সত্যের শিশ্নচ্ছেদ উতসব

দাবীকৃত ঐশৃরিক প্রত্যাদেশ লিফলেটের বোল্ড হরফে
পার্থিব বায়ুমন্ডলে বেচে জাতিতে জাতিতে কালো সাদা
হলদে পূব পশ্চিম ছোট চোখ গ্রীক নাক সব গেরস্তালীতেই
দাড়িয়ে গেছে জোব্বা চন্দন ক্রুশ মেকাপের রক্তপায়ী
অপমানব উত্তরাধিকারী ।

তাই সভ্যতার ফোলানো বিষবাষ্পের বেলুনে কেবল লাল চোখ
উদগত ঘৃণা তথাকথিত ত্রাতাদের হুংকার ।পোড়া মাংশের গন্ধ
গুজরাটে কাশ্মীরে নিউইয়র্কে প্যলেস্টাইনে আর বঙদেশে
খিন্ন সব জৈবনিক স্পন্দন আর রাস্তায় রাস্তায় পোস্টমর্টেম ।

আদর্শলিপি আউড়ে ফোলা পকেট আর পুস্টিহীন পাজঁরের চিত্রকল্প।
এভাবে গর্ভবান গন্ডারের উচু খড়গে আটকানো দশহাজার বছরের
ঐতিহ্য।চারদিকে শয়তানের কাছে আত্না বেচা ফস্টাসের জন্ম।

সত্যের অন্ডকোষে দানব করাত
আর মিথ্যার ঠোট চুষে ব্যাভিচারী আমরা ।

১,৩৫৪ বার দেখা হয়েছে

২১ টি মন্তব্য : “সত্যের শিশ্নচ্ছেদ উতসব”

  1. সামীউর (৯৭-০৩)
    উত্তর আধুনিক যুগের কবিতায় দুর্বোধ্য শব্দের অতি ব্যবহার কি একটা আবশ্যকীয় উপাদান ?

    হোসেন, কবিতায় আর যাই হোক বানান ভূল কিন্তু কাম্য নয়, বানানের ব্যাপারে সতর্ক হও।

    জবাব দিন
    • হোসেন (৯৯-০৫)

      কঠিন শব্দ ব্যবহার নিয়ে আগে বলি।

      সত্যিকার অর্থে আমার কোন লেখাই সাহিত্য সৃষ্টির লক্ষ্যে রচিত নয়। সাহিত্যের যতটুকু পড়েছি আমি ভালোই বুঝতে পেরেছি আমার সীমানা কোথায়। একটা উদাহরন দেই শামসুর রাহমানের আত্নহত্যার আগে পড়ে আমি বুঝতে পারি এরকম কিছু লেখার প্রতিভা আমার নেই। আমার গদ্য বা কবিতা টাইপ সব লেখাই অনেকটা নিজস্ব বোধ কে প্রকাশের জন্যে।সেক্ষেত্রে যে ধরনের শব্দ আমি বেশী অনুভব করতে পারি সেই শব্দই আমি ব্যবহার করি। সেটা অপ্রচলিত শব্দ হতে পারে ,ইংরেজী শব্দ হতে পারে, একেবারে কথ্য ভাষা হতে পারে। আমি খেয়াল করি কোন শব্দটা আমার ভেতরে বাজে বেশী। সে হিসেবে আমার লেখা অনেকটাই আমার নিজের জন্যেই। পাঠকের জন্যে দায়বদ্ধতা তেমন বোধ করি না। এটা সেলফিশ চিন্তাধারা হতে পারে, কিন্তু আমার লেখালিখি সবসময়েই নিজেকে চেনার পথে না না অনুভুতির প্রকাশকে বিভিন্ন আঙ্গিকে ধরার চেষ্টা। যেহেতু বাংলার সম্মৃদ্ধ সাহিত্যকে সম্মৃদ্ধ করার উদ্দেশ্যে লেখি না(লিখতে পারি না), সেহেতু শব্দ নির্বাচনের ক্ষেত্রে এতটুকু স্বাধীনতা বোধ করি। আর উত্তরাধুনিক বলে লজ্জা দিলেন। আমি কবিতার শ্রেনিবিভাগের ব্যাপারে মোটেও সচেতন নই। আমার কবিতা ধ্রুপদী যুগের,না পুথি যুগের সেটা আমাকে বিশেষ ভাবায় না। শ্রেনিবিভাগ করার মত গুরুত্বপূর্ন মনে করি না আমার লেখাকে।

      আর বানানের ক্ষেত্রে আমার অবস্থা খুব খারাপ। আমার বানান জ্ঞান ভালো না। এটার কোন এক্সকিউজ নেই। আর বাসার বাংলা ডিকশনারি হারিয়ে ফেলেছি। ছোট ভাই কে ক্ষমা করে দিবেন আশা করি :salute:


      ------------------------------------------------------------------
      কামলা খেটে যাই

      জবাব দিন
      • সামীউর (৯৭-০৩)

        আধুনিক মানুষের জীবনের মতোই জটিল এবং দূর্বোধ্য তার শব্দচয়ন এবং একই সাথে নিয়ত জটিল অনুভূতি প্রকাশের উপযুক্ত শব্দের অভাব। আধুনিক কবিতা তাই খটমটে। কবিতা লেখা চালিয়ে যাও, আর বাংলা পড়ার সময় আরো একটু মনোযোগী হলেই ডিকসনারি লাগবে না।

        চারদিকে শয়তানের কাছে আত্না বেচা ফস্টাসের জন্ম।

        লাইনটা চমৎকার হয়েছে।

        জবাব দিন
  2. দাবীকৃত ঐশৃরিক প্রত্যাদেশ লিফলেটের বোল্ড হরফে
    পার্থিব বায়ুমন্ডলে বেচে জাতিতে জাতিতে কালো সাদা
    হলদে পূব পশ্চিম ছোট চোখ গ্রীক নাক সব গেরস্তালীতেই
    দাড়িয়ে গেছে জোব্বা চন্দন ক্রুশ মেকাপের রক্তপায়ী
    অপমানব উত্তরাধিকারী ।

    ~x( ~x( ~x(
    :bash: :bash: :bash:
    দেখিতো এইবার কিছু বুঝি কিনা

    জবাব দিন
  3. ওরে বাপপ্রে বাপ...

    হোসেন রে... দোস, দাঁত আমার ভাইঙ্গা গেছে রে...
    ~x( ~x( ~x(

    আমার বাংলা কবিতা আর সাহিত্যের প্রতি বিশাল ভালোলাগা...
    কিন্তু তোর এই কবিতায় আমি কিছছু বুঝিনাই দোস।

    তয় এইটা বুঝছি যে তুই ভালা লিখছিস...চালায়া যা।।
    :gulli2: :gulli2: :gulli2:

    জবাব দিন
  4. মুহাম্মদ (৯৯-০৫)

    উপলব্ধিটা খুব ইন্টারেস্টিং। ১০ হাজার বছরের ইতিহাস লেখছস এইটা বুঝছি।

    খিন্ন সব জৈবনিক স্পন্দন আর রাস্তায় রাস্তায় পোস্টমর্টেম ।

    লাইনটা বেশ ভাল লাগল। কিন্তু "খিন্ন" শব্দের অর্থ কি?

    প্রত্যাদেশের লিফলেট, রাস্তায় রাস্তায় পোস্ট মর্টেম, আর ১০ হাজার বছরেরর ফস্টাসরা: সবকিছুরই অস্তিত্ব আছে। এগুলো স্মরণ করলে শেষ লাইন দুটো মানতে ও উপলব্ধি করতে কোন বাঁধা থাকে না।

    আরও লেখ। আর এই কবিতায় বানান ভুল আছে বেশ কিছু, ঠিক করিস।

    জবাব দিন
  5. জুবায়ের অর্ণব (৯৮-০৪)

    ভাল লিখেছ হোসেন, চালিয়ে যাও। আর ঢিল দিওনা কিন্তু কোন সময়, ভাল কবি হতে আমি মনে করি প্রচুর খাটাখাটি করে যেতে হয় বহুদিন। আর কবিতাটা একবার এডিট কোরো, কয়েকটা বানান ঠিক করা দরকার।

    জবাব দিন
    • হোসেন (৯৯-০৫)

      কবিতা এম্নিতেই পড়া হয়। খাটাখাটি বলতে ঐটুকুই পারব। দেশের কবিতা তাও যতটুকু পেরেছি পড়েছি। ইংরেজী কবিতা কেন যেন পড়ে বুঝি না। সব বস ইংরেজী কবিগুলোর বাংলা অনুবাদ পড়তে হয়। আর কবিতা অনুবাদ করা আমি সম্ভব মনে করি না। এজন্যে খারাপ লাগে।


      ------------------------------------------------------------------
      কামলা খেটে যাই

      জবাব দিন
  6. সামি হক (৯০-৯৬)
    সত্যের অন্ডকোষে দানব করাত
    আর মিথ্যার ঠোট চুষে ব্যাভিচারী আমরা ।

    খুব ভালো লাগলো এই লাইন দুটো।

    বঙদেশ কি ইচ্ছা করে ব্যাঙগাত্মক ভাবে ব্যবহার করা নাকি টাইপিং এ ভুল?

    জবাব দিন

মন্তব্য করুন

দয়া করে বাংলায় মন্তব্য করুন। ইংরেজীতে প্রদানকৃত মন্তব্য প্রকাশ অথবা প্রদর্শনের নিশ্চয়তা আপনাকে দেয়া হচ্ছেনা।