আমার (প্রায়)নির্বান লাভ

ডানপাশে ঊড়ুক্কু পলিথিনের ব্যাগ হাওয়ার নিঃশ্বাসে ফুলছে ফাপছে, বাতাসে কর্কশ ধূলো ,নিশ্বাসে রিসেশনের দুর্যোগকালীন দামী জ্বালানীর পোড়া সৌরভ, শাহবাগের মুড়িভর্তার পাশে দাঁড়িয়ে ছিলাম বিশাল এক টসটসে টোপ হয়ে। চারপাশের নাগরিক মাকড়শার জালে আটকানো ,কুকড়ানো নষ্ট আকৃতির জীবনটা ফেরি ঝুলিয়ে ধেয়ে আসছে টোপ গেলার জন্যে। পাকস্থলীর জারক এনজাইমে সাতড়ানো অবস্থায়ই সাধারনত আমার দুঃস্বপ্ন গুলো শেষ হয়। সেদিন শেষ হল নারী দেহের বক্র অনুপ্রবেশে। হতাশ ভাবে ভাবলাম “মেয়েমানুষ!! কি জিনিস যে বানাইল মওলা!!!যত তর্জন হুংকার, সব শেষ হয়ে ধুলায় মিলাবে মেয়েশরীরের স্বর্নসম সুগন্ধী ভাজে……”
মুড়িভর্তা আর জীবনের পেসিমিস্টিক ডাইসেকশন ছেড়ে মনোযোগ দিলাম যৌবনাবতীর দিকে, চাকভাঙ্গা মধুর মত যৌবন ঊপচে উপচে পরছে রহস্যময় সব বর্নীল রোদ মেখে সোনা আলোর ঝিলমিল ভাজ। জীবনের অর্থ কোন কান্ট ,হেগেলের ঢাঊস বইতে, অথবা মেট্রিক টেন্সরের ইকুয়েশনে পাওয়া যাবে না। এই নারী আর মেঘের স্তর খুলে বাষ্প আদ্রতা মেখে যে আদর এই শরীরে বিছিয়ে দেবার জন্যে পৌরাণিক কাল হতে আছড়ে আছড়ে কাটা গলার কোরবানীর গরুর মত তড়পাচ্ছে মানুষ আর তড়পাচ্ছি আমি………জীবনের বৌদ্ধিক অর্থের নিগুঢ় ইন্টারপ্রেটেশন হচ্ছে সেটাই। অন্য কোন নপুংসক নৃতত্ব মানি না, মানি না জৈব নীরস হরমোনাল ব্যাখ্যা……এস্ট্রজেনের পচা কুতসিতপনা চাই না………ভেজা শিশিরের গন্ধ দিয়ে তৈরী নারী………যেমন জানি আশ্লেষে চুম্বনএর জন্যেই, আইসবার্গের উপর ঠিকরানো আলোর ঊজ্জ্বল তীব্র স্বাদে নারীর ঠোট পান করার জন্যেই বিধাতা একজোড়া ঠোট দিয়েছেন আমায়……নারীর স্বাদের জন্যেই জিভ দিয়েছেন………বাজে অকেজো রাজনৈতিক বক্তব্যের জন্যে ন্য। হাত পেয়েছি নারী শরীরে অভিযানের জন্যে ,দুর্গম সব ক্ষেত্রসমুহ আবিস্কারের জন্যে,………………………

স্বপ্নাহত আমি নারীশরীরের দিকে এগোলাম…………কালো পীচের ঊপর যদি অনুভুতির স্পর্শ থাকত………হাজার কোটি ঘাস ফুল বেড়িয়ে আসত নির্মম কংক্রিটের বুক চিরে……………

নারী এবং তাকে জয়ের ঊদ্যেশ্যে একজন পুরুষ………প্রাচীনতম এক দৃশ্য।

(কবিতাসমূহ একঝটকায় নোংরা অসুখের বিবরন লেখা লিফলেটে পরিনত হল নারী(!)র পেছনে ফিরে তাকানোয়………কবিগুরুর দীর্ঘশ্মশ্রুর ফ্যাশন এখনো কিভাবে জনপ্রিয় সেটা নিয়ে দার্শনিক চিন্তায় মেতে হাটার ভেক্টরটির ১৮০ ডিগ্রী কৌনিক ঘুর্নন সম্পন্ন করলাম)

২,১৭০ বার দেখা হয়েছে

২৯ টি মন্তব্য : “আমার (প্রায়)নির্বান লাভ”

  1. জুনায়েদ কবীর (৯৫-০১)

    চারু কলার সামনে এই রকম ধাক্কা কত খাইছি... :bash:

    তয় তোমার লেখার স্টাইল মাশাল্লাহ্‌... :thumbup:
    আন্দালিব তোমার কেউ হয় নাকি???? :-B

    দিনে দিনে আমি মনে হয় উচ্চ-অশিক্ষিত হইতেছি... :(( :(( :((


    ঐ দেখা যায় তালগাছ, তালগাছটি কিন্তু আমার...হুঁ

    জবাব দিন
  2. আইসবার্গের উপর ঠিকরানো আলোর ঊজ্জ্বল তীব্র স্বাদে নারীর ঠোট পান করার জন্যেই বিধাতা একজোড়া ঠোট দিয়েছেন আমায়……নারীর স্বাদের জন্যেই জিভ দিয়েছেন………বাজে অকেজো রাজনৈতিক বক্তব্যের জন্যে ন্য। হাত পেয়েছি নারী শরীরে অভিযানের জন্যে ,দুর্গম সব ক্ষেত্রসমুহ আবিস্কারের জন্যে,………………………

    পুরা বুঝছি। পুর্ন সহমত।

    জবাব দিন
  3. আন্দালিব (৯৬-০২)

    হোসেন, লেখাটা চমৎকার! আমার খুবই পছন্দ হয়েছে। এভাবে বস্তুগত উপাদানের প্লেসমেন্ট পড়তে আমার খুবই ভাল লাগে। লেখক যদি আমাকে টেনে ধরে, থামিয়ে দিয়ে কল্পনা আঁকতে বসায়, তাকে আমি স্যালুট মারি মনে মনে! তোমার লেখাটা সেজন্যে চমৎকার একটা উদাহরণ!

    "তুমি" হলে "টোপ", আর "জীবন" তোমাকে গিলতে আসছে এবং তুমি পাকস্থলীতে পাচিত হচ্ছো- এরকম তুলনা সত্যিই বিস্মিত করে!
    ----
    এস্ট্রজেনের পচা কুতসিতপনা --এই জিনিশটা বুঝি নাই। কী বুঝিয়েছো?
    ----
    তবে শেষের চমকটা অসাধারণ। পড়ে হাসতে হাসতে শেষ! :khekz: :khekz: :khekz:
    ----
    এত চমৎকার একটা লেখায় বানান ভুল এত বেশি কেন ভাই? একটু যত্নশীল হইও! কারণ অনেক লেখার সৌন্দর্যটা মাঝে মাঝে ভুল বানানের জন্যে হোঁচট খায়। (আমারও ভুল হয়ে যায় অনেক বানান, তবে চেষ্টা চালায়ে যাই!)

    জবাব দিন
  4. আমিন (১৯৯৬-২০০২)

    তোর এই লেখাটা আগে পড়ি নাই। দারুণ লাগলো। রম্য প্রয়োগে ভাষার ব্যবহার নিয়ে কথা হচ্ছিল সেদিন সামুতে। রম্য লেখায় ভাষার নির্বাচন যে কোন হতে পারে এমন কিছু বলছিলাম। তো এই লেখাটা আমার পক্ষে বিরাট সাক্ষী হিসাবে কাজ করবে।
    বিষয় হালকা টাইপ হলেও কিছু সুন্দর দর্শন উঠে এসেছে। তার চেয়েও বেশি ভালো লাগলো শব্দের ব্যবহার।

    জবাব দিন
  5. কাইয়ূম (১৯৯২-১৯৯৮)

    মিয়া দুই দুইটা সিরিজ শুরু কইরা পুরা আরেক ধরণের লেখা :thumbup: :thumbup:
    দারুন লেখছো ভাই :clap: :clap: আগের সিরিজ দুইটাও চাই শিগগির :thumbup:


    সংসারে প্রবল বৈরাগ্য!

    জবাব দিন

মন্তব্য করুন

দয়া করে বাংলায় মন্তব্য করুন। ইংরেজীতে প্রদানকৃত মন্তব্য প্রকাশ অথবা প্রদর্শনের নিশ্চয়তা আপনাকে দেয়া হচ্ছেনা।