টুশকি ১৪

টুশকি [১] [২] [৩] [৪] [৫] [৬] [৭] [৮] [৯] [১০] [১১] [১২] [১৩] [১৫]

১. আমার এক কলিগ ক্যাডেট কলেজের বড় ভাইয়ের সূত্র ধরে সিনিয়র আরেক অফিসারের কাছে ঘ্যানঘ্যান করছে একটা টেলিফোন নম্বর দেয়ার জন্য – কোন এক মেয়ের সাথে কথা বলবে। নম্বর নাই নাই করেও যখন পিছু ছাড়ে না তখন বড়ভাই বাধ্য হয়েই একটা নম্বর দিলেন। খুশিতে বাকবাকুম হয়ে কলিগ যখন ফোন করল তখন ঐপাশ থেকে ভেসে আসল, “হ্যালো, নাজিরাবাজার পুলিশ ফাঁড়ি। কাকে চাই…”?

২. কলেজে কোন একটা পুরস্কার বিতরণীর টেবিল প্যারেড প্রাকটিস করার সময় মাহমুদ সম্পর্কে সিএসএম জলিল স্টাফের মন্তব্য, “তুমি কালো হইলে কি হবে, তোমার চেহারায় ‘গেলেস’ আছে”।

৩. মন খারাপ করে একটা ছেলে এই দোকান ওই দোকান করে বেড়াচ্ছে নিউ মার্কেটের পোষাকের দোকানগুলোতে। দোকানদার ‘কি চাই’ প্রশ্ন করতেই সে বলে উঠল, “আপনাদের এইখানে কি মিল্কভিটা দুধু পাওয়া যায়”?

৪. “প্রশিক্ষণে যত ঘাম ঝরবে, যুদ্ধে তত রক্ত বাঁচবে” – আর্মির এই বহুল ব্যবহৃত মোটোর সংক্ষিপ্ত রূপ হচ্ছে “ঘাম রক্ত বাঁচায়”। এটার মতোই আরেকটা লাইন বের করেছে আমাদের সিরাজ – “বুদ্ধি ঘাম বাঁচায়”।

৫. কম্যান্ডো কোর্সের সময় এক ইন্সট্রাকটর স্টুডেন্টদের পচাচ্ছেন, “হোয়াট টাইপ অফ কম্যান্ডো উইল ইউ বি? অ্যাঁ? ইউ উইল মেক ইওর হ্যান্ডস আপ – প্যান্টস ডাউন….. রাবিং মাস্টার্ড অয়েল অন দ্যা ব্যাক ইউ উইল রিমেইন ইন লাইয়িং পজিশন। দেন এনিমি উইল ডু দেয়ার নিডফুল। এ্যাট লাস্ট ইউ উইল
স্টার্ট টেকিং প্যারাসিটামল….”।

৬. নাটক সিনেমায় অনেক মাতাল দেখলেও চর্মচক্ষুতে মাতাল দেখা হয়ে ওঠেনি লম্বা সময় পর্যন্ত। একদিন সন্ধ্যার সময় বাসায় যাবার পথে দেখি একজন লুঙ্গি পড়া লোক ঘুরে ফিরে ল্যাম্পপোস্টকে লাথি মারছে (লুঙ্গি পড়া বলে অবশ্য জুত করতে পারছে না) আর পাওনা টাকা ফেরত চাচ্ছে। মনে মনে নিজেকে বললাম, “পাইলাম, আমি ইহাকে পাইলাম – শেষ পর্যন্ত আমি মাতালের দেখা পাইলাম”।

৭. ক্লাস টুয়েলভে থাকাকালীন এক ক্লাসমেটের মোট ভাই বোনের সংখ্যা এগারো শুনে আরেক আলাভোলা ক্লাসমেটের যুগান্তকারী মন্তব্য, “তোর আব্বা তো খাইয়া না খাইয়া …….ছে”।

৩,২১৩ বার দেখা হয়েছে

৩৩ টি মন্তব্য : “টুশকি ১৪”

  1. হাসনাইন (৯৯-০৫)
    “প্রশিক্ষণে যত ঘাম ঝরবে, যুদ্ধে তত রক্ত বাঁচবে” - আর্মির এই বহুল ব্যবহৃত মোটোর সংক্ষিপ্ত রূপ হচ্ছে “ঘাম রক্ত বাঁচায়”। এটার মতোই আরেকটা লাইন বের করেছে আমাদের সিরাজ - “বুদ্ধি ঘাম বাঁচায়”।

    :khekz: :khekz: :khekz:

    জবাব দিন
  2. মুসতাকীম (২০০২-২০০৮)

    শেষেরটা অতি চমৎকার হইছে =)) =)) =))


    "আমি খুব ভাল করে জানি, ব্যক্তিগত জীবনে আমার অহংকার করার মত কিছু নেই। কিন্তু আমার ভাষাটা নিয়ে তো আমি অহংকার করতেই পারি।"

    জবাব দিন
  3. ফয়েজ (৮৭-৯৩)

    "বুদ্ধি ঘাম বাচায়" ইতিহাসের একটা ঘটনা মনে পড়ল। AC এর আবিষ্কারক টেরসা এই রকম একটা কথা বলেছিলেন DC এর আবিষ্কারক এডিসন কে। উনি যেটা বলেছিলেন তা মোটামুটি এইরকম, "খড়ের গাদায় সুচ হারিয়ে গেলে এডিসন প্রতিটি খড় সরিয়ে সরিয়ে ঠিকই এক সময় সুচ টা বের করে ফেলবেন। যদিও অল্প কিছু সুত্র আর অংক করে কাজটা অনেক সহজেই করে ফেলা যায়।"

    সায়েদ কে ধন্যবাদ, পাঠক প্রিয় সিরিজটাকে অনেক দূর নিয়ে এসেছে ও।


    পালটে দেবার স্বপ্ন আমার এখনও গেল না

    জবাব দিন

মন্তব্য করুন

দয়া করে বাংলায় মন্তব্য করুন। ইংরেজীতে প্রদানকৃত মন্তব্য প্রকাশ অথবা প্রদর্শনের নিশ্চয়তা আপনাকে দেয়া হচ্ছেনা।