জগতের সকল নারী সুখী হোক !!!

এটা আমার নিজের গল্প।[ অন্য কারো সাথে মিলে গেলে তা নিতান্তই কাকতালীয় !!]

আমার একটা গার্লফ্রেন্ড আছে। বিশ্বাস করেন একটাই। আমাদের অনেক দিনের রিলেশন। প্রায় ৭বছর হল আমরা প্রতিাদিন ঝগড়া করি। প্রতিদিনই প্রায়। এই ৭বছরে খুব বেশী হলে ৭দিন আমাদের মধ্যে কোন ঝগড়া হয় নাই। তাও সেটা এক টানা ৭ দিন হবে না। এক ঘন্টার মধ্যে কখনো কখনো ৩-৪বার ঝগড়া হয় ৩-৪টা ভিন্ন ইস্যু তে। আর আমাদের ৯৯ভাগ ঝগড়া হয় ফোনে। বাকি ১ভাগ সামনাসামনি। আমরা এক সাথে থাকলে ঝগড়া হয় না।এর মানে এটা ভাবার দরকার নাই যে আমাদের রিলেশন ভাল না। আমদের দুইজনের ভিতর প্রচুর পিরিতি আছে।

আমদের ঝগড়ার কিছু নমুনা দেই;

 

১)ফোন আস্ল,

-কি কর?

-কিছু না।

-বল না কি কর?

-এই টিভি দেখি।রিমোট টিপাই।দেখার কিছু পাচ্ছি না।

-দেখ টিভিই দেখ। আমার সাথে কথা বলতে হবে না।

ব্যস। শুরু হয়ে গেল।

 

২)ফোন আস্ল

-কই?

-এই তো APEC (Association of Pabna Ex-Cadet)অফিসে।

-প্রতিদিন ওখানে কি কর?

[এটা সত্য যে আমরা প্রতিদিন সন্ধায় ওখানে যাই। সিনিওর জুনিওর অনেকে মিলে প্রতিদিনই ১০টা ১১টা পর্যন্ত আড্ডা হয়]

-কই প্রতিদিন আসি? তুই বল। আমার কথা বলতে অসুবিধা হচ্ছে না।

-না তুমি ওদের নিয়েই থাক।

ফোন অফ। আরে তুই কবি ফোনে কথা । নেটওয়ার্ক থাকলেই হইছে।আমি কই আছি তা দিয়া তোর কাম কি?

 

৩)-চল দেখা করি।

-কই যাবি?

-তুমি বল।

-তোর যেখানে সুবিধা হয় বল। আমি আসতেছি।

– না না তুমি বল না।

-আচ্ছা কই আসব, বনানী নাকি বেইলী রোড।

-না চল ইস্কাটনের নতুন BFC তে।

-আচ্ছা আসতেছি। এই কথাটা আগে বললেই হইত। তুমি বল,তুমি বল এর কি দরকার ছিল?

-না আসতে হবে না। দেখা করব না। তুমি বনানী যাও, বেইলী রোডে যাও।

ব্যস স্টার্ট।ফোন অফ।

 

৪)-এই তুমি কই?কি কর?

-এই তো। APEC অফিসে কার্ড খেলি। কি হইছে তারাতারি বল।

-কিছু হয় নাই।খেল কার্ডই খেলো।আমার সাথে কথা বলতে হবে না।

আবার লেগে গেল।

 

৫)-হ্যালো কথা বলতেছ না কেন?

-বলতেছি তো।

-কই শুনি না। আমার সাথে কথা বলার সময় কথা খুঁজে পাও না। বন্ধুদের সাথে তো সারা দিন আড্ডা মারো…………………………………………………।।

 

৬)-কই?

-বনানী।অফিসে।

-আজ দেখা করব।

-কিন্তু আমার অফিসে কাজ আছে।

-আমি দেখা করতে চাইলেই অফিস, কাজ।।

ব্যস হয়ে গেল এক পশলা।

 

৭)-কই?

-বাসায়।

-অফিসে আস নাই?

-না পল্টি মারছি।

-হমম আজ তো আসবাই না। আজকে আমার ক্লাশ সন্ধায় শেষ হবে। ভাবছিলাম তোমার সাথে ফিরব।

-সমস্যা নাই। আমি আসতেছি। তোকে নামাইয়া দিব।

-না আসতে হবে না। আমি চলে যাব।

-আচ্ছা।

সন্ধার পর…।

-আমি না করলাম আর তুমি আসলা না? খুব বাধ্য হয়ে গেছ দেখতেসি।

আবার…।

 

এভাবেই আমার প্রেম চলতেছে। এক দিন দুই দিন না। সাত বছর হল চলতেছে। আমরা নিজেরা ঝগড়া করি, নিজেরাই আবার মিলমিশ করি। এ পর্যন্ত আমাদের একবারই শুধু এক টানা দুই দিন রাগ করে কথা (ঝগড়া) হয় নাই ।

তাইতো দোয়া করি,

“জগতের সকল নারী সুখী হোক,

সকল পুরুষ মঙ্গল লাভ করুক।”

৫,২০১ বার দেখা হয়েছে

৪৪ টি মন্তব্য : “জগতের সকল নারী সুখী হোক !!!”

  1. ভাই প্রেম খুব খারাপ জিনিস! করি নাই তবু নারী সমাজের সাথে যতটুকো যোগাযোগ হইছে তাথে সাধ মিটে গেছে। দূরে থাকাই মঙ্গল।
    আর প্রেম করলে কিছু নিয়ম নীতি মানতে হয়, তবে শুধু ছেলেদের, মেয়েদের মানতে হয় না।

    জবাব দিন
  2. নাফিজ (০৩-০৯)

    :)) :)) :))

    ভাই pyaar ka punchanama নামে একটা হিন্দি সিনেমা আছে । পোস্ট রিলেটেড বলে সাজেস্ট কইরা গেলাম। দেইখেন 😉


    আলোর দিকে তাকাও, ভোগ করো এর রূপ। চক্ষু বোজো এবং আবার দ্যাখো। প্রথমেই তুমি যা দেখেছিলে তা আর নেই,এর পর তুমি যা দেখবে, তা এখনও হয়ে ওঠেনি।

    জবাব দিন
    • মোর্শেদ (৯৮-০৪প.ক.ক)

      নেরে ভাই।এরি মধ্যেই ভুইলা গেলি যে কয়দিন আগেই সিনিওরের রুমের দিকে তাকানো শাস্তিযোগ্য অপরাধ ছিল? আর এখন সিনিওরের প্রাইভেট ঝগড়া শোনার আব্দার করস? অবক্ষয় অবক্ষয়। :no: :no: :no: ক্যাডেট রসাতলে গেল।


      মোর্শেদ_(৯৮-০৪)পাবনা ক্যাডেট কলেজ

      জবাব দিন
  3. ইকবাল (০৪-'১০)

    বাগান থেকে সদ্য ফোঁটা গোলাপ ছিঁড়ছিলাম...।
    কাটার কথা মনেই ছিলনা...।
    ফলশ্রুতিতে হাত কাটল...।
    স্যাভলন লাগাইছি...।
    ক্ষতটা প্রায় শুকিয়ে গেছে...
    আর কখনই এই বস্তুটার ধারে কাছে যাব না।।
    ...................................................

    আলহামদুলিল্লাহ্‌... অনেক ভাল আছি। :awesome:

    জবাব দিন

মন্তব্য করুন

দয়া করে বাংলায় মন্তব্য করুন। ইংরেজীতে প্রদানকৃত মন্তব্য প্রকাশ অথবা প্রদর্শনের নিশ্চয়তা আপনাকে দেয়া হচ্ছেনা।