বিচার

আর কত্তদিন থাকা লাগব এইহানে? পরথম পরথম হিসাব রাখতাম। এহন তো আর মনে থাকে না। কুন রুমে আছি? সারাডাদিন কাম করায়- মোড়া বানাও, খাওন রান্ধ, গাছে পানি দাও…।। কিয়ের লইগা যে আইছি তাও তো ভুইলা গেছি। ওহ! মনে হইছে, বউডারে মাইরা লাইল চেয়ারম্যানের পোলায় – কফিল্লায়। ঘাড়ে দিলাম এক কোপ পরের দিনই। ব্যাস কল্লাডা নাইমা গেল।

এইখানে নাকি অনেক বড় একজন মানুষ আইব? অনেক বড় নেতা? আহ হারে বুইড়া লোক টারে ক্যান এতদিন কষ্ট করাইব? ফাঁসিডা দিয়া লাইলেই তো হইত। বেডায় কি এমন করছে যে এত্তবছর হাজত-বাস?

ও সে এত্তডি মানুষরে মারাইছে? হাছা? আশ্চর্য কাম! আমি কইলাম আবার মানুষ মারা একদম পছন্দ করি না। ভাবতাছি বুইড়া মানুষডারে দেখলে পরথমই সালাম করুম।তারপর দিমু ঠাডায়া একখান রাম চড়। পরথম দিন একটা, তারপরের দিন একটার লগে আরেকটা। তারপরের দিন আরও যতদিন যাইব প্রতিদিনের লইগা একটা কইরা ফ্রি। আমার দিন গুনা হইয়া যাইব। যাক একটা ক্যালেন্ডার পাইয়া মনডায় একটু শান্তি লাগতাছে।
Hang20130206040704

(আমি আসলে বুঝতেছি না, কি করব। জেলের সিস্টেম কি তাও জানি না। রায় শুনে আমি – মাননীয় স্পীকার)

৯১৯ বার দেখা হয়েছে

৭ টি মন্তব্য : “বিচার”

মন্তব্য করুন

দয়া করে বাংলায় মন্তব্য করুন। ইংরেজীতে প্রদানকৃত মন্তব্য প্রকাশ অথবা প্রদর্শনের নিশ্চয়তা আপনাকে দেয়া হচ্ছেনা।