রাতলিপি ৪

কালু জনসন, তার নামের কারনেই পত্রিকার খেলার পাতায় নামটা কয়েকবার দৃষ্টি আকর্ষন করেছিল। তবে আজকের জন্য সে আমার ফেভারিট ফুটবলার। কেন? বাংলাদেশ লীগে ফরাশগঞ্জের হয়ে খেলতে আসা এই নাইজেরিয়ানের দুই গোলের সুবাধে শিরোপা প্রত্যাশী(কয়েক বছর যাবত :grr: ) মোহামেডানের সাথে ২-২ গোলে ড্র করেছে ফরাশগঞ্জ। এ জয়ের ফলে ফরাশগঞ্জের খুব বেশি লাভ ক্ষতি না হলেও মোহামেডানের বেশ বড় ক্ষতি হয়ে গিয়েছে। এর ফলে চিরপ্রতিদ্বন্দী এবং গতবারের চ্যাম্পিয়ন আবাহনী থেকে তারা ৬ পয়েন্ট পিছিয়ে পড়ল। ১৯ ম্যাচ শেষে আবাহনীর পয়েন্ট ৫৫ আর মোহামেডানের ৪৯। লীগে আরো ৫ ম্যাচ খেলবে দুই দল। মোহামেডানের সমর্থকেরা(যাদের অনেকেই নাকি খেলা শেষে খেলোয়ারদের প্রতি ইটাবৃষ্টি বর্ষন করেছে) এখনো শিরোপার স্বপ্ন দেখতে পারে… তাদের জন্য শুভকামনা রইল।

kalu

চ্যাম্পিয়ন্স লীগের ফাইনালে এবার মুখোমুখী হচ্ছে বায়ার্ন মিউনিখ আর ইন্টার মিলান। মৌসুমের শুরুতে এমনকি কোয়ার্টার ফাইনাল পর্যন্ত এসেও খুব কম লোকই ধারনা করে ছিল শেষ পর্যন্ত এরা ফাইনালে খেলবে। আজকের বার্সিলোনা আর ইন্টার মিলানের খেলা ফুওটবলীয় দিক থেকে খুব একটা মা সম্মত মনে হয় ছিল না। অনেকদিন পরে আমি মনে হয় পুরো নিরপেক্ষ ভাবে একটা ফুটবল ম্যাচ দেখলাম। কোন দলকেই সেভাবে সাপোর্ট করতে পারছিলাম না। তবে ইন্টার জেতায় খুশীই হয়েছি বলা যায়। এমনিতেও আগে থেকেই আমি মোরিনহোর ফ্যান। তার উপর বার্সিলোনা বিশেষ করে মেসিকে নিয়ে যে হাইপ তৈরী হয়েছিল তা কিছুটা হলেও কমবে। আজকে বার্সিলোনার খেলা দেখে আমার বারবার আর্সেনালের কথাই মনে পড়েছে, ম্যাচের প্রায় ৭৫% পযেসন, ০% ক্রিয়েটিভিটি। আবারো মেসিকে আটকে রাখতে সক্ষম হয়েছে মোরিনহো। আসলে মেসির মেসীয়(অতিমানবীয়!) টাইপ পারফর্মেন্সের জন্য দরকার প্রতিপক্ষ হিসেবে আর্সেনালের মত ওপেন ফুটবল স্টাইল। রেফরির বেশ কিছু সিদ্ধান্ত নিয়ে অনেক বিতর্ক অপেক্ষা করছে, মোটার লালকার্ড ছিল কিনা, পিকে’র গোল অফসাইড ছিল কিনা, বোজানের বাতিল হওয়া গোলের আগে হ্যান্ডবল ছিল কিনা ইত্যাদি ইত্যাদি, কিন্তু শেষ কথা হচ্ছে বার্সিলোনা বিদায় নিয়েছে সেমিফাইনাল থেকে, আশা করি এবার তারা লা লিগা প্রতি দৃষ্টি দেবে আর রিয়ালকে আরো এক বছর শিরোপা থেকে দূরে রাখতে পারবে। তবে পুরো খেলায় সবচেয়ে উপভোগ করেছি ম্যাচ শেষে মোরিনহোর সেলিব্রেশন। অপেক্ষায় আছি মোরিনহো কবে আবার ইংলিশ প্রিমিয়ার লীগে ফিরে আসবে।
Capture

যারা কোটিপতি হবার স্বপ্ন দেখছে তাদের জন্য একটা সুখবর। ইন্ডিয়ান চ্যানেলে অমিতাভ বচ্চন বা শাহরুখের কৌন বানেগা কৌড়পতি দেখে যারা সুযোগের জন্য আফসোস করেছেন তাদের জন্য এদেশেই এবার আয়োজিত হতে যাচ্ছে কে হতে চায় কোটিপতি, বিস্তারিত এখানে

শুভেচ্ছা।

৫৬৯ বার দেখা হয়েছে

৪ টি মন্তব্য : “রাতলিপি ৪”

  1. রিফাত (২০০২-২০০৮)

    ভাই, কালকের ম্যাচ দেখে আমার একটা কথাই...মনে হচ্ছিল যে মাঠে গোল -পোস্ট ১ টা.....কলেজে আমরা মাঝে মাঝে প্লেয়ার কম হলে এই টাইপ(১ পোস্ট )..খেলা খেলতাম!!!....তয় ইন্টার ফাইনালে যাওয়ায় অনেক খুশি হইছি......

    জবাব দিন

মন্তব্য করুন

দয়া করে বাংলায় মন্তব্য করুন। ইংরেজীতে প্রদানকৃত মন্তব্য প্রকাশ অথবা প্রদর্শনের নিশ্চয়তা আপনাকে দেয়া হচ্ছেনা।