মা‌য়ের খুব কাছাকা‌ছি

মা‌য়ের খুব কাছাকা‌ছি
ওবা‌য়েদুল্লাহ

মাটির উপর শু‌য়ে কান পে‌তে আছি,
সোদা গন্ধ না‌কে পি‌ঠে শিতল পরশ
মা‌য়ের খুব কাছাকা‌ছি।
মা ম‌া‌গো তুই কেমন আছিস ?

তুই শু‌য়ে ঘ‌রে আমি যে দা‌ড়ি‌য়ে বাই‌রে
চ‌লে গে‌লি মাগো সত্যি আমাকে ছে‌ড়ে,
দেখ‌বো না তো‌কে কোন দিন বাড়‌ি ফি‌রে
এও কি হয় ম‌া বল, বাড়‌ি যা‌বো কি ক‌রে?

ঝা‌ড়ের বাশ সব নু‌য়ে নিশ্চুপ কদম হিজল
হলু‌দের খেত আঙিনিা জু‌ড়ে স্তব্ধ বিহব্বল,
‌নি‌মের গাছটা ‌নেই শুক‌নো কু‌য়োর পাড়
আধা শতাব্দী সহচর বন্ধ মা‌টির দুই ঘর ।

‌দে‌হে‌ প্রাণ নেই নেই তোর ঘ‌রে জানালা দুয়ার
‌এক ব‌ট ছায়াত‌ল কেট‌েছে পিতৃহীন ত্রিশ বছর,
মাটি‌র ‘পর চিৎ হ‌য়ে শু‌য়ে খু‌জি তারার আকাশ
কোনটা বল মা তুই, জ‌লে দৃ‌ষ্টিহীন বন্ধ নিশ্বাস।

মা‌টির কো‌লে ব‌সে চোখ মে‌লে আছি,
মৃদুমন্দ মলয় আদ‌রে কোমল পরশ
মা‌য়ের খুব কাছাকা‌ছি।
মা ম‌া‌গো তুই কেমন আছিস ?

ঢাকা। ফ‌েব্রুয়ার‌ি ২০১৯ ।

৬ টি মন্তব্য : “মা‌য়ের খুব কাছাকা‌ছি”

    • মুহম্মদ ওবায়দুল্লাহ

      প্রথম কব‌িতা পড়া এবং মন্তব্য এর জন্য ধন্যবাদ। আমি কবি কি না জানি না , মনের তাগিদে লিখি। কার‌ো ভালো লাগলে নিজের ও ভালো লাগে। ভালো থেকো।

      জবাব দিন
  1. মাকে নিয়ে লেখা আপনার কবিতাটা সুন্দর হয়েছে। আপনার লেখার হাত আছে। আমি মাঝে মাঝে লেখার চেষ্টা করি কিন্তু পারি না। কবিতা সম্পর্কে আমার জ্ঞান খুবি কম। সেই স্বল্প জ্ঞান নিয়েই লেখার চেষ্টা করি, কি করবো! না লিখলে মাথার ভেতর পোকা কামড়ায়।

    আমার লেখা পড়ে দেখতে পাড়েন
    পরিত্যক্ত

    জবাব দিন
    • মুহম্মদ ওবায়দুল্লাহ

      , অন্যরা পড়ে যদি আনন্দ পায় সেটা তো বাড়তি। দ্বিধাহীন লিখে যাও।যে লিখে সে কল্পনা করে আর কল্পনা স‌েতো সর্বদাই কবিতা।

      পড়বো।

      জবাব দিন
  2. মুহম্মদ ওবায়দুল্লাহ

    মাকে নিয়ে যা লিখবে তাই কবিতা। যে লেখে সেতো তার জন্য লেখে , অন্যরা পড়ে যদি আনন্দ পায় সেটা তো বাড়তি। দ্বিধাহীন লিখে যাও।যে লিখে সে কল্পনা করে আর কল্পনা স‌েতো সর্বদাই কবিতা।

    পড়বো।

    জবাব দিন

মন্তব্য করুন

দয়া করে বাংলায় মন্তব্য করুন। ইংরেজীতে প্রদানকৃত মন্তব্য প্রকাশ অথবা প্রদর্শনের নিশ্চয়তা আপনাকে দেয়া হচ্ছেনা।