বাগের হাট আর ষাট গম্বুজ মসজিদ ভ্রমণ


গত সপ্তাহে কোন এক ট্রাভেলারের ষাট গম্বুজ ভ্রমনের পোস্ট দেখে চলে গিয়েছিলাম একদিনের জন্য #বাগেরহাট আর খুলনায়। সংক্ষেপে তাই শেয়ার করবো আজকে।

href=”//www.cadetcollegeblog.com/wp-content/uploads/2017/12/DSC00309-1.jpg”>

খুলনা থেকে ১ দিন সময় নিয়ে গেলে আপনি দেখতে পারবেন
১। ষাট গম্বুজ
২। Khan Jahan Ali মাজার
৩। চন্দ্রমহল
৪। রুপসা সেতু

আর হাতে যদি দুই দিন সময় থাকে তাহলে বিকেলের দিকে মংলা চলে যেতে পারেন। পশুর হোটেলে রাত কাটিয়ে ভোরে সুন্দরবন দেখে দিনে দিনে ব্যাক করতে পারবেন।

ডিপারচারঃ
ঢাকা বা চিটাগং থেকে খুলনা বা বাগের হাটের উদ্দেশে যে বাস গুলো ছেড়ে আসে সেই বাসে ঊথে যেতে পারেন। অথবা ঢাকা থেকে প্রতিদিন ৫-৬ টা ফ্লাইট আসে, সকাল ৮ টা থেকে রাত ৯ টা পর্যন্ত, পিক টাইম না থাকলা টিকেট প্রাইস ২৭০০ থেকে ৪৫০০ পর্যন্ত। যশোর বিমান বন্দরে নেমে সরাসরি বিমান এর বাসে করে খুলনায় চলে আসতে পারেন। যেহেতু যশোর খুলনা রোড খুব একটা সুবিধার না তাই এই বাসে আসাটাই বুদ্ধিমানের কাজ, টীকেটের মূল্য ২৫০ টাকা। আপনাকে শিববাড়ি মোড়ে নামিয়ে দিবে।
যাই হোক আপনি এখন পর্যন্ত খুলনা আসলেন, এখন আপনি বাগের হাটে ২ ভাবে যেতে পারেন। লোকাল বাসে , এজন্য আপনাকে সোনাডাঙ্গা বাস স্ট্যান্ড এ যেতে হবে, সেখান থেকে সরাসরি বাগের হাটের বাস পাওয়া যায়। টিকেটের মুল্য ৬০ টাকা। আর যদি আওপ্নি একটু আরামে যেতে চান তাহলে মাইক্রো বা প্রাইভেট কার যেতে পারেন মাত্র ২০০০ থেকে ৩০০০ টাকায় সারাদিনের জন্য। এজন্য আপনাকে যেতে হবে ময়লা পোতার মোড়ে। খুলনা থেকে বাগের হাটের দুরত্ব মাত্র ৩০ কিলো, আর রাস্তাটাও চমৎকার। যাওয়ার পথে রূপসা ব্রিজে নামতে পারেন, ভালো লাগবে।

ষাট গম্বুজ মসজিদঃ
খুলান থেকে আসতে সময় লাগলো মাত্র ৩৫ মিন, আমরা প্রথমে খান জাহান আলীর মাজার আর দিঘী দেখতে চলে গেলাম। মসজিদ ছাড়িয়ে যেতে হয়। মাজারে তেমন দেখার কিছু নাই, শুক্র বার না যাওয়াটাই ভালো, এত ভীড় থাকে যে যায়গাটার সৌন্দর্য নস্ট করে দেয়। আর এদিক থেকে কোন এক মাতাল মুরিদ মাইকে করে চিল্লাতে থাকে ” মানত দেন… গরু খাশি আনলে এখানে দিন…।” যাই হোক এসব না দেখে আপনি শান্তির জন্য চলে যেতে পারেন মসজিদ কমপ্লেক্সে। মসজিদ এর পিছনে আছে গোরার

দিঘী, দিঘির পাশে বসার যায়গা করে রাখা আছে, সেখানে বসে থাকলেও আপনার মধ্যে শান্তির অনুভূতি চলে আসবে।

এরপর চলে যেতে পারেন মিউজিয়ামে, মসজিদ কমপ্লেক্সের ভিতরেই। তবে দয়া করে ভিতরে কোন ছবি উঠাবেন না।

দুপুরের পরে যদি আপনি ব্যাক করেন তাহলে #চন্দ্রমহল যেতে পারেন। অনেকেই আবার বলে যে চন্দ্র মহল তেমন দেখার কিছু নাই, কৃত্রিমতাই ভরপুর, আমি যদিও যাইনি।

অথবা চলে যেতে পারেন মংলায়। রাতে থাকতে হলে অবশ্যই আগে থেকে হোটেল বুক করে রাখবেন।

আর যদি খুলনা ব্যাক করতে চান তাহলে রূপশায় নেমে খুলনার সূর্যাস্ত দেখতে পারন।
ধন্যবাদ। হ্যাপি ট্রাভেলিং।

আমার করা ভিডিও টি দেখতে এখানে ক্লিক করুন

১টি মন্তব্য “বাগের হাট আর ষাট গম্বুজ মসজিদ ভ্রমণ”

মন্তব্য করুন

দয়া করে বাংলায় মন্তব্য করুন। ইংরেজীতে প্রদানকৃত মন্তব্য প্রকাশ অথবা প্রদর্শনের নিশ্চয়তা আপনাকে দেয়া হচ্ছেনা।