টুশকি ২৯

টুশকি [১] [২] [৩] [৪] [৫] [৬] [৭] [৮] [৯] [১০] [১১] [১২] [১৩] [১৪] [১৫] [১৬] [১৭] [১৮] [১৯] [২০] [২১] [২২] [২৩] [২৪] [২৫] [২৬] [২৭] [২৮] [৩০]

১. “ইন থ্রি” ফল ইন করাতে আমরা ভালোই অভ্যস্থ । কোন একটা অপারেশনে আটজন নিহত হলে জনৈক সিনিয়র সৈনিককে দায়িত্ব দেয়া হলো কবর প্রস্তুত করার। কবরস্থ করার সময় কর্তৃপক্ষ লক্ষ্য করল নিহত ব্যক্তির সংখ্যা আট হলেও কবরের সংখ্যা নয়টি। কারণ জিজ্ঞাসা করলে উত্তরে কবর প্রস্তুত করা দায়িত্বপ্রাপ্ত সেই সিনিয়র সৈনিকের জবাব, “স্যার, আটটা কবর কোনভাবেই ‘ইন থ্রি’ মিলাইতে পারতেছিলাম না তো, তাই একটা বাড়ায়া দিছি”।

২. ফোর স্ট্রোক ইঞ্জিনের পিস্টনের ওঠানামার চারটি ধাপ কোনক্রমেই অধীনস্থদের বোঝাতে না পেরে প্রশিক্ষক শুরু করলেন খাঁটি বাংলায়,”এই সহজ জিনিস বোঝ না? শোনো, প্রথমে চোষে… তারপর চাপে… তারপরে জ্বালায়…… আর সবশেষে আউট কইরা দ্যায়। বুঝছ এইবার?”

৩. আমাদের এক ওয়েটার জনৈক সিনিয়র কলিগের পছন্দের টিভি চ্যানেলের ব্যাপারে বলছে, “স্যার সারাদিন খালি ‘মিস্টার মফিজ’ দ্যাখে…”। অনেক সাধ্য সাধনার পর বোঝা গেল মিস্টার মফিজ হলো “স্টার মুভিজ”!!

৪. কলেজে একবার কি কারণে যেন সিএসএম স্টাফের সাথে অন্য আরেক স্টাফের ধুন্ধুমার কথা কাটাকাটি লেগে গেল। এক পর্যায়ে সিএসএম বলে বসলেন, “ইউ ডোন্ট টক”। সাথে সাথে অন্য স্টাফের তীব্র প্রতিবাদ, “আমি ডোন্ট টক হব না”।

৫. বিএমএ’তে নতুন যোগদানকৃত জিসি’র সাথে জনৈক সিনিয়র জিসির কথোপকথন:

– ইউ আর ফ্রম হয়্যার?
= স্যার, মাইমেনসিং।
– মাইমেনসিং হয়্যার?
= শেরপুর রোড স্যার।
– শেরপুর রোড হয়্যার?
= আমলাপাড়া স্যার।
– আমলাপাড়া হয়্যার?
= স্যার, বিসাইড ইউনিক ক্লাব।
– দেন, হয়্যার?
= বিসাইড ইউনিক ক্লাব দ্যা হোয়াইট বিল্ডিং, স্যার।
– হুমম…ডু ইউ নো মুক্তা?
= ইয়েস স্যার শি ইজ মাই এল্ডার সিস্টার।
– হোয়াট!! ইফ মুক্তা ইজ ইওর এল্ডার সিস্টার দেন ইউ আর মাই শালাবাবু। ব্লাডি চ্যাপ, স্টার্ট ফ্রন্টরোল এ্যান্ড কন্টিনিউ কেয়ামত সে কেয়ামত তক।

৬. এখানের মিনি চিড়িয়াখানায় এক সময় ১৭টা স্ত্রী হরিণের সাথে মাত্র একটা পুরুষ হরিণ ছিল। সেগুলোর কেয়ারটেকার একদিন এই ব্যাপারে কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি আকর্ষণ করল:

– স্যার, আরও কয়েকটা পুরুষ হরিণ আনা দরকার।
= কেন?
– স্যার দিনকে দিন এটা দূর্বল হয়ে পড়ছে।
= আশ্চর্য! কেন?
খানিক ইতস্তত করে কেয়ারটেকার বলেই ফেলল, “স্যার ওভারটাইম করতে করতে বেচারার আর জানে পানি নাই” 😛 ।

৭. কুমিল্লা ক্যাডেট কলেজের জনৈক শিক্ষক ক্লাসে নিজের পরিচয় দিতেন এভাবে, “ফফি ফিঙ্কির ফিতা আমি ফদার্থবিজ্ঞানের পরভাষক”।

********
কৃতজ্ঞতা:
আহসান, ককক (১৯৯২-১৯৯৮)
শাহাদ, বকক (১৯৯৩-১৯৯৯)

৫,৭৭০ বার দেখা হয়েছে

৬৪ টি মন্তব্য : “টুশকি ২৯”

  1. কামরুল হাসান (৯৪-০০)

    টুশকি এবং সায়েদ ভাই দুই-ই পুরোনো ফর্মে ।
    ৫ নাম্বারটার জন্যে আমি একটা ৫ তারা দিয়া গেলাম।
    ৬ নাম্বারটার জন্যে জামাইবাবু আগ্রহ প্রকাশ করেছে যেহেতু প্রস্তাবটা বিবেচনা করে দেখতে পারেন ;;; ।


    ---------------------------------------------------------------------------
    বালক জানে না তো কতোটা হেঁটে এলে
    ফেরার পথ নেই, থাকে না কোনো কালে।।

    জবাব দিন
  2. রায়হান আবীর (৯৯-০৫)

    ফেসবুকে আপনার নতুন নংটা দেখে ভাবলাম এসএমএস দেই, নেক্সট টুশকি কবে আসবে। পরে ভাবলাম আগে সিসিবিতে ঢু দিয়ে আসি, জানি নাই, তাও ...

    এসে দেখি স্বপ্ন জাস্ট সত্যি। :awesome: :awesome: :tuski: :tuski:

    টুশকি ভাই জিন্দাবাদ। আমি কোনটা পড়ে বেশি মজা পাইছি সেইটা তো আপনি জানেনই। ;;;

    জবাব দিন

মন্তব্য করুন

দয়া করে বাংলায় মন্তব্য করুন। ইংরেজীতে প্রদানকৃত মন্তব্য প্রকাশ অথবা প্রদর্শনের নিশ্চয়তা আপনাকে দেয়া হচ্ছেনা।