ম্যাক্সিস এফসি ম্যানেজার: এবারো কি শিরোপা ঘরে তুলবে সিসিবি?

এহসান ভাইয়ের কল্যাণে ব্লগের সবাই এখন মোটামুটি ফ্যান্টাসি ফুটবল ব্যাপারটার সাথে পরিচিত। অনেকেই ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগের ওয়েবসাইটে ফ্যান্টাসি টিম সাজিয়ে ফেলেছেন। জনপ্রিয় স্পোর্টস চ্যানেল ইএসপিএন স্টারস্পোর্টস ও তাদের ওয়েবসাইটে এমন একটি প্রতিযোগিতা আয়োজন করে থাকে, যেটিতে ইতোমধ্যে বেশ কিছু বাংলাদেশী তাদের ক্ষুরধার ফুটবল মস্তিষ্কের প্রমাণ দিয়েছেন 😛

বিস্তারিত নিয়মাবলী এইখানে //footballfantasy.espnstar.com/default.aspx?page=rules

এবারের প্রতিযোগিতার সবচেয়ে বড় ব্যাপার হল গতবারের তুলনায় প্রাইজ মানি বেড়েছে কয়েকগুণ। সারা বছরের সর্বোচ্চ পয়েন্ট অর্জনকারী তিনজন ম্যানেজার পাবেন যথাক্রমে ৭৫০০, ২৫০০ এবং ১০০০ ডলার।

দুইভাগে ভাগ হওয়া দুই ‘হাফ সিজন’ এর বিজয়ী আর জানুয়ারি থেকে সব রেজিস্টার্ড টিম নিয়ে শুরু হওয়া নকআউট কাপের বিজয়ী প্রত্যেকে জিতবে ২৫০০ ডলার।

এছাড়া পুরো সিজনকে ভাগ করা হয়েছে ছোট ছোট নয়টি ভাগে, প্রত্যেক ভাগের বিজয়ী পাবেন ১০০০ ডলার করে।

পাশাপাশি থাকছে বছরের সেরা লিগের প্রাইজ ৫০০০ ডলার, যেটা ওই লিগের ম্যানেজারেরা নিজেদের মধ্যে ভাগ করে নেবেন। সিসিবির একটা চান্স আছে কি বলেন?

প্রাইজের বিস্তারিত এইখানে //footballfantasy.espnstar.com/default.aspx?page=prize

ফ্যান্টাসি ফুটবল নিয়ে আমি কিছু লিখলেই ফয়েজ ভাই মাইনাস দিয়ে বসেন টিপস না থাকার জন্য। এই পোস্টে কিছু টিপস দিব, তার আগে বেসিক কিছু জিনিস বলে নেই।

প্রত্যেক প্রতিযোগীকে ১৬০ মিলিয়ন পাউন্ডের একটি ভার্চুয়াল বাজেট দেওয়া হয়, যা দিয়ে তাকে ১৬ জনের একটা দল বানাতে হয়। তবে প্রিমিয়ার লিগের কোনো দল থেকে সর্বোচ্চ তিনজনের বেশি খেলোয়াড় নেওয়া যায় না। একজন ফ্যান্টাসি ম্যানেজারের সাফল্য নির্ভর করে তূলনামূলকভাবে কম দামি খেলোয়াড় নির্বাচনের ওপর। ১৬ জনের ভার্চুয়াল এ দলটির আক্রমণভাগের খেলোয়াড়রা বাস্তবে খেলায় যখন গোল করেন অথবা রক্ষণভাগের খেলোয়াড়রা যখন ক্লিনশিট রাখেন তখন যেমন পয়েন্ট পান ফ্যান্টাসি ম্যানেজাররা, তেমনিভাবে পয়েন্ট হারান তারকারা যখন হলুদ কার্ড বা লাল কার্ড দেখেন মাঠে।

টিপস

১। ১৬ জনের মাঝে ১৫ জন (ম্যানেজার বাদে) যেন নিয়মিত মাঠে নামা খেলোয়াড় হন সে দিকে নজর দিতে হবে।

২। মধ্যম সারির দলগুলো থেকে ম্যানেজার নেয়া ভাল, কারণ ম্যানেজার দল জিতলে +৫ বেশি দেয় না।হেরে গেলে -২ আর ড্র হলে +২। বেস্ট অপশন – মার্টিন ও’নিল।

৩। গোলকিপার কমদামী নিলে বেশি দামী মিডফিল্ডার অথবা স্ট্রাইকার নেয়া যায়। আর যেহেতু প্রতি গোলের জন্য -২, ১০ মিলিয়ন দিয়ে চেক বা রেইনা কে নিলে তার দল যদি ২-১ গোলেও জেতে ৩ এর বেশি পয়েন্ট পাবে না। আবার ৪-৪ ড্র হলে এত দামী কিপার পাবে -৫। তাই আমি নিজে ৩.৫ মিলিয়নের দুইজন গোলরক্ষক নেয়ার পক্ষপাতী, যারা কোন পয়েন্ট দিবে না, কিন্তু মাইনাস ও খাবে না। যদিও আমার গুরু জাহিদ ভাই বিসিসি (৯৩-৯৯) এই ধারণার পরিপন্থী।

৪। বেস্ট ফর্মেশন ৫-৩-২। অন্য ফর্মেশনে টিম সাজাতে গেলে বাজেটে কুলায় না।

৫। স্কোরিং ডিফেন্ডার নেয়া ভাল, যেমন কোল, ভারমেলেন অথবা যারা গোল বানায়ে দেয়, যেমন বেইনস, জনসন।

৬। ধরে নেই ৫-৩-২ ফর্মেশনে খেলা কারো দলে তিনজন স্ট্রাইকার – ডিফো, রুনি আর তেভেজ। এখন রাত নয়টায় ডিফো আর রুনির খেলা আর রাত এগারটায় তেভেজের খেলা। প্রশ্ন জাগতে পারে তাহলে তিনজন কিভাবে পয়েন্ট পাবে। এখানে নয়টার খেলা শুরু হওয়ার পর (১৫-২০ মিনিট পর) ডিফোকে বাহিরে নিয়ে তেভেজ কে তার খেলা শুরুর আগে মেইন টিমে নিয়ে আনলেই তিনজন স্ট্রাইকারই পয়েন্ট পাবে। এটা সব পজিশনের জন্য প্রযোজ্য।

আরেকটা ব্যাপার — একজন সর্বোচ্চ ২৫ টা টিম বানাতে পারবে।

চলেন সবাই টিম বানাই। তার আগে রেজিস্ট্রেশন করি এইখানে //www.espnstar.com/games/register/?url=http%3a%2f%2fwww.espnstar.com%2fgames%2ffcmanager

১,২৮৯ বার দেখা হয়েছে

২০ টি মন্তব্য : “ম্যাক্সিস এফসি ম্যানেজার: এবারো কি শিরোপা ঘরে তুলবে সিসিবি?”

  1. ফয়েজ (৮৭-৯৩)

    মারাত্মক পোস্ট :thumbup:

    স্টিকি করা হোক, আর সিসিবির যেই প্রাইজ মানি জিতবে, সিসিবি ফান্ডের জন্য তার কাছ থেকে ১০% কেটে রাখার জোর দাবী জানাই।

    ছয় নম্বর বুঝি নাই, ডিফোরে নামাই যদি তেভেজ রে খেলাই আর দুইজনের পয়েন্টই যদি কাউন্ট হয় তাইলে তো ১২ জন প্লেয়ার হই গেল, 😕


    পালটে দেবার স্বপ্ন আমার এখনও গেল না

    জবাব দিন
  2. হাসান (১৯৯৬-২০০২)
    আর সিসিবির যেই প্রাইজ মানি জিতবে, সিসিবি ফান্ডের জন্য তার কাছ থেকে ১০% কেটে রাখার জোর দাবী জানাই।

    সহমত 🙂

    ছয় নম্বর বুঝি নাই, ডিফোরে নামাই যদি তেভেজ রে খেলাই আর দুইজনের পয়েন্টই যদি কাউন্ট হয় তাইলে তো ১২ জন প্লেয়ার হই গেল,

    শুধু ১২ জন না তো, হিসেবে ১৬ জনই পয়েন্ট দিবে, :just: শাফল করতে হবে। যার খেলা, তাকে খেলা শুরু আগে মেইন ইলেভেনে রাখলেই হবে

    কমেন্টের জন্য ধন্যবাদ ফয়েজ ভাই 🙂

    জবাব দিন
  3. আহসান আকাশ (৯৬-০২)

    টিম বানাইতে গিয়ে হাবুডুবু খাচ্ছি... তবে নিয়মিত ম্যাচ ডে তে খেলা ফলো করা কষ্ট হয়ে যাবে।


    আমি বাংলায় মাতি উল্লাসে, করি বাংলায় হাহাকার
    আমি সব দেখে শুনে, ক্ষেপে গিয়ে করি বাংলায় চিৎকার ৷

    জবাব দিন
  4. তানভীর (৯৪-০০)

    ধুর! টাকায় মিলাইতে পারি না! এবার থেকে আর ফ্যান্টাসি ফুটবলই খেলু্ম না!!

    চিন্তা কইরা দেখলাম, কোন বড় প্লেয়ার নেয়া যাবে না- সব মিডিয়াম ক্যাটেগরীর প্লেয়ার নিতে হবে। 🙁

    জবাব দিন
  5. কামরুল হাসান (৯৪-০০)

    ম্যাক্সিসে সুবিধা অসুবিধা দুইটাই আছে। আমার সবচেয়ে বিরক্ত লাগে এদের সাইটটা। প্লেয়ার সিলেক্ট করতে গেলে নানান কাহিনী করতে হয়। কিন্তু প্রাইজ মানি গুলি এত লোভনীয় যে না খেইলা থাকা যায় না। আর চোখের সামনে গতবারের বিজয়ী হাসান তো আছেই।

    আমিও টিম করছি। আপাতত একটা। তবে ভবিষ্যতে আরো বাড়াবো। যেভাবেই হোক জিততে হবে।

    যারা যারা যোগ দেন নাই, যোগ দেন। মজা হবে।

    ফাহিম পোলাডা কই? ওরে অনেকদিন সিসিবিতে দেখি না। ফুটবল নিয়া কথাবার্তা চলতেছে, অথচ ও নাই। 🙁

    হাসান টিপস ভালো ছিল। তবে শুধু এতে হবে না, আরো চাই। লিগ শুরু হওয়ার আগে যতদিন বাকি আছে, ম্যাক্সিস আর প্রিমিয়ার লিগ দুইটা নিয়াই আলোচনা হোক। ফুটবল পাগলরা কে কী ভাবতেছে শুনি।,


    ---------------------------------------------------------------------------
    বালক জানে না তো কতোটা হেঁটে এলে
    ফেরার পথ নেই, থাকে না কোনো কালে।।

    জবাব দিন
    • হাসান (১৯৯৬-২০০২)

      ভাই ১৪ তারিখের আগেই টিম বানায়ে ফেলেন, না হলে পিছায়ে যাবেন। আর লিগ অব লিগসে তো টোটাল পয়েন্টই হিসাব হবে, তাই লিগ শুরু হওয়ার আগেই টিম গুছায়ে নেন।

      ভাই অনেক আশা কইরা পোস্ট দিছিলাম, কেউ দেখি কিছু কয় না 🙁 লোকজন আরো বেশি অংশগ্রহণ করবে ভাবছিলাম

      এহসান ভাইরেও দেখি না অনেকদিন

      জবাব দিন
  6. হাসান ভাই আপনার পোষ্ট পড়ে টিম করলাম। তবে কয়েকটি প্রশ্ন আছে...
    ১. আমার একাধিক টিমের সবগুলোই কি প্রতিযোগিতায় কাউন্ট হবে? নাকি
    যে কোন একটা টিম ।
    ২.ধরেন এক ম্যাচে টিম ৭-৩ গোলে জিতল তাহলে কি গোলির পয়েন্ট -১ ই হবে ? এতো বড় ব্যাবধানে জিতার জন্য কোন লাভ নাই??? 🙁
    আর লাষ্ট ভাই টিমের ব্যাপারে কমেন্ট করেন
    ৩.৫ মিলি গোলি
    B. Sagna-G. Johnson-B. Ivanovic-D. Agger-T.Vermaelen;
    J. Milner F. Lampard(c) J. Gutiérrez;
    D. Drogba D. Bent;
    Reserve:৩.৫ মিলি গোলি-৩.৫ মিলি ডিফেন্ডার-S. Husband(BPL)-D. Campbell(BPL)

    জবাব দিন
    • হাসান (১৯৯৬-২০০২)

      হ্যাঁ, দল ৭-৩ গোলে জিতলে একজন গোলকিপার ৯০ মিনিট খেলার জন্য পাবেন ২ পয়েন্ট + দল জেতার জন্য ৩ পয়েন্ট = মোট ৫ পয়েন্ট। আর ৩ গোল খাওয়ার জন্য পাবেন -৬। তাহলে ম্যাচে তার অর্জিত পয়েন্ট হবে -১।

      ৩.৫ মিলিয়নের দুইজন গোলরক্ষক নেয়া ঠিক আছে, কিন্তু অন্য পজিশনে এমন করলে চলবে না। আপনি মিলনারের জায়গায় বোল্টনের পেট্রভ বা টেইলর অথবা উইগানের এনযোগবিয়া কে নিতে পারেন, যে ৪ মিলিয়ন বাঁচবে সেটা দিয়ে উলভসের ডিফেন্ডার বেরা কে নিলেন আর স্ট্রাইকার নিলেন কেভিন ডয়েলকে।

      সানিয়া কিংবা আ্যগার এরা কিন্তু মাঝে মাঝেই মূল একদাশে থাকেন না, এদের জায়গায় আপনি ক্লিশি বা ক্যারাঘার যারা রেগুলার তাদেরকে নেয়া বেটার।

      তবে নেক্সট খেলায় প্রথম দুইজন গোল দিয়ে বসলে কিন্তু আমার দোষ নাই 😛

      কোন কলেজ আর ব্যাচ উল্লেখ থাকলে ভালো হয়।

      জবাব দিন

মন্তব্য করুন

দয়া করে বাংলায় মন্তব্য করুন। ইংরেজীতে প্রদানকৃত মন্তব্য প্রকাশ অথবা প্রদর্শনের নিশ্চয়তা আপনাকে দেয়া হচ্ছেনা।