ঘুণপোকার আর্তনাদ

ফাগুনের হাওয়ায় নিজেকে ভাসিয়ে দিতে পারি নি আমি ,
রিক্ততার বেদনায় অশ্রুপাত শেখেনি আমার দু’নয়্ন ;
হারিয়ে গিয়েছি বারবার ছায়া নামের মিথ্যে আলোতে ।
তোমার ধৃত স্বপ্নের রাজপুত্র হতে দাওনি তুমি ,
মাঝে ফিকে হয়ে যায় ভুলের নেশা মেশানো স্মৃতি ।
রংগুলো সব সাদা-কালো অথবা খয়েরি নীল আকাশ ;
প্রতিবিম্বের মতো আমি আর আমার মৃত ছায়া –
তিনটি ঘুণপোকার আর্তনাদ আর আমার ছায়া ।
আমার আলো নামের মিথ্যে ছায়ায় তো্মার স্মৃতি –
মাঝে মাঝে গ্রাস করে আমার পরাবাস্তব সত্তাকেও ।
রঙিন ক্যানভাসের ছবি – আমার দ্বিতীয় মৃত্যুর আগে
প্রথম প্রেমের নিবেদন , আমার উৎসবের উৎসাহে –
বলেছিল আকাশ সেদিন , আমি ছিলাম নিশ্চুপ ।
লণ্ডভণ্ড হয় আমার অস্তিত্ব , অবশ অনুভূতির দেয়াল্ ।
ভাবতে দাওনি আমায় অনুভূতিহীন ঘুম চেতনা ;
লোহিত নেশার উৎকট আলো আর ছায়া-অপছায়া –
বাতাসের ঝাপটায় অতঃপর চোখ মেলে তাকাই অদেখা স্বর্গে ;
সাহসের নামে আর্তনাদ আমার ; ঘুণপকার আর্তনাদ ।

৫৬৯ বার দেখা হয়েছে

৫ টি মন্তব্য : “ঘুণপোকার আর্তনাদ”

মন্তব্য করুন

দয়া করে বাংলায় মন্তব্য করুন। ইংরেজীতে প্রদানকৃত মন্তব্য প্রকাশ অথবা প্রদর্শনের নিশ্চয়তা আপনাকে দেয়া হচ্ছেনা।