একনজরে এই দেশ!

~~~বাংলাদেশ~~~
• বিশ্বের ৭৬তম ধনী রাষ্ট্র।
•অন্যতম শক্তিশালি ১০টি মুসলিম দেশের একটি।
•এখানে রয়েছে বিশ্বের সবচেয়ে বড় সমুদ্র সৈকত(কক্সবাজার)
•বিশ্বের সবচেয়ে বড় লোনা পানির বনাঞ্চল (সুন্দরবন) এখানে।
•বিশ্বের ১১তম দীর্ঘ সেতু(যমুনা সেতু) তো এদেশেই।
•জাতিসংঘ শান্তি রক্ষা মিশনে সবচেয়ে বেশী সৈন্য প্রেরন করা দেশ।
•রপ্তানিকারক দেশ হিসাবে বিশ্বে ২৭তম, গার্মেন্টস শিল্পে প্রথম।  

প্রাকৃতিক সম্পদে ভরপুর এ দেশটি ২০৫০ সালে বিশ্বের অন্যতম ১০টি ক্ষমতাধর দেশের একটিতে পরিণত হতে যাচ্ছে।
(সংগ্রহীত)

তাহলে কিসের এত দুঃখ, কিসের এত হাহাকার?? আমাদের রয়েছে নিজ ভাষা রক্ষার্থে প্রাণ দেওয়ার ইতিহাস, রয়েছে ৩০ লক্ষ প্রানের বিনিময়ে কেনা স্বাধীনতার ইতিহাস। তবে আর পরোয়া কেন?? এরপর যা হবে সব ইতিহাস।  

সবার বিজয় দিবসের প্রতিজ্ঞা হোক “থাকব ন্যায়ের সঙ্গে”।শুধু এতটুকুই পারে আমাদের দেশকে বিশ্বের সামনে নতুনভাবে পরিচিত করতে। সবাইকে বিজয় দিবসের শুভেচ্ছা ।
___আমাদের বিজয়, আমাদের অর্জন ___

৪৩২ বার দেখা হয়েছে

৯ টি মন্তব্য : “একনজরে এই দেশ!”

  1. আসাদুজ্জামান (১৯৯৬-২০০২)

    সব হতাশা ঝেড়ে ফেলে, সব বিভেদ ভুলে এগিয়ে যেতে চাই সবাই একসাথে। কাউকে ছোট করে নয়, কাউকে বঞ্চিত করে নয়- কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে এগিয়ে যাক ১৬কোটি জনতা। দেশের স্বার্থকে সমুন্নত রেখে অন্য সকল রাষ্ট্রের সাথে সুসম্পর্ক হোক। আমরাও কারো উপর অন্যায় করতে চাইনা, আমাদের উপর কেউ অন্যায় করবে তাও মেনে নিতে চাইনা। সুষ্ঠু, সুন্দর, স্বাভাবিক ও শান্তিপূর্ণ একটি সমাজ চাই।

    জবাব দিন
  2. ড. রমিত আজাদ (৮২-৮৮)

    কিসের এত দুঃখ, কিসের এত হাহাকার??
    ১। অনেকগুলো বছর ধরে নৈতিক অবক্ষয় হয়েছে সাংঘাতিকভাবে।
    ২। দুর্নীতিতে বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন।
    ৩। মানুষ আর মানুষ নাই।
    ৪। সরকার তার দায়িত্ব সম্পর্কে সচেতন নয়।
    ৫। সরকারী অফিস আদালতে গেলে সহজে কোন কাজ হয়না।
    ৬। মানুষের জীবনের কোন মূল্য নাই।
    ৭। অবিচার অনাচারে কমপ্লেইন করার কোন জায়গা নাই।
    ৮। অপরাধীরা অপরাধ করতে কোন ভয় পায়না।
    ৯। ভালো মানুষ না খেয়ে থাকে আর দুর্নীতিবাজরা বহাল তবিয়তে আছেন।
    ১০। যোগাযোগ ব্যবস্থার করুন অবস্থা।
    ১১। মেধার কোন মূল্যায়ন নাই।
    ১২। শিক্ষার বেহাল অবস্থা।
    ১৩। গুনিজনের কদর নাই, টাকা আছে যার তিনিই বস।
    ১৪। বিচারের বাণী নিরবে নিভৃতে কাঁদে।
    ১৫। কোন national goal নাই।

    এমন আরো অনেক সমস্যার কথাই তো প্রতিদিন শুনি।

    জবাব দিন

মন্তব্য করুন

দয়া করে বাংলায় মন্তব্য করুন। ইংরেজীতে প্রদানকৃত মন্তব্য প্রকাশ অথবা প্রদর্শনের নিশ্চয়তা আপনাকে দেয়া হচ্ছেনা।