হাবিজাবি।

——————————————

কিছু বিবরণ

বেইলি রোডের ফুল বিক্রেতা শাহানার মলিনতার মুখচ্ছবি খানিকটা
আমার গাঁয়ের মতন।
ঘোর ঘোর বর্ষণ-
এখানে দু:খ- ওখানে সুখ- ওখানে সুখ- ওখানে সুখ-
ওখানে শৈশব- ওখানে পাঠশালার পথে- ধূলোর আস্তরন।
কষ্টে নিমজ্জন-
এখানে বিষাদ- ওখানে নদী- ওখানে ব্যাকুলতা বড়-
বুবুর চুলে দোয়েল পাখি- ওখানে শিউলির পুতুলের বিয়ে-
আমার নিমন্ত্রণ?

গুলশান সার্কেলের আজন্ম ভিখারিনী আমেনার শাড়ীর বিবর্ণ আঁচল অনেকটা
আমার রাত্রির মতন।
যেখানে ফেরা- ফিরতে চাওয়া-
যেখানে বোঝা- বাইশ বছরের এই- কত আরাধনার এই
মানব জীবন?

২,৫২৮ বার দেখা হয়েছে

৩৫ টি মন্তব্য : “হাবিজাবি।”

  1. আন্দালিব (৯৬-০২)

    পার্সপেক্টিভ তুলে আনা হয় এমন রচনা আমাকে খুব আকৃষ্ট করে। এটাও করলো। শহর থেকে হুট করে গ্রাম-শৈশবে লাফটা খুব ভাল লাগছে। আবার পাশাপাশি "ওখানে সুখ" এর পুনরুক্তি একটু বাধছেও। সুখের বিকল্প উপাদানগুলো তুলে আনা যেতে পারে কবিতায়, থুড়ি, "ব্লগর ব্লগর"-এ! 😉

    বিষাদ, নদী আর ব্যাকুলতা আমাকে টানলো খুব... সজোর, সকাতর টান!

    জবাব দিন

মন্তব্য করুন

দয়া করে বাংলায় মন্তব্য করুন। ইংরেজীতে প্রদানকৃত মন্তব্য প্রকাশ অথবা প্রদর্শনের নিশ্চয়তা আপনাকে দেয়া হচ্ছেনা।