শুভ নববর্ষ

সবাইকে নববর্ষের শুভেচ্ছা।
অতীতের গ্লানি, ব্যথা, ব্যর্থতা জরা সব মুছে গিয়ে সবার জন্য শুভ হোক ১৪১৬ সাল।

শুভ নববর্ষ

শুভ নববর্ষ

৫,৪৬০ বার দেখা হয়েছে

৫৬ টি মন্তব্য : “শুভ নববর্ষ”

  1. রকিব (০১-০৭)

    সবার জন্য নববর্ষের শুভ+ইচ্ছা রইল।
    অফটপিকঃ বছরের শুরুতেই ডজিং পোষ্ট দিয়া দিলেন আহসান ভাই 😛 😛
    কেমন আছেন ভাইয়া? বহুদিন পর......


    আমি তবু বলি:
    এখনো যে কটা দিন বেঁচে আছি সূর্যে সূর্যে চলি ..

    জবাব দিন
  2. মুসতাকীম (২০০২-২০০৮)

    সবাইকে শুভ নববর্ষ ১৪১৬। 😀 😀 😀 😀 😀


    "আমি খুব ভাল করে জানি, ব্যক্তিগত জীবনে আমার অহংকার করার মত কিছু নেই। কিন্তু আমার ভাষাটা নিয়ে তো আমি অহংকার করতেই পারি।"

    জবাব দিন
    • আহ্সান (৮৮-৯৪)

      সানাউল্লাহ ভাই,
      আপনাকে আর কি লিখবো...। কেবলই মন্ত্রমুগ্ধের মত আপনার আরো অনুরক্ত হতে ইচ্ছে করে। আল্লাহ'র কাছে শুকরিয়া যে আপনার মত (ঠিক উপযুক্ত বিশেষণ খুজে পাচ্ছিনা; ক্ষমা করবেন) একজন মানুষের সাথে আমার পরিচয় হয়েছে।

      আপনাকেও নতুন বছরের বিশেষ শুভেচ্ছা। দুঃখ, কষ্ট নামক শব্দ গুলো আপনার জীবনের অভিধান থেকে মুছে যাক চিরতরে।

      জবাব দিন
    • আহ্সান (৮৮-৯৪)

      হেই কেমস,
      তোমাকেও শুভেচ্ছা।
      আজকে আমি যেই পরিমাণ পান্তা খাইছি...কি আর বলবো...।
      ওয়েটার আমার জন্য পান্তা আনতে আনতে ক্লান্ত হয়ে গেছে। আজ আমি ইলিশ খাইনি...কিন্তু যা খেয়েছি...ওহো...পান্তা ভাত, আলু ভর্তা, শুটকি ভর্তা, চিংড়ি ভর্তা, বোম্বাই মরিচ, শুকনা মরিচ, শুকনা মরিচ ভর্তা, ডিম ভাজি, বাশি ডাল, কাচা পিয়াজ...আর শেষে একটু দুধ পুলি পিঠা...। একটা ডাব ও খেয়েছিলাম আর কি...। দুপুরে ভাত, টাকি মাছের ভর্তা, বেগুন ভর্তা, কাচা কাঠাল দিয়ে গরুর মাংস, ডাল আর কাচা আমের ভর্তা / চাটনি। বোম্বাই মরিচ টা দুপুরেও ছিল...। আহারে সে কি স্বাদ...।

      খাইতে খাইতে একদম ফিনিশ হইয়া গেলাম...।

      জবাব দিন
  3. কামরুল হাসান (৯৪-০০)

    ও আহসান ভাই
    বলতে ভুইলা গেছিলাম। নববর্ষের কার্ডটা সুন্দর হইছে।

    'প্রীতি ও শুভেচ্ছা' র প্রীতিরে আমি নিলাম, শুভেচ্ছারে কাইয়ূম ভাইয়ের জন্যে রাইখা গেলাম 😉 😉


    ---------------------------------------------------------------------------
    বালক জানে না তো কতোটা হেঁটে এলে
    ফেরার পথ নেই, থাকে না কোনো কালে।।

    জবাব দিন
    • আহ্সান (৮৮-৯৪)

      ফয়েজ ভাই,
      শুভ নববর্ষ।
      ঝামেলা কেন জানি একের পর এক চাইপা বসতেছে বস।
      মা অসুস্থ্য হয়ে পড়েছিলেন আমি যখন স্টুডেন্ট নিয়ে যশোরে। এরপর তো ২৫ ফেব্রুয়ারী এবং তার পরবর্তী বেসামাল অবস্থা। মাকে চিকিৎসার জন্য ঢাকা আনা হলো। ঠিক তখনই নানা অসুস্থ্য হয়ে পড়লেন। ওনাকে ঢাকা আনা হলো। মাথায় সার্জারী করা হলো। ক্লিনিকের নার্সিং এর বদৌলতে ২য় বারের মত সার্জারীর প্রয়োজন হলো। মা'কে রেখে তখন সবাই আমরা নানাকে নিয়ে ব্যস্ত হয়ে পড়লাম। আমি নিজেও ছুটি নিয়ে ঢাকা চলে আসলাম। অনেক চেষ্টার পরেও ক্লিনিকের অব্যবস্থাপনার কারণে নানা আমাদের ছেড়ে চিরতরে চলে গেলেন। অবশেষে মা'র চিকিৎসা অসমাপ্ত রেখেই চলে যেতে হল নানার মৃতদেহ নিয়ে। বর্তমানে পুরো পরিবারের সবকিছু কেমন যেন আউলা হয়ে আছে।
      দোয়া কইরেন বস।

      জবাব দিন

মন্তব্য করুন

দয়া করে বাংলায় মন্তব্য করুন। ইংরেজীতে প্রদানকৃত মন্তব্য প্রকাশ অথবা প্রদর্শনের নিশ্চয়তা আপনাকে দেয়া হচ্ছেনা।