে হাত চলে আসে পিঠের ‘পরে।
থপাস শব্দ এক, কোন কিছুর স্থাণচ্যূত হবার আওয়াজ
কানে বাজে—সরসর…ফড়ফড়। ঘাড় বাঁকিয়ে
দেখে ফেলার আগেই চঞ্চল হাতটি ধরে আনে সেটা
দামী কিছু নয়—নেহাত ছোট একটা পোকা!!!

ঘরে বসতে পারিনা, মশার ঝাঁক পায়ে হুমড়ি খেয়ে পড়ে
মাথার উপর বনবন করে ওড়ে পোকা—-
ক্ষুদ্র থেকে মাঝারি হয়ে বেশ বড় ঘাসফড়িং পর্যন্ত।
বুঝিনা ফড়িংগুলো রাতকানা না বর্ণকানা হয়ে
মাথার কোঁকড়া কালো চুলগুলোকে সুস্বাদু ঘাস ভেবে বসে কিনা!!
ছোট ছোটগুলো আবার আদর পেতেই বুঝি ঢুকে পড়ে
জামার এমনকি গেঞ্জি হয়ে পাজামার ভিতর পর্যন্ত….

মেজাজ সপ্তমে চড়লে দু’চারটাকে ধরি পিষে
সাথে সাথেই ভেতরের সব উগড়ে আসে বিকট গন্ধে,
টের পাই এ যে ‘গান্ধী’!!! বাবা, ছেড়ে বাঁচি…..
বাথরুমে দৌড়, ভাবি সুগন্ধি ‘এরোমেটিক’ও
গন্ধ বিলোবে নাকি, এটা আবার সংক্রামক ব্যাধির দেশ তো……
কোনটাতেই বিশ্বাস নেই……………….

১,৫৮৭ বার দেখা হয়েছে

২১ টি মন্তব্য : “কবিতা: আগাম বর্ষায় পোকার সাথে বসবাস……..”

  1. তানভীর (৯৪-০০)

    তোর কবিতাটা পইড়া কেন জানি "পোকামাকড়ের ঘরবসতি" সিনেমার নাম মনে হইল।

    এটা আবার সংক্রামক ব্যাধির দেশ তো……
    কোনটাতেই বিশ্বাস নেই……………….

    কথা সত্য। :thumbup: :thumbup:

    জবাব দিন
  2. আদনান (১৯৯৪-২০০০)

    দোস্ত এইটা কি ফিউচারিস্টিক (নাকি অতি আধুনিক :grr: ) কবিতা । কোন ইনার মিনিং না থেকে থাকলে, এইধরনের কবিতা আমাদের ছিলনা কেন? কত্ত আরামে ব্যাখ্যা করতে পারতাম 😀

    জবাব দিন
  3. মুস্তাকিম (৯৪-০০)

    দোস্ত, তোমার কবিতা পইড়া তো আমারো অনেকদিন পর কবিতা লিখতে ইচ্ছা হইতাছে।কিন্তু কবি মনসুর কিছু কবিতা পোস্ট করার আগে আমি করলে বেয়াদবি হইব না?

    জবাব দিন

মন্তব্য করুন

দয়া করে বাংলায় মন্তব্য করুন। ইংরেজীতে প্রদানকৃত মন্তব্য প্রকাশ অথবা প্রদর্শনের নিশ্চয়তা আপনাকে দেয়া হচ্ছেনা।