মা ম‌োর

মা ম‌োর।
ওবা‌য়েদুল্লাহ্

এই বাংলার খুব অজ এক গা‌য়ে
‌স‌ন্ধে হ‌লে শেয়া‌লেরা ডাক‌তো প‌থে
হাস গু‌লো হে‌লে‌ দুলে ফির‌তো গৃ‌হে
রা‌তে কে‌রো‌সিন বা‌তির স‌লোকে
‌হে‌সে‌লে রান্না সের‌ে আসতো ঘ‌রে
গাঢ় শ্যামল রঙের কি‌শো‌রী মে‌য়ে।
‌সেই এক রমনীর গতর ফে‌টে
কোন এক আধার রা‌তে
আর্তনা‌দে অবি‌চ্ছে‌দ্য না‌ড়ি কে‌টে
আমি এসে‌ছিলাম ডাক‌তে মা‌কে।

অতল গভীর‌ের সমুদ্র‌ মন্থন
সহস্র আলোক পথ‌ বিচরন,
সুড়ং অভ্যন্তর সুর‌ক্ষিত আল‌য়ে
চক্ষু কর্ণ শব্দ দৃ‌ষ্টি বিহীন
‌হেট‌ে‌ সন্তর্প‌ণে জ‌লের ত‌লে
মা‌ছের মত খেলে প‌থের বারান্দায়
আ‌মি এসে‌ছিলাম ডাক‌তে মাকে।

‌স্নিগ্ধ শ্রোতস্বী‌নি রমনীর
অরুপ অমৃত শু‌ষে দৃপ্ত শ‌ক্তিমান
দিনরাতভর কো‌লে কাখ‌ে পি‌ঠে
সহস্র অযুত লক্ষ কো‌ষে কোষ বে‌ড়‌ে
দৃষ্টি এলো চো‌খে শব্দ বা‌জিল কা‌নে,
তি‌লে তি‌লে যার অন্তর বা‌সে
স্প‌ন্দিত কল্পনার ক‌ড়ি‌ডোর
স্ব‌প্নের সকাল হ‌লো ভোর
মা ড‌া‌কিল দুন্দু‌ভি প্রস‌বিত শোর।

চা‌রিদিক আলোর মি‌ছিল
সূর্যের কিরণ ‌আনিল আলোর ভোর
আশ্রিত মা‌তৃ‌ডোর সু‌বোধ কা‌ন্তির ঘোর
ডা‌কিল অন্ত‌রের শিশু মা ম‌া ব‌লে
রমনী ক‌াদিল ‌আহলা‌দে পরাণ খু‌লে
আমি যে মা মা তোর।

ঢাকা। ০৭/০২/২০১৯

মন্তব্য করুন

দয়া করে বাংলায় মন্তব্য করুন। ইংরেজীতে প্রদানকৃত মন্তব্য প্রকাশ অথবা প্রদর্শনের নিশ্চয়তা আপনাকে দেয়া হচ্ছেনা।