মোটেও যে নয় মশকরা, যায়না মশা বশ করা!

আমাদের পাড়াতে
নালায়েক মশাগুলা
থাকে বিনা ভাড়াতে।

যেথা আছে ডোবা-নালা
যেথা আছে কর্দম
মশাদের ছানাপোনা
খেলে সেথা হরদম।

ধীরে ধীরে সন্ধ্যাতে
নেমে এলে রাত্র
মশাগুলো ঘুম ভেঙে
হাই তোলে মাত্র।

দাঁত ব্রাশ করে, ঠিক-
ঠাক করে যন্ত্র
কানে এসে ঘ্যান ঘ্যান
পড়ে মশা-মন্ত্র।

সাথে চলে ঢাক ঢাক
গুড় গুড় বাদ্য
আমাদের বাসাতেই
পাঁচখানা খাদ্য।

শোষকের দল ওরা
শোষিত যে আমরাই
ক্ষেপে গিয়ে ভাবি মশা
ধরে ধরে কামড়াই।

যদিওবা আগা গোড়া
জানো জুডো – কারাতে
মশাদের সাথে তবু
পারবেনা দাঁড়াতে
হেরে ভূত হবে, শুধু
পারবেনা হারাতে।

মশাদেরই জয় হয়
করি শেষে রিট্রিট
তৃপ্তিতে চোখ বুজে
বলে, আহা! কি ট্রীট!

আমি খাই কামড়ানি
মশা খায় রক্ত
বেটা করে মুখ ব্যাঁকা
আমি করি শক্ত।

তাহাদের জ্বালাতে
মন চায় সব কিছু
ছেড়ে ছুড়ে পালাতে।

৩,০০৩ বার দেখা হয়েছে

৩৯ টি মন্তব্য : “মোটেও যে নয় মশকরা, যায়না মশা বশ করা!”

  1. ভাবতেছি ছড়াটা প্রিন্ট আউট করে রুম এ টাঙ্গায়া দিবো,এরপর যদি ইডিয়ট মশা গুলার হাত থেকে বাঁচা যাই। x-(
    এমন এক গ্রামে থাকি,এখানে মনে হয় মানুষের চেয়ে মশা বেশি। ~x( ~x(
    জিহাদ ভাইয়া,চ্রম চ্রম চ্রম হয়ছে :boss: :boss: :boss:

    জবাব দিন
  2. আহসান আকাশ (৯৬-০২)

    আমার প্রিয় ছড়াকার... মাল্কবি জিহাদ :hatsoff: :hatsoff:


    আমি বাংলায় মাতি উল্লাসে, করি বাংলায় হাহাকার
    আমি সব দেখে শুনে, ক্ষেপে গিয়ে করি বাংলায় চিৎকার ৷

    জবাব দিন
  3. সাকেব (মকক) (৯৩-৯৯)

    সাধু! সাধু!
    মারহাবা!
    ছড়াও যে একটা শিল্প, তুমি এইটা বারবার মনে করায়ে দাও :hatsoff:


    "আমার মাঝে এক মানবীর ধবল বসবাস
    আমার সাথেই সেই মানবীর তুমুল সহবাস"

    জবাব দিন
  4. ওয়াহিদা নূর আফজা (৮৫-৯১)

    রবীন্দ্রনাথ যে বয়সে মেজ বৌঠাকুরনকে নিয়ে পাতার পর পাতা গদ্য পদ্য রচনা করে গেছেন সে বয়সে এই যুগের ছেলেদের মশা নিয়ে লিখতে হচ্ছে। বিষয়টা মোটেই মশকরার নয়, কপালে ভাজ পড়ার মতো।


    “Happiness is when what you think, what you say, and what you do are in harmony.”
    ― Mahatma Gandhi

    জবাব দিন

মন্তব্য করুন

দয়া করে বাংলায় মন্তব্য করুন। ইংরেজীতে প্রদানকৃত মন্তব্য প্রকাশ অথবা প্রদর্শনের নিশ্চয়তা আপনাকে দেয়া হচ্ছেনা।