ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড বনাম আর্সেনাল: প্রিভিউ

শেষ কবে স্টেডিয়ামে লিখেছি মনে করতে পারছি না। পরিচিত জনেরা জানতে চাইলে বলি শীতনিদ্রায় আছি, শীঘ্রই আবার লেখা শুরু করব। কিন্তু সত্যি বলতে কি আমার কেন জানি ইদানীং কিছু লিখতে ইচ্ছা করে না। এমনকি পরীক্ষার হলেও না। ~x(

এমন অবস্থায় বুধবার দিন যখন এহসান ভাই বললেন ‘একটা রিকোয়েস্ট প্লিজ রাখতেই হবে, ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড আর আর্সেনালের খেলাটা নিয়ে একটা প্রিভিউ দাও’ আমি তখন কিংকর্তব্যবিমূঢ় ~x( কিন্তু গেমস প্রিফেক্ট বলে কথা, তাই অনুরোধে ঢেঁকি গেলা 😛

গোলরক্ষক: দুই দলের গোলরক্ষকের তুলনামূলক বিচারে নি:সন্দেহে অ্যালমুনিয়া এগিয়ে থাকবে। তবে রেড ডেভিলদের প্রথম একাদশে জায়গা পাকাপোক্ত করতে হলে বেন ফস্টারকে এই ধরনের ম্যাচেই পারফর্ম করে কোচের আস্থা অর্জন করতে হবে।

রক্ষণভাগ: ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগে আমার দেখা অন্যতম সেরা ডিফেন্ডার গ্যালাস। রক্ষণদূর্গ সামলাতে পাশে গ্যালাস পাচ্ছে নতুন আসা ভারমেলেনকে যে কিনা ইতোমধ্যে প্রতিপক্ষের বক্সে সেটপিসে ভয়ন্কর হয়ে ওঠার প্রমাণ রেখেছে। দুই পাশে ওয়েঙ্গার কাকে খেলান ঠিক নেই, এবুয়ে উপরে উঠে আক্রমণে শানাতে পারদর্শী। গিবস বয়সে তরুণ বলে সানিয়া অথবা ক্লিশিকে খেলাতে পারেন এই ফরাসী ভদ্রলোক।

রেড ডেভিলদের রক্ষণভাগের অন্যতম প্রধান স্তম্ভ ফার্দিনান্দ ইনজুরিতে থাকায় ভিডিচের সাথে জনি ইভান্সকে দেখা যেতে পারে, অ্যাংকেল ইনজুরিকে উপেক্ষা করে খুব সম্ভবত খেলবে এই তরুন তুর্কি। রাইটব্যাক নেভিল এবং লেফটব্যাক এভরা মিলে আমার বিচারে ম্যানচেস্টারের ডিফেন্স একটু শক্তিশালী।

মধ্যমাঠ: ফ্যাব্রেগাসকে হ্যামস্ট্রিং ইনজুরির জন্য না পাওয়া আর্সেনালের জন্য বিরাট ক্ষতি। ফন পার্সি – এদুয়ার্দোরা তাকিয়ে থাকবে আরশাভিনের দিকে। ডেনিলসন আর দিয়াবি ভাল ফর্মে আছে কিন্তু ফ্লেচার, ক্যারিক বা স্কোলস অভিজ্ঞতা দিয়ে এই দুইজনকে নিষ্ক্রিয় করে রাখতে পারে। ওয়েঙ্গার এবুয়েকে মাঝমাঠে খেলাতে বাধ্য হতে পারেন। গিগস, নানি, পার্ক যেই খেলুক না কেন, ম্যানচেস্টারের মাঝমাঠও তুলনামূলকভাবে শক্তিশালী।

আক্রমণভাগ: লিগের প্রথম তিন ম্যাচে তিন গোল করে রুনি এই মুহুর্তে ফর্মের তুংগে। উইগানের বিপক্ষে বারবাটভ আর ওয়েনও গোল পেয়েছে। কিন্তু সুযোগ কাজে লাগাতে ব্যর্থ হলে বার্নলির মত অপদস্ত হওয়ার জন্য প্রস্তুত থাকতে হবে ফার্গুসনের শিষ্যদের। কারণ ফন পার্সি আর এদুয়ার্দোও রয়েছে ফর্মে।

তবে আমি বলব ‘ম্যান টু ওয়াচ’ হবে আরশাভিন। আর্সেনালের জেতা তার উপর নির্ভর করবে অনেকাংশে। আর্সেনালের পুরানো ঘাতক মাইকেল ওয়েনও কালকে হিরো হয়ে যেতে পারে রেড ডেভিল সমর্থকদের কাছে।

আরেকটা কথা, মাইক ডিনও কিন্তু হয়ে যেতে পারেন ম্যান অব দ্য ম্যাচ, ;)) ভদ্রলোকের পরিচয় জানতে চান? ডিন কালকের ম্যাচ রেফারি। :grr:

সাদামাটা লেখাটা শেষ করছি কাইয়ুম ভাইয়ের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানিয়ে। কাল সারারাত লেখাটা লেখার সময় কিভাবে চন্দ্রবিন্দু দিব, কিভাবে ওয়েঙ্গার লিখব, এইসব বলে উনাকে ভালই যন্ত্রণা দিয়েছি, এমনকি এই শেষ লাইনে এসেও জানতে চেয়েছি কৃতজ্ঞতা কিভাবে লিখব।

এহসান ভাই আমাকে হয়ত এই সাদামাটা লেখার জন্য :frontroll: লাগাতে পারেন, তবে আমি আশা করি আমার এই লেখা মাঠে আরশাভিন – রুনিদের পারফরম্যান্সে কোন প্রভাব ফেলবে না। একটা জমজমাট ম্যাচের প্রত্যাশা আমরা করতেই পারি, কি বলেন কাইয়ুম ভাই? ;))

২,৬৯৭ বার দেখা হয়েছে

৫০ টি মন্তব্য : “ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড বনাম আর্সেনাল: প্রিভিউ”

  1. কামরুল হাসান (৯৪-০০)

    ম্যান ইউর পক্ষে বাজি ধরলাম।
    আমার প্রেডিকশন ম্যান ইউ ১-০ আর্সেনাল।


    ---------------------------------------------------------------------------
    বালক জানে না তো কতোটা হেঁটে এলে
    ফেরার পথ নেই, থাকে না কোনো কালে।।

    জবাব দিন
  2. আহসান আকাশ (৯৬-০২)
    ফ্যাব্রিগেসের আর ইনজুরির সময় হলো না

    x-( x-(

    ফ্যাব্রিগাসের না থাকা আর্সেনালের জন্য বিরাট মাইনাস পয়েন্ট, আর আরশাভিনের এই মৌসুম তো মনে হয় এখনো শুরুই হয় নাই ~x( ~x(


    আমি বাংলায় মাতি উল্লাসে, করি বাংলায় হাহাকার
    আমি সব দেখে শুনে, ক্ষেপে গিয়ে করি বাংলায় চিৎকার ৷

    জবাব দিন
  3. ফয়েজ (৮৭-৯৩)

    যেই হারুক জিতুক আপত্তি নাই, তবে গ্যালাস একটা গোল দিতে পারলে ফাটাফাটি 😀

    আমি তাইলে মেলা পয়েন্ট পামু, কিন্তু ডিফেন্ডার ব্যাটায় কি গোল দিতে পারবো? হালকা টেনশিত আছি 🙂


    পালটে দেবার স্বপ্ন আমার এখনও গেল না

    জবাব দিন
  4. এহসান (৮৯-৯৫)

    আমার ম্যান ইউ থেকে আর্সেনালের ডিফেন্স শক্তিশালী মনে হয়। সানিয়া আর ক্লিশি ১ম পছন্দ ফুল্ব্যাক হিসাবে। ম্যান ইউ এর রাইট ব্যাকে নেভিল খেলবে না, ওশিয়া অথবা ফাবিও খেল্বে। কারণ নেভিল খেল্ললে আরশাভিন রে আটকাইতে পারবে না।

    মাইক ডীন তো সাড়ে হারামজাদা। ফার্গুসনরে ডরায়, ওল্ড ট্র্যাফোর্ডে খেলা, লাল কার্ড আর পেনাল্টি আছেই ম্যান ইউ রে হেল্প করার লাইগা।

    কিন্তু আমার মনে হয় ম্যান টু ওয়াচ হইলো রুনী। সুপার ফর্মে আছে। গালাস ভারমিউলেনরে সাধারণ খেলোয়াড় বানাইয়া ফেলতে টাইম লাগবে না।

    আজকে সং আর ডেনিলসন দুই হোল্ডিং প্লেয়ার খেল্বে নাকি ডিয়াবীরে যোক করা হবে অইটা দেখার বিষয়। তাহলে লম্বু বেন্ডটনারের বদলে এডুয়ার্দো রাইটে চলে যাবে, ফন পার্সি লোন স্ট্রাইকার আর বামে তো বিগ ম্যাচ প্লেয়ার আরশাভিন আছেই।

    ফয়েজ ভাই, আমার মনে হয় গালাস এর ভারমিউলেন এর কী আজকে গোল করে ফেলতে পারে। ফন পার্সির ফ্রি কিকে ওরা গোল করবে।

    দেখা যাক ম্যান ইউ এর খেতা পুড়ি।

    জবাব দিন
  5. সানাউল্লাহ (৭৪ - ৮০)

    হাত থাকতে লেখায় ঠুকাঠুকি কি? আমি আমার পোলার পক্ষে আছি। সে নিজেই দেখি ইষৎ টেনশিত। জোর গলায় ম্যান ইউর পক্ষে কইতে পারতাছে না। কইলাম, আমি তো আছি তোমার দলের সঙ্গে!!
    লাগাও.... :duel: :duel: :duel:


    "মানুষে বিশ্বাস হারানো পাপ"

    জবাব দিন
  6. এহসান (৮৯-৯৫)

    ফার্গি পুরাই ধরা। বারবাটভরে লাগবে। গালাস তো অল্রেদী ম্যান অফ দ্য ম্যাচ হয়ে গেছে। আর আরশাভিনের গোলের কথা কি কমু। মাইক ডীনের পীরিত শুরু হয়ে গেছে। অলরেডী ৪ টা আর্সেনাল হলুদ কার্ড। না ব্যাটা লাল কার্ড দিয়াই ছাড়বে।

    জবাব দিন
  7. কামরুল হাসান (৯৪-০০)

    দিয়াবি বুকাচুা নিজের জালে গোল দিয়া দিছে 😛


    ---------------------------------------------------------------------------
    বালক জানে না তো কতোটা হেঁটে এলে
    ফেরার পথ নেই, থাকে না কোনো কালে।।

    জবাব দিন
  8. বন্য (৯৯-০৫)

    পার্সির ফ্রী-কিকটা একটু ভয় ধরায় দিসিলো 😀

    কিন্তু শেষমেষ ম্যানইউ ই রক করছে.... :awesome: :awesome:

    ওয়ান্ডার বয় রুনি আবারও তার ঝলক দেখাইলো ;;; :grr: :grr:
    এ জয়... গ্রামবাংলার আপামর জনসাধারণের জয়... :gulti:

    জবাব দিন
  9. আহসান আকাশ (৯৬-০২)
    মাইক ডিনও কিন্তু হয়ে যেতে পারেন ম্যান অব দ্য ম্যাচ

    ~x( 🙁 x-( :duel:


    আমি বাংলায় মাতি উল্লাসে, করি বাংলায় হাহাকার
    আমি সব দেখে শুনে, ক্ষেপে গিয়ে করি বাংলায় চিৎকার ৷

    জবাব দিন
  10. হাসান (১৯৯৬-২০০২)

    আর্সেনাল নাসরি-ফ্যাব্রেগাসকে মিস করছে, ফন পার্সি ছিল একা, এরা যে কেন আরেকটা কোয়ালিটি স্ট্রাইকার কিনে না আমার মাথায় ঢুকে না। তবে আমার বিরক্ত লাগছে শেষ দিকে বারবাটভের খেলা দেখে 😡 আমার মনে হয় বিগ ম্যাচে ফার্গির ওয়েনকে খেলানো উচিত।

    অফটপিক: আ্যশলি কোলের গোলটা সেইরকম হইছে :clap:

    জবাব দিন
  11. আমিন (১৯৯৬-২০০২)

    ফয়েজ ভাই, চেতলেন কেন????!!!!!

    আমার দেখা বড় দুই দলের খেলা সবচেয়ে বাজে ম্যাচ কালকে হইছে। যদিও মনে হইছে স্লিপারি সারফেসে স্বাভাবিক খেলা নষ্ট হইছে। প্রত্যেকটা প্লেয়ারকে শেকি লাগছে। বিশেষ করে বারবাটোভ লাষ্টে যেটা মিস করলো।
    পেনাল্টি ম্যানইউরটা হইছিলো মনে হয়। আর্সেনালরে যেটা দেয় নাই সেটাও হইছিলো।
    যা হোক এন্ড অফ দ্যা রেজাল্ট ম্যাটারস।

    @ এহসান ভাই, লিভারপুলের বিপক্ষে বোল্টনের একজনরে যে লাল কার্ড দিলো ঐটা কি হইছিলো? ঐটা না দিলে তো লিভারপুল পারে না। মজা হইলো ঐ টার কথা সবাই যেনো বেমালুম ভুলে গেছে। তয় বোল্টনের সামনে লিভারপুলের অবস্থাও সুবিধার নয়।
    চেলসি মনে হয় এই বার চ্যাম্পিয়ান।
    কী বলেন?

    জবাব দিন
    • এহসান (৮৯-৯৫)

      আমিন,
      বোল্টনের প্লেয়ার দুইবার হলুদ কার্ড খাইসে। পিছন থেকে ট্যাকল করলে আর বল না পাইলে ফাউল হয়। দুইবারই তো ওই ব্যাটা লুকাসের পায়ে স্লাইড করসে, নিয়ম অনুযায়ী তো কার্ড ঠিক আছে। আমি এতটুকুই দেখলাম। তুমি কি অন্যকিছু দেখছো নাকি? তবে এইটা ঠিক ১০ জন নিয়া লিভারপুলের সাথে ৩৫ মিনিট বোল্টন পারার কথা না। আর শুরু থেকে মাইরা খেইলা ১১ জন নিয়ে খেলাও শেষ করার কথা না।

      রুনীরে আল্মুনিয়া টাচ করসে, কিন্তু বলতো আর ওর কন্ট্রোলে ছিলোনা, তাছাড়া রুনী তো গোল বাউন্ড ছিলোনা, ছিলো হইলো কর্ণার বাউন্ড। ৮০ শতাংশ ক্ষেত্রে পেনাল্টি না, কিন্তু ওল্ড ট্র্যাফোর্ডে স্বাগতিক দল এইগুলাতে পেনাল্টি পায় সব সময়।

      জবাব দিন
  12. হাসান (১৯৯৬-২০০২)
    চেলসি মনে হয় এই বার চ্যাম্পিয়ান।
    কী বলেন?

    ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড কিন্তু সবসময় ক্রিস্টমাসের পর আসল টান টা দেয়, এত আগে কি বলা যায় নাকি? তবে আমি চাই ম্যানচেস্টার সিটি জিতুক এইবার 🙂

    জবাব দিন
    • আহসান আকাশ (৯৬-০২)

      নিজে এন্টি ম্যান ইউ হওয়ায় ম্যান সিটির প্রতি সবসময় আলাদা একটা টান ছিল, কিন্তু এখন ওদের বদলে ম্যান ইউকেও চ্যাম্পিয়ন দেখতে আমার আপত্তি নেই। রিয়াল, চেলসি, ম্যান সিটি... টাকা দিয়ে পুরো বিশ্ব কিনে ফেলার নীতিতে চলা দলগুলোকে আমি কেন জানি সহ্যই করতে পারি না।


      আমি বাংলায় মাতি উল্লাসে, করি বাংলায় হাহাকার
      আমি সব দেখে শুনে, ক্ষেপে গিয়ে করি বাংলায় চিৎকার ৷

      জবাব দিন

মন্তব্য করুন

দয়া করে বাংলায় মন্তব্য করুন। ইংরেজীতে প্রদানকৃত মন্তব্য প্রকাশ অথবা প্রদর্শনের নিশ্চয়তা আপনাকে দেয়া হচ্ছেনা।