আমার এসএসসি প্রিপারেশন

২০০১ এর কথা, এসএসসি’র জন্য কলেজে শুধু আমাদের ব্যাচ রয়েছে। একদিন NDM ছিলেন মো: আলী স্যার (রসায়ন), তখন স্যারেরা রাউন্ড দিতেন রাত ১০টার পর। সেদিন ডিনারের পর ঠিক হল হাউস-গার্ডেনে লুকোচুরি খেলা হবে। খুব হইচই করে খেলা চলছে, আমি রাত ১০টার একটু আগে জয়েন করলাম। তানভীর বুদ্ধি দিল যে খালি গা আর কালো প্যান্ট পরে খেলতে, তাই করলাম।
খেলা শুরু করলাম, হাউসের সামনে দাড়িয়ে ভাবছি, কই লুকাবো- ডাইনিং হলের দিকে নাকি ধোপাখানার দিকে। এমন সময় পেছন থেকে কে যেন আমার ডান হাত ধরল, আমি ভাবলাম, ধুশ শালা ~খেলার শুরুর সাথে সাথে ধরা পরলাম :((
পিছনে তাকিয়ে দেখি 🙁 মো: আলী স্যার >:) ।
তিনি আমার হাত শক্ত করে ধরে খালি গায়ে (শার্ট পড়তে দেয় নাই :(( ) শ:উ: হাউস অফিসের দিকে নিয়ে চললেন (যেন আমি ছোট বাচ্চা,মেলায় হারিয়ে যাব)। আর তখন হাউস অফিসের সামনে অন্ধকারে পুরোদমে খেলা চলছে, স্যারের ধমকে সব হাওয়া। আমাকে অফিসে নিয়ে বল্লেন “নাম দাও”। আমি ভাবি কার কার নাম দিব :-/ , তার চেয়ে যারা খেলে নাই, তাদের নাম দেয়া সহজ হবে। স্যার সবাইকে ডাকলেন,
আমাদের ক্লাসের প্রায় সবাই ফুলবাবু হয়ে অফিসে হাজির। আমি সাইফ, মন্জুরের নাম বল্লাম, জানি এই দুজন কাহিনী ম্যানেজ করতে পারবে। স্যার দুজনকে ডাকলেন, ওরা ডাইভ দিয়ে স্যারের দুই পা ধরে কাদতে কাদতে মাফ চাওয়া শুরু করল, উনি উপদেশ নসিহত করছেন, আমি নিজেও খুব অনুতপ্ত। ওরা আমাকে বলল স্যারের পা ধরতে। আমি ভাবছি স্যারের আরেকটা পা থাকলে আমিও ধরতে পারতাম।
হঠাৎ আমার সন্দেহ হল, এই দুজন এত ভাল না। নিচে তাকায় দেখি তেনারা হাসির চোটে কাপতেসে, এতক্ষন তারা অভিনয় করছিলেন। স্যার ভাবসেন, ছেলেরা কত লজ্জিত, মাফ করে দিলেন।

২ বছর পর, আমি ক্লাস ১২এ। একদিন এক জুনিয়র খাওয়ার টেবিলে বলল, ” ভাইয়া আপনাকে নাকি একদিন মো: আলী স্যার পিটাতে পিটাতে জামা-কাপড় ছিড়ে ফেলেছিল????” :-B
আমি বললাম, “আমাকে দেখে কি মনে হয় আমি তেমন কিছু করতে পারি???”
এক্স ক্যাডেট হওয়ার পরও আমার নিজের ক্লাসমেটও একই কথা জিজ্ঞেস করে, তারা জানতোনা আমি ঐদিন খালি গায়ে খেলতে গিয়েসিলাম

১,১২৫ বার দেখা হয়েছে

১৫ টি মন্তব্য : “আমার এসএসসি প্রিপারেশন”

মন্তব্য করুন

দয়া করে বাংলায় মন্তব্য করুন। ইংরেজীতে প্রদানকৃত মন্তব্য প্রকাশ অথবা প্রদর্শনের নিশ্চয়তা আপনাকে দেয়া হচ্ছেনা।