স্বজন…

স্বজন,
আমার এ চিঠি যখন পড়বে
আমি পাশে থাকবো না,
থাকবো না তোমার স্পর্শে,তোমার পরশে।
পাবে না আমায় কোনো গোধূলী বেলায়।
নিগূঢ় বেদনায় মলিন ওই মুখ,
হয়তোবা বারান্দায় একাকী দাড়িয়ে,

।।

।।

কাঁদছো ওই নীল আকাশের দিকে তাকিয়ে।

আমি আসবোনা,
আসবোনা তোমার কান্না মুছে দিতে,
আমি আসবোনা তোমার সঙ্গী হতে।
তোমার ওই নিষ্পাপ মুখে
সারল্যের চঞ্চল হাসি ফোটাতে,
ভালোবেসে চিত্কার করে বলতে
কতোটা ভালোবাসি তোমাকে।

কারণ…..
আমি যে কাছে থাকবো না।

আমি যে নিঃষীম পথের পথিক
আমার গন্তব্য যে অনন্ত,অসীম।
সে পথে আমি রওনা হয়েছি একা,
সঙ্গী সাথীবিহীন।

রাগ করোনা………
তোমাকে সাথে নেয়ার ক্ষমতা যে আমার নেই,
আমি যে নিরুপায় এক যাত্রী
জীবনযুদ্ধে বিদ্ধস্ত,পরাজিত এক নাবিক,
দিক হারিয়ে ডুবে যাচ্ছি
অতল সাগর জলে।

শেষবেলা তোমার কাছে আমি আর কিছুই চাই না,
শুধু একটাই অনুরোধ করে যেতে চাই,

যদি কখনো আমাকে ভালোবেসে থাকো
হৃদয়ের গভীর কোনে স্থান দিয়ে থাকো,তবে,
তবে ভুলে যেয়ো
ভুলে যেয়ো তোমার স্বজনকে।
ভুলে যেয়ো তাকে,
যে ছিল তোমার অতি প্রিয়জন,
খুব কাছের একান্তই আপন একজন।

কারণ সে যে আজ অনন্ত পথের দুয়ারে দাঁড়িয়ে,
যে দুয়ারে তোমার কোনো ঠাঁই নেই,
নেই কোনো স্মৃতি।
সে যে অন্ধকারের দুয়ার,
অনন্ত,অসীম পথে যাত্রা শুরুর দুয়ার।

আমি সেই দুয়ারের কাছে দাঁড়িয়ে
শেষবারের মতো,শেষ নিশ্বাষে বলছি,

ভালো থেকো,ভালো থেকো স্বজন।

………বিদায়।।।

১,৩৫৭ বার দেখা হয়েছে

১১ টি মন্তব্য : “স্বজন…”

  1. নাফিস (২০০৪-১০)

    প্রথম ব্লগ নাকি ? জায়গায় ফ্রন্ট রোল হয়ে যাক .. কয়েকটা ! নিয়ম নিশ্চয় জানো ! 🙂 কবিতা ভালো লেগেছে। লিখতে থাকো ব্লগে, যে কয়দিন আছ বি এম এ যাওয়ার আগে। আর নামের পাশে ইনটেক অথবা কলেজে থাকার ডিউরেশন টা দিয়ে দাও...

    জবাব দিন

মন্তব্য করুন

দয়া করে বাংলায় মন্তব্য করুন। ইংরেজীতে প্রদানকৃত মন্তব্য প্রকাশ অথবা প্রদর্শনের নিশ্চয়তা আপনাকে দেয়া হচ্ছেনা।