ফেসবুক বন্ধ করা ও খুলে দেবার পরে …

[ফেবু বন্ধ করার পরে] –

শুনিয়া আঁতেল  সবে করে ধিক্‌-ধিক্‌,
কোথাকার গণ্ডমূর্খ পাষণ্ড নাস্তিক!
ফেবু নাকি হতে পারে অশান্তির আকর
একথা কেমন করে করিব স্বীকার!
জগৎ-বিখ্যাত মোরা জ্ঞান-অন্ত জাতি –
জবান বাঁধিয়া  দিবে! দুপুরে ডাকাতি!

[ফেবু পুনর্বার খুলে দেবার পরে] –

সভাস্থ সবাই ভাসে আনন্দাশ্রুনীরে,
ধর্মরাজ্যে পুনর্বার শান্তি এল ফিরে।
পণ্ডিতেরা মুখচক্ষু করিয়া বিকট
পুনর্বার উচ্চারিল – হিং টিং ছট্‌।

 

নিকট অতিতে সংঘটিত রামুর ঘটনা, সাইদির চন্দ্রাভিযান, এবং এরকম আরও অনেক ঘটনা ও দুর্ঘটনার অভিজ্ঞতাকে মাথায় রেখে সাকা-মুজার ফাঁসি কার্যকর করার আগে ফেসবুক এবং অন্যান্য সোশ্যাল নেটওয়ার্ক সাময়িক ভাবে বন্ধ করা হয়েছিল। বাক স্বাধীনতা হরণের এহেন কুচক্রী ষড়যন্ত্রের প্রতিক্রিয়ায় কোন কোন মানুষের হাহাকার ও মাতমে বাংলার আকাশ বাতাস রীতিমত মেঘাচ্ছন্ন হয়ে গিয়েছিল। সেই পরিস্থিতি বর্ননা করতে গিয়ে আবার সেই পুরোনো রবি ঠাকুরের শরণাপন্ন হলাম। কোন প্রকার সংশয় এড়ানোর উদ্দেশ্যে পাল্টে দেয়া শব্দগুলোকে বোল্ড-ইটালিক  করে দিয়েছি।

২,২৩৬ বার দেখা হয়েছে

১০ টি মন্তব্য : “ফেসবুক বন্ধ করা ও খুলে দেবার পরে …”

  1. পারভেজ (৭৮-৮৪)

    ফেসবুক বন্ধ থাকার কারনে মাতম যেটা হচ্ছে, ভিপিএন দিয়ে ফেবু ব্যবহারকারীদের জন্য তা একটু বেশীই বলে মনে হচ্ছে।
    মাঝেমধ্যে ফেবু ব্যবহারে এরকম কিছু আপস এন্ড ডাউনস আসলেই কি বড় কোন সমস্যা করে?
    আমার তো এখনো সেরকম কিছু মনে হয় না.........


    Do not argue with an idiot they drag you down to their level and beat you with experience.

    জবাব দিন
    • মুজিব (১৯৮৬-৯২)

      অমাবশ্যা পুর্নিমায় মাঝেমধ্যে উঁকি-ঝুঁকি মারা পর্যন্তই আমার ফেসবুক ব্যবহার সীমাবদ্ধ। যাঁরা পাঁড় পাঠক তাঁরা কিছুটা মনঃক্ষুণ্ণ হতেই পারেন, কিন্তু এভাবে মাতম ওঠানোটা রীতিমত বাড়াবাড়ি। যা খেত্রবিশেষে যথারীতি শালিনতার সীমাও পেরিয়েছে বলে শুনেছি।
      আমরা দায়ীত্ববোধবিহীন স্বাধীনতার এমনই কাংগাল যে, দালানে আগুন লাগার কারনে যদি লিফট বন্ধ করে দেয়া হয় তাহলে সেটাকেও আমাদের স্বাধীনতা খর্ব করার প্রয়াস বলে চিৎকার চেঁচামেচি করব।


      গৌড় দেশে জন্ম মোর – নিখাঁদ বাঙ্গাল, তত্ত্ব আর অর্থশাস্ত্রের আজন্ম কাঙ্গাল। জাত-বংশ নাহি মানি – অন্তরে-প্রকাশে, সদাই নিজেতে খুঁজি, না খুঁজি আকাশে।

      জবাব দিন
  2. রাজীব (১৯৯০-১৯৯৬)

    বাঙলাদেশে ফেসবুক ও অন্যান্য বেশ কিছু এপ যেমন ভাইবার, হোয়াটসএপ বন্ধ এতে কোন সমস্যা দেখছি না।
    যদিও বেশ কিছু পাবলিক ফেসবুক গরম করার চেষ্টা করতেছে। এবং সেটা ফেসবুক এ পোষ্ট দিয়াই।
    ভিপিএন না কি কইরা যেনো এরা ফেবু ইউজ করে।
    দেশের বাইরে যারা থাকে তারাও গরম গরম পোষ্ট দিতাছে।
    তাদের অবস্থা যেনো দেশের ফেসবুক বিহীন বন্ধুদের দুঃখে তারা মৃতপ্রায়।

    অবস্থাদৃষ্টে মনে হচ্ছে ফেসবুক আমাদের প্রথম মৌলিক অধিকার।

    আবার গত দুইদিন যাবত ভাবছি আমি কি আওয়ামী দালাল হয়ে গেলাম পুরো মাত্রায়।
    বিএনপি ফেবু বন্ধ করলে কি এইরকম নীরব থাকতাম!!!
    এই কারণে মহামতি আলেকজান্ডার বলেছেন, গিভ মি ব্লাড, আই উইল গিভ ইউ ফেসবুক। (সম্পাদিত)


    এখনো বিষের পেয়ালা ঠোঁটের সামনে তুলে ধরা হয় নি, তুমি কথা বলো। (১২০) - হুমায়ুন আজাদ

    জবাব দিন
    • মুজিব (১৯৮৬-৯২)

      এগুলোকে সাময়িক ভাবে বন্ধ করাতে বিশেষ কোন সমস্যা নাই, তবে তা অনির্দিষ্ট কাল ধরে বন্ধ রাখা উচিত হবেনা। আবার এভাবে বন্ধ করে দেয়াটাকে অভ্যাসে পরিণত করে ফেলাটাও ঠিক হবেনা। তাহলে ভবিষ্যতে এর অপব্যবহারের দরজা উন্মুক্ত হয়ে যাবে।

      বিএনপি ফেবু বন্ধ করলে কি এইরকম নীরব থাকতাম!!!

      এমন প্রশ্ন আমিও মাঝে মাঝে নিজেকে করি। কিন্তু সত্যি বলতে কি, এরকম একদম ইঞ্চি মেপে মেপে ব্যাপার গুলো মেলানো খুব দুষ্কর। মানুষ যখন, কিছু বায়াসনেস তো থাকবেই। সেটা যতক্ষণ অন্যের জন্য কোন ক্ষতির কারণ না হয়, ততক্ষণ পর্যন্ত এরকম টুকটাক কিছু বায়াসনেস দেখানোতে আমি আপত্তির কিছু দেখিনা।

      মহামতি আলেকজান্ডার বলেছেন, গিভ মি ব্লাড, আই উইল গিভ ইউ ফেসবুক।

      - :)) :)) :)) ... আলেকজান্ডার ছাহেব তো নদীর ওপারে দাঁড়িয়ে কথাটা বলেই দৌড় দিয়ে উত্তর দিকে পালিয়ে গিয়েছিলেন। যে কারণে এপারের গঙ্গাঋদ্ধির মানুষেরা তাঁকে আর রক্ত দেবার সুযোগ পায়নি। আর সে কারণেই বাংলার ঘরে ঘরে আজ ফেসবুকের অভাবে চলছে নিদারুণ হাহাকার ... 😛


      গৌড় দেশে জন্ম মোর – নিখাঁদ বাঙ্গাল, তত্ত্ব আর অর্থশাস্ত্রের আজন্ম কাঙ্গাল। জাত-বংশ নাহি মানি – অন্তরে-প্রকাশে, সদাই নিজেতে খুঁজি, না খুঁজি আকাশে।

      জবাব দিন

মন্তব্য করুন

দয়া করে বাংলায় মন্তব্য করুন। ইংরেজীতে প্রদানকৃত মন্তব্য প্রকাশ অথবা প্রদর্শনের নিশ্চয়তা আপনাকে দেয়া হচ্ছেনা।