বন্ধুরা …

জিমেইলে গত কিছুদিন ধরেই মেইল পাচ্ছিলাম ক্যাডেটকলেজ ব্লগ থেকে। আমার না কী এখানে কোন এক ব্যক্তিগত মেসেজ আছে সেজন্যে। যাই হোক, অবশেষে আসা হল এখানে আজ। আমার লেখালেখি পরীক্ষার খাতার মধ্যেই সীমাবদ্ধ ছিল কিছুদিন আগ পর্যন্তও। পিএইচডি করতে এখানে (নেদারল্যান্ড) আসার পর থেকেই একাকীত্বের কাছে আত্মসমর্পণ করেই মনে হয় কী-বোর্ড আর মনিটরকে আপন করে নিয়েছিলাম এখানে কিছু হাবিজাবি লেখে। তবে এটাই বা বাদ যাবে কেন? শুরু হোক তাহলে পথচলা।

ক্যাডেট জীবন যাদের সাথে শুরু ওদের নিয়েই না হয় লেখি আজ। ওরা কেমন আছে, কোথায় আছে? কিছু তথ্য ভুল থেকে যেতে পারে স্মৃতির বিশ্বাসঘাতকতায়; ক্ষমাপ্রার্থী।

খুরশীদ (৮২৫)- শেষ দেখা সেই দিন যেদিন আমরা ইন্টার শেষ করে বেরিয়ে গিয়েছিলাম কলেজ থেকে, ৬ বছরের দীর্ঘ বন্ধন ছিন্ন করে। পরে শুনেছি ওর বিয়ের সময় বন্ধুরা খুব উৎকন্ঠিত ছিল আমাদের হবু ভাবীর বাসর রাত পরবর্তী শারীরিক অবস্থা নিয়ে … 😛 । আর্মিতে আছে।

আহসান (৮২৬)- দেশে থাকতেও দেখা হয়েছিল; এইতো মাস আটেক আগে।দেশ আর দশের চিন্তা ওর মাথায়; আমাদের মতন স্বার্থপর নয়। পড়ছে (না কী পড়া শেষ) ডিইউ তে।

হাফিজ (৮২৭)- টিটো নামেই এখন পরিচিত। দেশে থাকতেই দেখা হয়েছিল এক বন্ধুর বিয়েতে হবু ভাবী সহ।

নাঈম (৮২৮)- আমি ওরে অনেক ভালো পাই কারণ আমাদের রাজনৈতিক চিন্তা ভাবনা একইরকম বলে। ভালো আছে। চাকরি করছে আর ডেটিং …

আব্দুল্লাহ (৮২৯)- আমার প্রথম রুমমেট। রুম নং ২১১, শেবাহা। আমাদের ব্যাচের সবচেয়ে মেধাবী নিঃসন্দেহে। বুয়েটে ভর্তি পরীক্ষায় মেধাতালিকায় প্রথম। পরবর্তী জীবনে অত্যন্ত ধর্মপ্রাণ। বিয়ে করেছে ও কিছুদিন আগে।

শফিক (৮৩১)- বুয়েটে পড়াশোনা। অনেকদিন দেখা নাই বন্ধু আমার। ওর জোকগুলা খুব মিস করি। একটা ছিল “দোস, পানি ভিজা না শুকনা?”

ইসলাম(৮৩২)- অনেক ভালো বক্তা। আইসিসিএলএম ১৯৯৯ তে উপস্থিত বক্তৃতায় প্রথম। আমাদের মাঝে চাপাবাজ বলে পরিচিত ওর এই বাগ্মীতা। এয়ারফোর্স। এখনও মাঝে মাঝে যোগাযোগ হয়।

রাজীব(৮৩৩)- ডিইউ। ক’দিন আগেই বাবা হল। অসাধারণ ফুটবলার। মাঠে ও থাকা মানে ১টা খেলোয়াড় বেশি থাকা। এর সুফল আমরা পেয়েছিলাম ১২শ শ্রেণীতে থাকাকালীন সময়কার ফুটবল প্রতিযোগীতায়; আন্ডারডগ থেকে চ্যাম্পিয়ন।

মেহেদী(৮৩৪)- আমাদের ব্যাচের সবচেয়ে হাসিখুশী ছেলে। দুঃখ ওকে কখনোই ছুঁতে পারে না। তুই ভালো থাক দোস্ত, দুঃখ যেন তোকে কখনো না ছোঁয়।

রাকিব(৮৩৫)- গম্ভীর পোলা। এখনও তেমনটিই আছে মনে হয়। অনেকদিন দেখা নেই।

হায়দার(৮৩৬)- সর্বকালের সেরা ক্রিকেট বোদ্ধা দাবী করে সে নিজেকে। ক্যাডেট কলেজ ইতিহাসের শ্রেষ্ঠ উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান বলেও দাবী করে থাকে। এখন ও আমার সবচেয়ে কাছে থাকে। জার্মানীতে, এমএস করছে।

আমিন(৮৩৭)- ও মনে হয় সবচেয়ে সুখে আছে আমাদের মধ্যে। অস্ট্রেলিয়া চলে গিয়েছিল ইন্টার শেষ করেই। এখন দিব্যি চাকরি, গাড়ী আর নারীতেই ব্যস্ত মনে হয়। 😉

ফায়েজ(৮৩৮)- আমাদের ব্যাচের সবচেয়ে লম্বা। হাউসটিমের গোলকীপার ছিল। এখন আর্মিতে। দেখা হয়েছিল দেশ ছাড়ার আগেও।

আসাদ(৮৩৯)- এখন ইউএন মিশনে আছে আর ছুটিতে বউরে নিয়ে ঘুরে বেড়ায় এদিক সেদিক।

বারী(৮৪০)- “বারী (না কী বাড়ী) কোথায়?” এই জোকটা মনে হয় এই ব্লগের নিয়মিত যাঁরা, তাঁরা সবাই জানেন। বারী এখন খুলনা খুব সম্ভবত। দক্ষ ব্যাংকার। বারীর গান খুব মিস করি। আমাদের হাউস অধিনায়ক ছিল।

মামুন(৮৪১)- আমাদের হাউসের শেষ ক্যাডেট। ভালো আছে আমার ধারণা; যোগাযোগ নেই অনেকদিন।

সিরাজ(৮৪২)- আমার মামা। এসএসসি পরীক্ষার সময় অনেক রাত 29 খেলে কাটিয়েছি মামার সাথে। দেখা হয়েছে ক’দিন আগেও। ইউএন মিশনে থেকে বেচারা একেবারে শুকায় গেছে।

হাসান(৮৪৩)- আরেক ব্যাংকার। দেশ ছাড়ার আগে হবু ভাবী সহ দেখা হয়েছিল।

মঞ্জুর(৮৪৪)- ও যে কখন কোথায় থাকে বলা খুবই দুষ্কর। এখন মনে হয় কানাডায় বউ সহ। ওর অনেক বিখ্যাত পেটেন্ট করা জোক প্রচলিত ছিল কলেজে।

আসিফ(৮৪৫)- ব্যাচের একমাত্র ডাক্তার এবং একমাত্র সক্রিয় বাম কর্মী। আমার অনেক কাছের বন্ধু।

সালেহ(৮৪৬)- একসময় মিশেছি। অনেকদিন খবর নাই।

মাহবুব(৮৪৭)- কলেজে থাকা অবস্থায় ও মনে হয় পুরো নাস্তিক ছিল। আর এখন … দেখলে বিশ্বাস করবেন না। এজন্যই বোধ করি আমাদের জীবনটা এত অনুনমেয়।

ইউসুফ(৮৪৮)- কনসালটেন্সী ফার্ম আছে ঢাকায়। বিয়ে করে টোনাটুনির সংসার।

সালমান(৮৪৯)- ওর বিয়ে খেতে গিয়েছিলাম। ভাবীর সাথে ওর পরিচয় রাশিয়ায়। ভাবী বাংলাদেশী এবং মমগক এর। এখন মনে হয় দু’জনেই রাশিয়াতে।

আরাফাত(৮৫০)- আমাদের যুক্তির আধার। পেশাগত জীবনে প্রভাষক আর ওর আছে শেয়ার ব্যবসা নিয়ে অপরিসীম আগ্রহ এবং জ্ঞান। আসলে ওই আমাকে প্রথম এ সম্পর্কে ধারণা দিয়েছিল। বিয়ে করে মহাসুখে আছে। কিছুদিন পর পরই দেখি ভাবী সহ লং ড্রাইভে বের হয়।

মেহেদী(৮৫১)- আর্মিতে আছে। এর বেশি কিছু জানি না।

তাহসিন(৮৫২)- বিয়ে করেছে ক’দিন হল। আর্মি পার্টি।

সাইফুজ্জামান(৮৫৩)- এখানে আসার আগে দেখা হয়েছিল। এখন তেমন কথা-বার্তা হয় না।

জাবির(৮৫৪)- অতি সম্প্রতি কোন এক বিশ্ববিদ্যালয়ে যোগদান শিক্ষক হিসেবে। ভালো আছে।

সিনা(৮৫৫)- আমার কলেজের কোন এক সময়ের সবচেয়ে ভাল বন্ধু। কিছু ভুল বোঝাবুঝি ছিল। যাক ওটা বাইরে বের হয়ে আর প্রভাব ফেলেনি। বিয়ে করবে মনে হয় খুব শীঘ্রই। একটা মজা আছে; ওর ছোট ভাই আবার আমার ডাইরেক্ট ছাত্র। অবশ্য আমার কলেজের অনেক জুনিয়রই আমার ছাত্র। ২৩তম ব্যাচে মনে হয় বেশ ক’টা আছে।

মাহমুদ(৮৫৬)- অস্ট্রেলিয়া প্রবাসী। ওদের বাড়ি ছিল টাঙ্গাইল, আকুরটাকুড় পাড়া। নামটা সুন্দর না?

আশরাফ(৮৫৭)- ও যে কিভাবে সবসময় এত পরিপাটি থাকে বুঝি না। এমএস শেষ মনে হয় ডিইউ থেকে।

নূর হাসান(৮৫৮)- ওর সাথে কী আমি কলেজ লাইফে সবচেয়ে কম কথা বলেছি? হতেও পারে। তবে কী জানেন? ওই যে, এটা জীবন। বাঁকে বাঁকে শুধু ঘটনার ঘনঘটা। গত এক বছরের কথা হিসেব করলে ওর সাথেই আমি সবচেয়ে বেশি সময় কাটিয়েছি, কথা বলেছি। একটা কথা না বললেই না। ও সত্যিকারের জ্ঞানের সাধক। (তোরে কিন্তু টিজ করি নাই; মন থেকে বললাম)

আনোয়ার(৮৫৯)- লাইবেরিয়াতে আছে, মিশনে। আর ছয়মাস বাকী। ওর ফেসবুক স্ট্যাটাস সেটাই বলে।

তামজীদ(৮৬০)- এখন আছে আর্মিতে। জীবনে অনেক সময় আসে যখন আপনি এমন কারো কাছে থেকে পরম উপকারটুকু পাবেন যেটা আপনি কখনো কল্পনাও করবেন না। ওর কাছে আমি ঋণী, সারাজীবনের জন্য।

শাহীদ(৮৬১)- ক্যাপ্টেন হওয়ার পরের খবর বলতে পারলাম না।

রিফাত(৮৬২)- মাস্তি আর রিফাত সমার্থক শব্দ। ভালো আছে ও অনেক। ঠিকানা রিকি পন্টিংয়ের দেশ।

আল-মামুন(৮৬৩)- ওর গায়ের রঙ যতটা কালো মন ততটা সাদা। খুঁজে পাবেন জলপাই রঙয়ের পোষাকে।

সেলিম(৮৬৪)- আমাদের ব্যাচের দুই যময ভাইয়ের আরেকজন। এর থেকে বেশি কিছু বলার নেই।

বিল্লাহ(৮৬৫)- কলেজে পড়ার সময় খুলনাতে যেখানে থাকতাম তা থেকে ২ মিনিটের হাঁটা পথের পরে ওদের বাড়ি। এখন সেনাবাহিনী।

শরীফ(৮৬৬)- তুরস্কে আছে। মজলিসী পোলা। ভালো আছে নিশ্চয়ই অনেক মেয়ের মাঝে। 😀

হাসিব(৮৬৭)- ক’দিন আগেও ফিনল্যান্ড ছিল; এখন বাংলাদেশ স্নাতকোত্তর শেষ করে। সবসময় খুব সিরিয়াস।

তানভীর(৮৬৮)- বহুজাতিক কোম্পানীতে মোটা বেতনে চাকরি করে হুলস্থূল অবস্থা তানভীরের।

আবু হানিফা(৮৬৯)- সবচেয়ে Lively (যুতসই বাংলা জানিনা) আমাদের মাঝে। অতি সম্প্রতি মালা বদল হয়েছে। আমার অনেক না বলা কথার সাক্ষী ও। ভালো থাকিস দোস্ত।

মাহমুদ(৮৭০)- আমি ওরে আমার ক্যাডেট লাইফে আইডল মনে করতাম। পরে ও আর্মিতে চলে যাওয়ায় যোগাযোগ কমে যায়। ভালো আছে নিশ্চয়ই। আমাদের কলেজ অধিনায়ক ছিল ও।

সত্যেন(৮৭১)- একবার ফুটবল খেলার সময় দেখি আমার সামনে সত্যেন। আমি বলে রেখে অন্য দিকে দৌড় দিয়েছিলাম। এবার বুঝে নিন। খুব ভালো একটা ফার্মাসিউটিক্যালস কোম্পানীতে চাকরি করছে।

রাশেদ(৮৭২)- তপু। ওর কথা আর কী বলব। আপনারাই আমার থেকে অনেক ভালো জানেন। আমি ওর একনিষ্ঠ ভক্ত।

শামীম(৮৭৩)- টিএসসিতে দেখা হয়েছিল বছরখানেক আগে। একদমই বদলায়নি ও; বাঁদরই রয়ে গেছে।

জামান(৮৭৪)- ময়মনসিংহে থাকায় জামানের ছিল অবারিত দ্বার আমাদের তখনকার একমাত্র বালিকা কলেজের কাছে। কলেজে আসলে সে গল্প আমরাও শুনে পুলকিত হতাম। ও এখন রাশিয়ায়।

রইলাম শুধু আমি। ক্যাডেট নম্বর ৮৩০। পিএইচডি করছি নেদারল্যান্ডের টোয়েন্টে বিশ্ববিদ্যালয়ে।

মেঘে মেঘে অনেক বেলা গড়িয়ে গেলেও ঐ চার দেয়ালের স্মৃতি এখনও অম্লান। বন্ধুরা ভালো থাকিস।

৪,৮০১ বার দেখা হয়েছে

৯৪ টি মন্তব্য : “বন্ধুরা …”

  1. রকিব (০১-০৭)

    রাকিব(৮৩৫)- গম্ভীর পোলা।

    সব রকিব/রাকিব-ই তাহলে এরকম। :-B
    স্বাগতম ভাইয়া, শুভ ব্লগিং; এই নেন আপনার :teacup: ।
    বন্ধুদের আসলেই ভোলা যায় না।


    আমি তবু বলি:
    এখনো যে কটা দিন বেঁচে আছি সূর্যে সূর্যে চলি ..

    জবাব দিন
  2. টিটো রহমান (৯৪-০০)

    রেজু...........তোকে এই ব্লগে দেখে ভীষণ ভালো লাগলো দোস্ত। তোর বর্ণনাটা আর একটু দরকার ছিলো..............আফটার অল তুই আমাদের ব্যাচের মধ্যে প্রথম বাবা। কলেজের বাইরে এসে কোচিং থেকেই প্রেম....রেজাল্ট ইত্যাদি ইত্যাদি 😛

    এনিওয়ে..............ব্লগে স্বাগতম :hug:
    এখন শুধু লিখতে থাক.... :dreamy:


    আপনারে আমি খুঁজিয়া বেড়াই

    জবাব দিন
  3. সানাউল্লাহ (৭৪ - ৮০)

    আরেকটা '৯৪?? গুড গুড।। স্বাগতম সিসিবিতে। প্রিন্সিপালের সঙ্গে মোলাকাত হইছে? না হইলে জলদি কইরা ফালাও!! কওয়া যায় না, পরে আবার কি বিপদে পড়ো!!

    এখনো বুঝ নাই?? ১০টা :frontroll: !! প্যারেড গ্রাউন্ডে কড়া রোদে......... কুইক!! x-( x-( x-(


    "মানুষে বিশ্বাস হারানো পাপ"

    জবাব দিন
  4. আমিন (১৯৯৬-২০০২)

    ব্লগে স্বাগতম ভাইয়া।
    আপনে হায়দার ভাইয়ের কাছাকাছি থাকেন। উনারে আমার সালাম পৌছাইয়া দিয়েন।

    আপনারে দেইখা তো ব্যাচের বিবিসি মনে হইতেসে। :salute: :salute:

    জবাব দিন
  5. তানভীর (৯৪-০০)

    আচ্ছা......তুই এইচএসসিতে সারা বাংলাদেশে ফার্স্ট হওয়া রেজওয়ান না?
    ভালো আছস? আমাদের কোথায় দেখা হইছে মনে করতে পারোস?? পাবনার শহীদুল্লাহর কথা মনে আছে?

    জবাব দিন
  6. আহসান আকাশ (৯৬-০২)

    আরে রেজওয়ান ভাই দেখি... ব্লগে স্বাগতম ভাইয়া, লেখা দারুন হইছে ... এখন খালি লিখতে থাকেন 😀


    আমি বাংলায় মাতি উল্লাসে, করি বাংলায় হাহাকার
    আমি সব দেখে শুনে, ক্ষেপে গিয়ে করি বাংলায় চিৎকার ৷

    জবাব দিন
  7. টুম্পা (অতিথি)

    স্বাগতম ব্লগে 🙂
    মির্জাপুরের এইরকম একটা লিস্টি আমি করতে পারবো মনে হয়! প্রায়ই গেট টুগেদারে এরকম ক্যাডেট নাম্বার ধরে ধরে কে কই আছে, কার উইকেট পড়ল এইসব আবজাব হিসাব করা হয়!
    খুরশীদ আর হায়দার কে চিনি শুধু। হায়দার তো বস..স্বঘোষিত ক্যাপ্টেন,সবসময় 🙂

    জবাব দিন
  8. শার্লী (১৯৯৯-২০০৫)

    ব্লগে স্বাগতম ভাই। আমরা নতুন বলেই বোধহয়, আমার ব্যাচের সবার এরকম লিস্ট করা আমার জন্য খুব সহজ একটা কাজ। আচ্ছা যাদের নাম রেজওয়ান তাদের সবাইকেই কি বন্ধুরা রেজু বলে ডাকে? :-/

    জবাব দিন
  9. রেজওয়ান (৯৯-০৫)

    আরেএএএএএ...... 😀 😀
    মিতা কেমন আছেন ????
    অনেক দিন পর...মানে সেই কলেজ থেকে বের হবার পর...... 😀
    খুব ভাল লাগল আপনাকে এইখানে দেখে...আপনাদের খালি সিরাজ ভাইয়ের সাথেই আমার যোগাযোগ হয়...লাস্ট ঈদ এ আমারে খালি এক কাপ চা খাওয়াইয়াই শ্যাষ :(( :((
    নিয়মিত থাকবেন আশা করি :salute:

    জবাব দিন
  10. কামরুল হাসান (৯৪-০০)

    হিসাব কইরা দেখলাম তোদের মাত্র ৪/৫ জনরে চিনি না। মানে কখনো কথা হয় নায়। সেই ৪/৫ জনের মধ্যে তুই একজন।
    বাকি সবার সাথে কম-বেশি খাতির আছে।

    সিনা হারামিটা এখনো বিয়া করে নাই? সেই ফার্স্ট ইয়ার থেকে প্রেম শুরু করছে, এতোদিনে তো ওর বড় ছেলে স্কুলে যাবার কথা। 😛


    ---------------------------------------------------------------------------
    বালক জানে না তো কতোটা হেঁটে এলে
    ফেরার পথ নেই, থাকে না কোনো কালে।।

    জবাব দিন
  11. আহমদ (৮৮-৯৪)
    কফি হাউজের সেই আড্ডাটা আজ আর নেই ........................... সেই সাতজন নেই আজো টেবিলটা তবু আছে, সাতটা পেয়ালা আজো খালি নেই ...

    :hatsoff:

    লেখাটা পড়ে অনেক অনেক অনেক ভাল লাগল। বন্ধুদের কথা খুব বেশি মনে পড়ছে।


    চ্যারিটি বিগিনস এট হোম

    জবাব দিন
  12. আহসান আকাশ (৯৬-০২)
    সত্যেন(৮৭১)- একবার ফুটবল খেলার সময় দেখি আমার সামনে সত্যেন। আমি বলে রেখে অন্য দিকে দৌড় দিয়েছিলাম।

    :)) :))

    সত্যেন ভাইকে আমরা টাওয়ার বলতাম, উনি ডিফেন্সে দাড়াইলে স্ট্রাইকাররা বল নিয়ে যাবার আগে দুইবার ভাবত।


    আমি বাংলায় মাতি উল্লাসে, করি বাংলায় হাহাকার
    আমি সব দেখে শুনে, ক্ষেপে গিয়ে করি বাংলায় চিৎকার ৷

    জবাব দিন
  13. জুনায়েদ কবীর (৯৫-০১)

    রেজওয়ান ভাই স্বাগতম... :clap:

    তবে এখানেই থেমে থাকলে চলবে না...আপ্নাকে আরো অনেক বড় হতে হবে কিন্তু... 😀


    ঐ দেখা যায় তালগাছ, তালগাছটি কিন্তু আমার...হুঁ

    জবাব দিন
  14. Nur hasan

    জ্ঞানের সাধনা করতে দক্ষিণ কোরিয়া, হল্যান্ড চষে বেড়াচ্ছে কে যেন? 😛
    যাহোক লেথাটা অনেক সুন্দর হইছে।(যদিও আমাকে টিজ করার বিষয়টা সাময়িকভাবে মেনে নিলাম x-( )

    পুনশ্চ:
    # রাকিব (৮৩৫) একটা বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ে লেকচারার + অত্যন্ত ধর্মপ্রাণ 🙂
    # শফিক (৮৩১) রিয়েল স্টেট কোম্পানিতে চা্কুরে।
    # মামুন (৮৪১) BAF এ
    # শা্হীদ (৮৬১) MIST তে পড়ে।

    জবাব দিন
  15. কাইয়ূম (১৯৯২-১৯৯৮)

    সিসিবিতে সুস্বাগতম রেজওয়ান :clap:

    নিয়মিত লিখবা এই আশা করি।
    পোলাপাইনের লিস্টি দেইখা খুব ভালো লাগলো। আমাদের একটা করে ফেলতে ইচ্ছা করতেছে 😀
    তোমাদের তো দেখি হয় ডিফেন্স নাইলে বিদেশ এই কন্ডিশন 🙂


    সংসারে প্রবল বৈরাগ্য!

    জবাব দিন
  16. সিরাজ (৯৪-০০)
    সিরাজ(৮৪২)- আমার মামা। এসএসসি পরীক্ষার সময় অনেক রাত 29 খেলে কাটিয়েছি মামার সাথে। দেখা হয়েছে ক’দিন আগেও। ইউএন মিশনে থেকে বেচারা একেবারে শুকায় গেছে।

    i am in jahannam.................even though lekha ta pore comment na korar lov samlate parlam na.....MAMA TO.....
    best of luck

    জবাব দিন

মন্তব্য করুন

দয়া করে বাংলায় মন্তব্য করুন। ইংরেজীতে প্রদানকৃত মন্তব্য প্রকাশ অথবা প্রদর্শনের নিশ্চয়তা আপনাকে দেয়া হচ্ছেনা।