একদিনে একশ!!

কালকে মাসরুফ ভাই আর আমি এম এস এন এ গ্যাজাইতেসিলাম। তখনই কথাটা প্রথম পাড়লাম।

– মাসরুফ ভাই, ফেসবুকে একটা গ্রুপ খুললে ক্যামন হয়? ক্যাডেট কলেজ ব্লগের নামে?
– কি কস! ফেসবুকে গ্রুপ খুইলা কি হইব?!

মাসরুফ ভাই টাশকি খায়। ব্লগ থাকতে গ্রুপ দিয়া কি হবে এইটা ভেবে। টাশকি খাইলাম আমিও। এই পাবলিক কয় কি! ক্যানভাস করার জন্যে ফেসবুক এর কোন বিকল্প আছে নাকি!

– না যেমন ধরেন এই কয়দিন সার্ভার ডাউন ছিল। কাউরে কিছু জানাইতে পারলাম না ক্যামনে কি। একটা গ্রুপ থাকলে কমিউনিকেট করা সুবিধার হইতোনা?
– হ, তাইতো। মাসরুফ ভাই এইবার মনে হয় কিছুটা লাইনে আসে। পুরাপুরি লাইনে আনতে আমারে আরো কিছুক্ষণ গুতাইতে হয়। এরকম গাইগুই করতে করতে একসময় ক্যাডেট কলেজ ব্লগ গ্রুপ খোলা হল ফেসবুকে।
কিছুক্ষণ পর মাসরুফ ভাই স্মাইলি দিয়া কেলাইতে কেলাইতে বললো

-তোর গ্রুপ রেডি। চেক কইরা দেখ। ঘড়িতে তখন বাজে বারোটা সাইত্রিশ।

এখন বাজে রাত এগারোটা এক। গ্রুপ তৈরির পর ২৪ ঘন্টা পার হতে এখনো একঘন্টা সাতাশ মিনিট বাকি।
মাসরুফ ভাইয়ের কথামত কোনই কামে না লাগা গ্রুপ এর মেম্বার অলরেডী ১০১ এ দাঁড়িয়েছে। একদিন না পেরোতেই! ক্যাডেট কলেজ ব্লগের প্রতি এই আগ্রহ আর ভালবাসায় মুগ্ধ না হয়ে পারিনা।

মাসরুফ ভাই, আপনার কি আর কিছু বলার আছে?

২,৫২৩ বার দেখা হয়েছে

৩২ টি মন্তব্য : “একদিনে একশ!!”

  1. মাসরুফ (১৯৯৭-২০০৩)

    জিহাদের বাচ্চার দাদার ছেলের বৌয়ের জামাই(বর), আগেরবার তো গোপনে গোপনে কাসেম বানাইছিলি , এইবার কাসেম তো বানাইছস,সেইটা আবার ব্লগ আকারে লেইখা হগগল রে জানান দিছস।ভালো মন্দ যা খাওনের খায়া নে,বুঝসই তো দুই দিনের দুনিয়া...

    প্রিয় ক্যাডেটবৃন্দ, এই জিহাদ পুলাটা যে রেগুলার বেসিসে তার ২ বছরের বড় ভাইরে "কাসেম" বানাইয়াই যাইতেছে,আমি এর তীব্র প্রতিবাদ জানাইতেছি। গত গেট টুগেদারে বর্ষা কেসে "সাইজ" করার কথা থাকিলেও এত ক্যাডেট একসাথে দেইখা দেখিয়া স্মৃতিকাতর হইয়া পড়ায় আমার দেহের অর্ধেক আকারের কিন্তু বিটলা বুদ্ধিতে আমার ১০ গুন এই পোলারে "বানানো" হয়নাই।

    আহসান ভাই,আপনে তো কমান্ডো টাইপ লোক, এরে কি করা যায় কন তো?
    ব্লগের সবার কাছ থিকা "পরামর্শ" আশা করতেছি।

    জবাব দিন
    • আহ্সান (৮৮-৯৪)

      বাংলাদেশ ক্রিকেট টীমরে যা করছিলাম তা করা যাইতে পারে...। কিন্তু পরে আমরা যে সিসিবি নিয়া প্রব্লেম এ পরবো...। তারচেয়ে থাক বাদ দাও...। দেখো ভবিষ্যতে আর কি করে...।

      জবাব দিন
      • মাসরুফ (১৯৯৭-২০০৩)

        ওয়াও আহসান ভাই, ২০-২০ ওয়ার্ল্ড কাপের আগে বিডি টীম কি আপনার কাছেই ট্রেনিং পেয়েছিল???আপনি তখন সিলেটে????
        ......হুম, এইবার বুঝলাম কেমনে ওয়েস্ট ইন্ডিজকে হারাইছিলো বাংলাদেশ।
        আহসান ভাই ,আমার তো ভাব বেড়ে গেল,খেলা নিয়ে কথা হইলেই এখন বলব-"জানিস আমার ঐ ভাই বিডি টীমকে ত্রেনিং দিছে সিলেটে...উনি বিনা পয়সায় যেই ট্রেনিং দিছে সেইটা দিয়া কি রেজাল্ট আসছে দেখ আর সিডন্সের ট্রেনিংএর রেজাল্ট দেখ"...... B-)

        আহসান ভাই, এইটা নিয়া একটা ব্লগ লিখেন না ভাইয়া!প্লিজ প্লিজ প্লিজ জানতে চাই পেপারে যা লিখেছে সেইগুলা সত্যি কিনা......মাশরাফি নাকি দারুণ শার্পশুটার এইটা কতটা সত্যি ইত্যাদি ইত্যাদি...

        জবাব দিন
      • তৌফিক (৯৬-০২)

        লম্বা মানুষ, বুদ্ধি শুদ্ধি হাটুতে, তাই আহসান ভাইয়ের কথা বুঝতে পারি নাই। মাসরুফও লম্বা, কিন্তু আমার থাইকা কম। হাটুটা তার মাথার কাছে (অন্তত আমার থাইকা কাছে)। তাই সে বুইঝা ফালাইছে। আহসান ভাই, বাংলাদেশ টিম নিয়া লেখা চাই।

        জবাব দিন

মন্তব্য করুন

দয়া করে বাংলায় মন্তব্য করুন। ইংরেজীতে প্রদানকৃত মন্তব্য প্রকাশ অথবা প্রদর্শনের নিশ্চয়তা আপনাকে দেয়া হচ্ছেনা।