এডিট হওয়ার প্রচেষ্টায়…।

প্রথমেই বলে রাখি কলেজে দেয়াল পত্রিকার দূর্দান্ত প্রতাপের সময়েও আমার দৌড় ছিল চুরি করে একটা ছড়া পর্যন্ত। রহমান ওর লেখাতে আমার নাম উল্লেখ করাতে আমি এডিট করতে বলেছিলাম। জিহাদ আর রহমান দুইজনে মিলে উত্তর দিল নিজেকে এডিট করার জন্য। এটা হল এক নম্বর মোটিভেশন। আর দুই নম্বর টা হল ঐ লেখাতে কমেন্ট চালাচালির পর মাথাটা খারাপ হয়ে গেল। মাথার ভেতর পরশুর পরিক্ষার পড়া লিড টাইম, সাপ্লাই চেইন, পারফর্মেন্স মেজারমেন্ট, লে-আউট আর ইনভেনটরি পজিশনিং এর জায়গায় ঘুরতেসে কলেজের কথা… মনে হইল এইবার কি-বোর্ড ভাইঙ্গা দিয়া হইলেও লিখতে হবে। নাইলে পরিক্ষা আর ঘুম দুইটাই যাবে।
যাই হোক অনেক ভূমিকার পর এইবার একটা কৌতুক বলি… (এইটাও চুরি…ভালা মাইনশের ভাত নাই, ওদেরকে এডিট হইয়া যাইতে বলা হয়)

দুই বন্ধুর দেখা হল বেশ কিছুদিন পর। চা দোকানে গল্প চলছে।।
১ম বন্ধুঃ মামা তোর ভালো নামটা যেন কি?
২য় বন্ধুঃ কেনরে… আব্বাস
১ম বুন্ধুঃ মামা তোমার পিছনে (জ্বী ঠিক ধরেছেন…পড়ুন পশ্চাৎদ্দেশ) গাব গাছ
তো ২য় জন খুব ক্ষেপে গেল। তবে সাথে সাথে তো আর কিছু করা যায়না তাই একথা সেকথার পর সেও জিজ্ঞেস করলো
আচ্ছা তোমার নামটা কি মামা?
১ম জনঃ হেঃ হেঃ আমার নাম করিম।
২য় জনঃ করিম মামা তোমার পিছনে (আবারো আগের মত) বড়ই গাছ।
১ম জনঃ মাম্মা মিললোনাতো…।।
২য় জনঃ মিললোনাতো কি হইসে? ছিললো তো বেশী।

৩,০১৫ বার দেখা হয়েছে

৪২ টি মন্তব্য : “এডিট হওয়ার প্রচেষ্টায়…।”

  1. রহমান (৯২-৯৮)

    আপু, কমেন্ট শিল্পী থেকে লেখিকার পদে পদোন্নতির জন্য আপনাকে অভিনন্দন, :clap: সেই সাথে স্বাগতম। আমার লেখার মাধ্যমে সিসিবিতে একজন লেখকের (লেখিকা) সংখ্যা বাড়াতে নিজেকে ধন্য মনে করছি। 🙂

    আপনার কৌতুক পড়ে খুব মজা পেলাম। বই (বিদ্যা) চুরি
    করলে নাকি পাপ হয়না, তাহলে আমার মতে কৌতুক চুরি করলেও করলেও কোন ক্ষতি নাই কারন কৌতুক মানুষকে নিমল আনন্দ দেয়। সো আরও বেশি করে চুরি করেন ও আমাদের সাথে শেয়ার করেন এই কামনা রইল। :thumbup:

    জবাব দিন
  2. কাইয়ূম (১৯৯২-১৯৯৮)

    সেলিনা আপুকে অনেক ধন্যবাদ এডিটেড হওরার জন্য :boss: :boss:
    আপু ভালোমতোন পরীক্ষাটা দিয়া আবার লেখতে বিসা পিরেন 😀 (বইসা পড়েন B-) )


    সংসারে প্রবল বৈরাগ্য!

    জবাব দিন
  3. মুসতাকীম (২০০২-২০০৮)

    ব্যাপক মিজা পিলাম =)) =)) =))


    "আমি খুব ভাল করে জানি, ব্যক্তিগত জীবনে আমার অহংকার করার মত কিছু নেই। কিন্তু আমার ভাষাটা নিয়ে তো আমি অহংকার করতেই পারি।"

    জবাব দিন
  4. রহমান (৯২-৯৮)

    আপুর এই কৌতুকটা পড়ে আমার আরেকটা জুক্স মুনে পিড়া গিল। (এই জুক্সটা আমাদের কলেজের এক বন্ধুর কাছ থেকে শোনা)ঃ
    এমজিসিসি র দুই ক্যাডেটের মধ্যে কথপোকথনঃ
    -এই, ছেলে ক্যাডেটরা সারাদিন নিজেদের মধ্যে কি এত আলোচনা করে রে?
    -কেন? আমরা যা করি, তাই করে
    - 😮 কি বলিস??? ছেলেরা এত খারাপ ???
    😛
    (বিঃদ্রঃ আমি এটা বিশ্বাস না করার কারনে "জুক্স" শব্দটা ব্যবহার করলাম :D, কেউ ব্যথিত হলে ক্ষমা করে দিবেন)

    জবাব দিন
  5. রেজওয়ান (৯৯-০৫)
    মাথার ভেতর পরশুর পরিক্ষার পড়া লিড টাইম, সাপ্লাই চেইন, পারফর্মেন্স মেজারমেন্ট, লে-আউট আর ইনভেনটরি পজিশনিং এর জায়গায় ঘুরতেসে কলেজের কথা

    আল্লাহ পাক বাচাইসে...কলেজে ফ্যাকাল্টি দিছিল... :boss: :boss: :boss: থ্যাংকু আল্লাহ...থ্যাংকু মোল্লাহ স্যার... 😉 😉 😉
    ফ্যাকাল্টি জিন্দাবাদ :awesome: :awesome: :awesome: :awesome: :awesome: :awesome:

    জবাব দিন
  6. সেলিনা (১৯৮৮-১৯৯৪)

    সবাইকে অসংখ্য ধন্যবাদ। আমার উত্তর দিতে দেরি হল বলে আর সবাইকে আলাদা আলাদা প্রতিমন্তব্য করছিনা। তবে কিছু কিছুতো আর ছেড়ে দেয়া যায়না...।

    @রহমানঃ ছেলেরা মেয়েলী বিষয় নিয়ে আলোচনা করলে মেয়েরা আর কিইবা বলতে পারে 😀 (তুমি কি আজকাল জোকস ও বিশ্বাস কর নাকি?)

    @রিজওয়ানঃ তুমি কি আগেই সব পইড়া ফালাইস নাকি? আমার-ই দেরি হয়া গেল 🙁
    সবাইকে শুভেচ্ছা

    জবাব দিন
  7. সামিয়া (৯৯-০৫)

    উরে বাবা...সেলিনা আপা (মতান্তরে ম্যাডাম :shy: :boss: ) লিখা দিসেন... :salute:

    amec এর প্রোগ্রামে গিয়ে একটা মানুষ দেখলাম। শুকনা টিংটিঙ্গা কিন্তু চোখে দশটা মানুষের সমান উৎসাহ জ্বলজ্বল করছে। দৌড়াদৌড়ি করছে, সবার টাকা তুলছে, ফারা আপাকে আস্তে আস্তে জিজ্ঞাস করলাম, উনি কে?
    কেন তুমি চিননা? উনি তো সেলিনা আপা, বুয়েটের টিচার।
    আমি পুরা তব্দা, আমি ভাবসিলাম আমার থেকে একটু বড় হবে হয়ত, সেই থেকে আমি সেলিনা আপার ফ্যান, কিছু না জেনেই ফ্যান।
    সেলিনা আপা আপনি ধুমায় লিখতে থাকেন। কিছু মাথায় না আসলে ক্লাস লেকচার গুলাই তুলে দিয়েন 😀

    জবাব দিন
  8. টিটো রহমান (৯৪-০০)
    কিছু মাথায় না আসলে ক্লাস লেকচার গুলাই তুলে দিয়েন

    বাহ যেমন সেলিনা আপা তেমনি সামিয়া।
    :tuski: :tuski: :tuski: :tuski: :tuski: :tuski: :tuski: :tuski: :tuski:
    :awesome: :awesome: :awesome: :awesome: :awesome:
    :hatsoff: :hatsoff:


    আপনারে আমি খুঁজিয়া বেড়াই

    জবাব দিন
  9. আহ্সান (৮৮-৯৪)

    যাক...শেষ পর্যন্ত কিছু একটা লিখলি তাইলে।
    তুই করে বলায় রাগ করলে কিছু করার নাই। ক্লাশমেট কাউকে আমি আপনি বা তুমি বলতে পারিনা। আর ক্যাডেট হলে তো ব্যাপারটা পুরাটাই অসম্ভব আমার দ্বারা।
    যাহোক, সামিয়ার কমেন্টে দেখলাম তুই বুয়েটের টিচার...। ভয় নিয়ে লেখা উচিত কিনা বুঝতেছিনা।
    যাইহোক, লেখা শুরু করছিস, চালাতে থাক। নইলে আমি একলা হইয়া যাইতাছি। মির্জাপুরের ওবায়েদ কিছুদিন ছিল, এখনতো দেখি আবার উধাও। থামিসনা...।

    জবাব দিন
  10. জুনায়েদ কবীর (৯৫-০১)

    দুই বন্ধুর দেখা হল বেশ কিছুদিন পর। চা দোকানে গল্প চলছে।। প্রসংগতঃ উল্লেখ্য তারা দুজনেই সিসিবিয়ান...

    ১ম বন্ধুঃ মামা জানোস, সেলিনা আপা এডিটেড হয়ে গেছেন...
    ২য় বন্ধুঃ সেকি রে...নাম বদলায়া ফেলছেন নাকি???
    ১ম বন্ধুঃ আরে বোকা, তা না...উনি ব্লগে লেখা দিয়েছেন...
    ২য় বন্ধুঃ নাম বদলায় নাই, পদবী বদলায় নাই, পেশা বদলায় নাই...তাইলে এডিটেড??? কেম্নে কি...মিলল না তো...
    ১ম বন্ধুঃ মিলে নাই তাতে কি? উনি লেখা তো দিয়েছেন...

    আপু, আশা করব আপনি অনেক অনেক লেখা দিতেই থাকবেন...দিতেই থাকবেন... 😀


    ঐ দেখা যায় তালগাছ, তালগাছটি কিন্তু আমার...হুঁ

    জবাব দিন
  11. সেলিনা (১৯৮৮-১৯৯৪)

    ব্লগে সবার যদি পদবী ধরে টানাটানি শুরু করা হয়, তাইলে বিরাট হাউ-কাউ লাগবে, নাকি বলেন মেজর সাব (বলিস বলতে চাইছিলাম, কিন্তু মিলেনা), ডাক্তার সাব, ডাইরেক্টর স্যার।

    মাষ্টারদেরকে দেখি কমান্ডোরাও ডরায়। :guitar:

    @সামিয়াঃ তুমি ৫০০ বার "ভুল করসি, এই ভুল আর করবোনা", লিখে নিয়ে আস (আমি এই শাস্তি বিনা দোষেই কয়েকবার পেয়েছি।)

    জবাব দিন

মন্তব্য করুন

দয়া করে বাংলায় মন্তব্য করুন। ইংরেজীতে প্রদানকৃত মন্তব্য প্রকাশ অথবা প্রদর্শনের নিশ্চয়তা আপনাকে দেয়া হচ্ছেনা।