৬ বছর বা ২২০৩ দিন – ৩য় পর্ব

প্রতিটি পর্ব লেখে মন্তব্য দেখে কিছু কিছু জিনিস পরিস্কার করে বলে দিতে হচ্ছে। লেখাগুলো এত ছোট হওয়ার কারণ হচ্ছে সময়। দেশে থাকলে হয়ত বড় করে লেখা যেত কিন্তু দেশের বাইরে থেকে জব করে, ক্লাস করে বড় করে লেখা সম্ভব হয়ে ওঠে না। সবার অবগতির জন্য আমি অত্যন্ত দুঃখিত।

এখনও সাতদিনের কাহিনীতে আটকে আছি। আরও ২-৩ পর্ব হয়ত এই সাতদিনের কাহিনী শেষ হয়ে যাবে। এই সাতদিনে সবারই কিছু না কিছু সমস্যা হত। সেই হাস্যকর সমস্যাগুলোর মধ্যে ছিল ডাইনিং হলে টেবিলে হাত তুলে খাওয়া, ডালের ডিশ দিতে বললে উঠে দাঁড়িয়ে সেটা দেওয়া, সালাম দিতে ভুলে যাওয়া, রুমে ঢুকতে পারমিশন নিতে ভুলে যাওয়া, খাওয়া শেষ করে ডাইনিং হল থেকে হাউসে যাওয়ার সময় ক্রস মারা ইত্যাদি ইত্যাদি। তো ২য় রাতে ডিনারের পর হাউসে আমি আর সাকিব একসাথে যাচ্ছিলাম এমন সময় আমাদের এক ব্যাচ সিনিয়র মুরাদ ভাই আমাদের পাশ দিয়ে যাচ্ছিল। হঠাৎ সাকিব মুরাদ ভাইকে ধরে বলল “কিরে তুই কোন হাউসের, তোর বাড়ি কই, তুই এইভাবে তাড়াহুড়ো করে কই যাস”।

তো আমাদের মুরাদ ভাই ক্ষেপে গিয়ে বলল এই ছেলে আমি তোমাদের এক ব্যাচ সিনিয়র, সালাম দাও। সাকিবের এই আচরনের কারণ ছিলো মুরাদ ভাই সাইজে একটু ছোট ছিল আর আমাদের সাকিবের সাইজ স্বাভাবিক থেকে একটু বেশিই ছিল যার জন্য ওকে আমরা বুড়ো সাকিব বলে ডাকতাম।………………..(চলতে থাকবে)

৯৪৫ বার দেখা হয়েছে

১৪ টি মন্তব্য : “৬ বছর বা ২২০৩ দিন – ৩য় পর্ব”

  1. আশহাব (২০০২-০৮)

    :khekz: :khekz: :khekz:
    মুরাদ ভাইরে দেইখা আমিও একদিন কইতে চাইসিলাম 😀 তাও আবার রিডিং রুমে, পরে কোনোমতে বাইচা গেসি O:-)
    জুলু ভাই, দারুন মজা পাইতাসি, লেখা চালায়ে যান :boss:

    জবাব দিন
  2. মাহবুব (৯৯-০৫)

    সাকিবের এই আচরনের কারণ ছিলো মুরাদ ভাই সাইজে একটু ছোট ছিল আর আমাদের সাকিবের সাইজ স্বাভাবিক থেকে একটু বেশিই ছিল যার জন্য ওকে আমরা বুড়ো সাকিব বলে ডাকতাম
    :)) :))

    জবাব দিন

মন্তব্য করুন

দয়া করে বাংলায় মন্তব্য করুন। ইংরেজীতে প্রদানকৃত মন্তব্য প্রকাশ অথবা প্রদর্শনের নিশ্চয়তা আপনাকে দেয়া হচ্ছেনা।