যাচ্ছে জীবন – ৫

আজকে সিসিবি তে এসে অবাক হয়ে গেছি। একবার ভাবলাম যে কোন ঝামেলা হইছে নাহলে কিভাবে এত্তো জন পুরান ব্লগার এক সাথে লেখা দিয়েছে। দুই তিন বার ভালো করে দেখলাম তারিখ ঠিক আছে কিনা। যাইহোক সব ঠিকঠাক আছে। তার একটু পরে দেখি ফেসবুকে আমার ইনবক্স এ দাশুর চিঠি ‘একটা লেখা দেন সিসিবিতে’, তখন বুঝলাম এই কারবার।

সিসিবি প্রতিদিন আসা হয় কিন্তু মিড লাইফ ক্রাইসিস চলতেসে ইদানিং কালে, কারো লেখা পড়ে ভালো লাগলেও কমেন্ট করা হয়ে উঠে না। কিন্তু বাকীদের কি হইছে?
প্রিন্সিপ্যাল স্যারের কঠোর হাতে ব্লগের ডিসিপ্লিন ঠিক করা দরকার। নিয়ম করে দেওয়া হোক সবাইরে মাসে একটা লেখা দেওয়া লাগবেই। ফয়েজ ভাই অবশ্য আপাতত ওই নিয়মে পরবে না কারণ উনি ফ্যান্টাসী প্রিমিয়ার লিগ নিয়ে বহুত চিন্তায় আছেন, একই কারণে এহসান ভাইও বাদ (লোকটা আটটা টিম চালাচ্ছে লীগে)।

যাইহোক দোয়েল ল্যাপটপ বানানো নাকি বন্ধ হয়ে গেছে, কি ঘটা করে না দোয়েল ল্যাপটপের উদ্বোধন হয়েছিল। বাংলাদেশের ঘরে ঘরে নাকি দোয়েল থাকবে, প্রতিটা শিশুর হাতে দোয়েল থাকবে। তো সিসিবি আশা করা যায় এরকম একদিন সরগরম হয়ে আবার মুখ থুবড়ায়ে যাবে না। নাহলে রকিব আছে চা দিয়ে আবার সিসিবি গরম করে দিবে। কাইয়ুম, কামরুল, রবিন রা ফ্রিজে মিস্টি খুজতে যাবে। মাহমুদ, আন্দালিবের লেখা পড়ে আমার মাথার ডিশ এন্টেনা ঠিক করব। সামিয়া কাউকে বোমা মেরে দিবে। রাব্বীর কাছে অটোয়ার খবর পাওয়া যাবে। নতুন কোন ব্লগারের লেখা পড়ে কলেজের অনেক ঘটনা মনে পড়ে যাবে।
(ওহ বাজারে খুব শীঘ্রই দোয়েলের ট্যাবলেট পিসি আসতেছে। আমদের টেলি যোগাযোগ মন্ত্রীর মতে ল্যাপটপ এখন মান্ধাতা আমলের যন্ত্র)

পুনঃশ্চ – শেষে একটা গান হয়ে যাক

৭২০ বার দেখা হয়েছে

৩২ টি মন্তব্য : “যাচ্ছে জীবন – ৫”

  1. কামরুল হাসান (৯৪-০০)

    বস, আপনার প্রোফাইলে কি কেকের ছবি? খিদা লাগে তো 😛


    ---------------------------------------------------------------------------
    বালক জানে না তো কতোটা হেঁটে এলে
    ফেরার পথ নেই, থাকে না কোনো কালে।।

    জবাব দিন
  2. জিহাদ (৯৯-০৫)

    সেই বান্ধা গরুটার খবর কী? দড়ি কি একটু লুজ হইসে, নাকি আগের মতই টাইট আছে 😛
    লুৎফর রহমান রিটন - কে দেখলেই আমার খালি আপনার কথা মনে পড়ে 😀


    সাতেও নাই, পাঁচেও নাই

    জবাব দিন
  3. ফয়েজ (৮৭-৯৩)

    কেমন আছো সামি?

    ১। মিড লাইফ ক্রাইসিসে আছি, আগে চাকুরী করতাম, এখন নানান ঘাট ঘুরে ব্যবসার ধান্ধায় আছি, বাসা শিফটিং, বাচ্চার স্কুল ভর্তির টেনশন নানান ঝামেলা।

    বাদামতলী থেকে বাংলামোটর অনেক দূরের রাস্তা।

    ২। একটা সময় মনে হল, আমার লেখাগুলো টাইপড হয়ে যাচ্ছে, প্যাটার্ন চেঞ্জ করতে গিয়ে দেখলাম, আমার আরও সাহিত্য পড়া দরকার। বই পড়তে গিয়ে দেখি, পড়াটা লেখার চেয়েও কস্টকর।

    লিখতে পারছিনা, কারন পড়ছিনা, পড়ছিনা তাই লেখাগুলো এগুচ্ছে না, লুপবদ্ধ জীবন।

    ছোটগল্প লিখতে চাই অনেক, সিসিবি-প্রকাশনী থেকে বই বের হবে আমার, ফেসবুকে ঝুলবে সে বইএর প্রচ্ছদ,

    কবে যে আসবে সেইসব দিন 😀 (সম্পাদিত) (সম্পাদিত)


    পালটে দেবার স্বপ্ন আমার এখনও গেল না

    জবাব দিন
  4. রাজীব (১৯৯০-১৯৯৬)

    গানটা সুন্দর। আমার মেয়ে আমার হাত থেকে আই প্যাড নিয়া দেখা শুরু করলো। তারপর দেখা শেষ করে বলে, এটা কি বাজে গান দিয়েছো।
    ১৬ তারিখ ফ্রি আছিস?
    বাসায় আসিস।
    কল করবো।


    এখনো বিষের পেয়ালা ঠোঁটের সামনে তুলে ধরা হয় নি, তুমি কথা বলো। (১২০) - হুমায়ুন আজাদ

    জবাব দিন

মন্তব্য করুন

দয়া করে বাংলায় মন্তব্য করুন। ইংরেজীতে প্রদানকৃত মন্তব্য প্রকাশ অথবা প্রদর্শনের নিশ্চয়তা আপনাকে দেয়া হচ্ছেনা।