বিবাহিতদের গল্প, পোলাপাইনের পড়া নিষেধ

১.
ডাকাত পড়লো ব্যাংকে। ভল্ট থেকে সব অর্থ তুলে নেওয়ার পর ব্যাংকের ভিতরে থাকা সবাইকে এক লাইনে দাড়াতে বললো ডাকাতরা। ডাকাত সর্দার দবিরকে জিজ্ঞাসা করলো-তুমি কি দেখোছে যে আমরা ডাকাতি করেছি।
কাপঁতে কাপঁতে দবির বললো- জি দেখেছি। সাথে সাথে এক গুলি, লুটিয়ে পড়লো দবির।
পাশে দাঁড়ানো ছবির আর তার বউ জরিনা। ডাকাত সর্দার এবার ছবিরের কাছে জানতে চাইলো-তুমিও কি দেখেছো যে আমরা ডাকাতি করেছি।
এবার ছবির বললো-আমি দেখিনি, তবে আমার বউ দেখেছে।

২.
দারোয়ানের ইন্টারভিউ নিচ্ছে দবিরের বউ সখিনা।
-তোমার কি নাম?
-আবদুল
-শোনো, আমি বেয়াদবি একদম পছন্দ করি না, মুখের উপর কথা বলবে না। যা বলি তাই শুনতে হবে, দোকানে যেতে যখন বলবো তখনই যেতে হবে। আর আমার চোখে চোখ রেখে কথা বলতে পারবে না।
এইবার আবদুল আর পারলো না, বললো-এইগুলো তো বাড়ির সাহেবের কাজ। আমারে কি করতে হবে সেইটা বলেন।

৩.
চোর ধরা পড়েছে। ধরলো আবার দবিরের বউ সখিনা। খালি ধরাই পড়েনি, সখিনা তাকে এমন মার দিয়েছে যে বেচারা চোর হাসপাতালে।
আসলো পুলিশ। পুলিশ সখিনাকে ধন্যবাদ দিয়ে বললো-এই বেটা দাগী চোর। বহুদিন ধরে খুঁজছি। তা আপনি একা একজন মেয়ে মানুষ ধরলেনই বা কিভাবে আর এভাবে মার দিলেনই বা কিভাবে?
সখিনা-আসলে এটা যে চোর আমি বুঝতে পারিনি । অনেক রাত ছিলোতো। আমি ভেবেছিলাম আমার স্বামী বাসায় ফিরেছে।

৪.
বিয়ের ১০ বছর পর বিচ্ছেদের মামলা করলো দবির। আদালতে গড়ালো মামলা। বিচারক জানতে চাইলেন-দবির, আপনি কেন বিচ্ছেদ চাইছেন।
-হুজুর আমার বউ রাগ হলে হাতের কাছে যা আছে তাই ছুড়ে মারে। এই দেখেন গতকাল ফুলদানি ছুড়ে মেরে আমার কপালটা কি করেছে।
বিচারক-কতদিন থেকে এরকম ছুড়ে মারছে?
-হুজুর বিয়ের পর থেকেই।
-তাহলে এতদিন পরে আদালতে এসেছেন কেন?
-হুজুর, আগে তো ছুড়ে মারলে লাগতো না। কিন্তু এখন ছুড়ে মারতে মারতে হাতের টিপ ঠিক হয়ে গেছে। মারলেই গায়ে লাগে ।

৫.
দবির-হ্যারে ছবির, তোর ইয়ে….. লাইফ কেমন?
ছবির-ভালই, শনিবার থেকে বৃহস্পতিবার।
দবির-আর, শুক্রবার?
ছবির-ও, শুক্রবার? ঐ দিন তো বাড়িতে খাকি, বউরের সাথে রিলাক্স করি।

৬.
এবার আমার কথা বলি। আমি বিয়ে করেছি ৬ বছর। আমরা কখনো ঝগড়া করি না। আমরা প্রথম দিনই সংলাপের মাধ্যমে জাতীয় সনদ বা ঐকমত্য তৈরি করে নিয়েছি। যেমন আমরা ঠিক করে নিয়েছিলাম যে, আমি বড় তাই বড় বড় বিষয়গুলো আমিই মাখা ঘামাবো। সেই হিসেবে ওবামা নির্বাচিত হতে পারবে কীনা, প্যালেস্টাইনে শান্তি ফিরে আসবে কীনা, মার্কিণ অর্থনীতির মন্দা কতদিন থাকবে, হিলারী কি শেষ পর্যন্ত টিকে থাকবে-এসব বড় বড় বিষয়ে আমিই সিদ্ধান্ত নেই। আর কী রান্না হবে, শালীর ছেলের জন্মদিনে কি উপহার কেনা হবে, মেয়ে কোন স্কুলে যাবে, ডিপ ফ্রিজ না ওয়াশিং মেশিন কেনা হবে, শালার বিয়েতে কত দামের গহনা কিনবো-এসব ছোট খাট বিষয়ে আমার বউই সিদ্ধান্ত নেয়।

৪,৫০৯ বার দেখা হয়েছে

৫২ টি মন্তব্য : “বিবাহিতদের গল্প, পোলাপাইনের পড়া নিষেধ”

  1. সাকেব (মকক) (৯৩-৯৯)

    বস,
    লেখাটা পুরা পাংখা...

    আপনি তো দেখি বাসর রাতেই বিড়াল মাইরা ফেলছিলেন (এইখানে মন্তব্যকারী 'বিড়াল মারা' বলতে জাতীয় সনদ তৈরীর কথা বুঝাতে চেয়েছেন 😉 )...


    "আমার মাঝে এক মানবীর ধবল বসবাস
    আমার সাথেই সেই মানবীর তুমুল সহবাস"

    জবাব দিন
  2. জাফর (৯৫-০১)
    -হুজুর, আগে তো ছুড়ে মারলে লাগতো না। কিন্তু এখন ছুড়ে মারতে মারতে হাতের টিপ ঠিক হয়ে গেছে। মারলেই গায়ে লাগে ।

    =)) =)) :goragori:

    আপনার সনদ কে সহজ ভাষায় বিশ্লেষণ করলে , পারিবারিক সরকার গঠন করলে আপনি রাষ্ট্রপতি আর ভাবী প্রধানমন্ত্রী। :-B

    জবাব দিন
  3. সানাউল্লাহ (৭৪ - ৮০)

    খালি বিবাহিতদের নিয়া লেখ কেন? এটা অন্যায়। এই ব্লগে বেশির ভাগই কচিকাচা। তাদের জন্য লিখবে কে? এই পুলাপাইন তুমরা মাসুমের আইপি সুদ্ধা ভ্যান চাও!! 😡 😡 😡


    "মানুষে বিশ্বাস হারানো পাপ"

    জবাব দিন
  4. রেজওয়ান (৯৯-০৫)

    ১ নং পয়েন্ট থেকে পাই,

    সাথে সাথে এক গুলি, লুটিয়ে পড়লো দবির।

    ১ নং পয়েন্ট ২ নং এ মিলিয়ে পাই,

    দারোয়ানের ইন্টারভিউ নিচ্ছে দবিরের বউ সখিনা।

    কিন্তু দবির মিয়া তো নাই...তাইলে এইটা দবিরের বিধবা বউ, আর নাইলে দারওয়ান... 😛

    ১ ও ২ থেকে ৩ নং এ পাই,

    আমি ভেবেছিলাম আমার স্বামী বাসায় ফিরেছে।

    তাইলে স্বামিটা কে :-/ দারোয়ান নাতো ????
    ৪ নং এ আছে,

    বিয়ের ১০ বছর পর বিচ্ছেদের মামলা করলো দবির।

    তাইলে দাঁড়াল দারোয়ানের নামও দবির :-B
    ৫ নং এ বলা হয়েছে,

    দবির-হ্যারে ছবির, তোর ইয়ে….. লাইফ কেমন?
    ছবির-ভালই, শনিবার থেকে বৃহস্পতিবার।

    তাইলে এইগুলান আবার কারা... :-B
    নাহ বড় বেশী প্যাচ লাইগা জাইতেসে... 😛 😛 😛
    হেব্বি হইছে বস... :khekz: :khekz: :khekz: :khekz:

    জবাব দিন
  5. রকিব (০১-০৭)

    শওকত ভাই, লেখাটা মনে হয় বেশি মজার হইছে...আমি এখনো পড়ি নাই O:-) O:-) আপ্নে মানা করছেন দেইখা 😐 😐 ...এক্তু পড়বার চাই???? পড়ি????? :-B :-B


    আমি তবু বলি:
    এখনো যে কটা দিন বেঁচে আছি সূর্যে সূর্যে চলি ..

    জবাব দিন
  6. মান্নান (১৯৯৩-১৯৯৯)

    এইগুলাতো বিবাহিতরা সবাই জানে জানেনা শুধু অবিবাহিতরা। তাই 'শুধুমাত্র অবিবাহিতদের জন্য" শিরোনাম দেয়া হোক এবং পোলাপাইনের জন্য পড়া বাধ্যতামুলক করা হোক। টেস্ক্টবুক সিলেবাসেও অন্তর্ভুক্ত করা যেতে পারে।

    জবাব দিন
  7. খুব অন্যায়। বিবাহিতদের জন্য লেখা, কমেন্ট করে খালি অবিবাহিতরা।

    শুধু এই পোস্টটা পড়ার জন্য সিসিবির সকল অবিবাহিতকে বিবাহ করার পরামর্শ দেয়া হলো।

    চামে শওকত ভাই এতোগুলা পোলা মাইয়ার জীবনের গতি করার সওয়াব পাইবেন। খালি নামাজ রোজা না, ব্লগ লিইখাও বেহেস্তে যাওয়া যায়- প্রমাণ হয়া যাইব।

    জবাব দিন
  8. সায়েদ (১৯৯২-১৯৯৮)
    আর কী রান্না হবে, শালীর ছেলের জন্মদিনে কি উপহার কেনা হবে, মেয়ে কোন স্কুলে যাবে, ডিপ ফ্রিজ না ওয়াশিং মেশিন কেনা হবে, শালার বিয়েতে কত দামের গহনা কিনবো-এসব ছোট খাট বিষয়ে আমার বউই সিদ্ধান্ত নেয়।

    আরও আছে, আরও আছে -
    কোন জামাটা পড়ব 🙁
    কার দিকে তাকাবো 🙁 🙁
    কতটুকু হাসব :(( :((
    কয় সিপ পেপসি খাব :(( :(( :((
    ইত্যাদি ইত্যাদি..........।


    Life is Mad.

    জবাব দিন
  9. মুসতাকীম (২০০২-২০০৮)

    আমি কিন্তু পড়ি ন নাই 🙁 🙁 🙁


    "আমি খুব ভাল করে জানি, ব্যক্তিগত জীবনে আমার অহংকার করার মত কিছু নেই। কিন্তু আমার ভাষাটা নিয়ে তো আমি অহংকার করতেই পারি।"

    জবাব দিন
  10. টিটো রহমান (৯৪-০০)
    বিবাহিতদের গল্প, পোলাপাইনের পড়া নিষেধ

    তাইলে তো কেউ পড়তারবো না :(( :(( :(( :(( :(( :(( :(( :(( :(( ...........কারণ পোলাপাইনরা সবাই কোন না কোন বিবাহিতের সন্তান :(( :((


    আপনারে আমি খুঁজিয়া বেড়াই

    জবাব দিন

মন্তব্য করুন

দয়া করে বাংলায় মন্তব্য করুন। ইংরেজীতে প্রদানকৃত মন্তব্য প্রকাশ অথবা প্রদর্শনের নিশ্চয়তা আপনাকে দেয়া হচ্ছেনা।