আবেগ !!!!!!

কলেজে আমাদের ব্যাচে বিশেষ বিশেষ পরিস্থিতির জন্য নির্ধারিত কিছু ডায়লগ ছিল । ডায়লগ গুলির নাম আবেগ হয়ে যায় বাক্যগুলোর উচ্চারনে ক্যাডেটিয় ঢং এবং নাটকীয় সুরের জন্য । পুরো বিষয়টি আমদের অসীম হাস্যোজ্জল বিক্রিয়ায় উচুমানের প্রভাবক হিসেবে কাজ করত । কিছু পরিস্থিতি ও আবেগ নিচে উল্লেখ করছি , আমি নিশ্চিত পাঠকগন নিজ অন্তর্নিহিত ক্ষমতা বলে যথাযথ সুর ও ঢং সংযোগ করে নিতে পারবেন ।

০১। ছুটি শেষে দেখা হলে কেমন আছিস দোস্ত জিজ্ঞেস করলে

ইইহ…লুংগির আবার চেইন , এই আছি গিট্টু মাইরা ।

০২। আস্চর্যজনক কিছু হঠাৎ সামনে আসলে

ও খালা…… এডো কি ।

০৩। দুর্বোধ্য সমস্যার আচমকা সমাধান এলে

তাইতো কই , মুরগি পানি খায় মুতে না ক্যান ।

০৪। কঠিন কোনো বিষয় কে কেউ সহজ বলে চালানোর অপচেস্টা করলে তাকে ব্যাঙ্গ করে

ঘনই এত ফাক, ফাক না জানি কত ফাক ( এই উক্তির মুল স্রস্টা জনৈক স্টাফ ) ।

০৫। আচমকা অতি উদ্দমী কারো উদ্যমের কারন জানতে চাইলে

ওর কারেন্ট বেশি হয়া বালে বালে স্পার্ক করতাছে ( বোধহয় হাল্কা স্ল্যাং হয়ে গেল ) ।

০৬। অতিরিক্ত লেট করে শেষ মুহুর্তে শাস্তি ছাড়া জয়েন করার পর বুক ফুলিয়ে

তগো কইছি না , বেশি লেট লেট না…।

০৭। অসময়ে অপ্রোয়জনীয় কঠিন কাজ শুরু করলে

হুহ , ভাত পায়না আবার চা খায় ( এটা সত্যি প্রচলিত কোন প্রবাদ হতে পারে ) ।

এই মুহুর্তে আর মনে পরছেনা……।

২,৩৪০ বার দেখা হয়েছে

৩৪ টি মন্তব্য : “আবেগ !!!!!!”

  1. মাসরুফ (১৯৯৭-২০০৩)

    তৌহিদ ভাই, সেইরকম হইছে।

    অফ টপিকঃ ভার্সিটিতে এই ডায়ালগ গুলা প্রচলিত করার সর্বস্বত্ত পাওয়া যায় কেমনে এট্টু কয়া দিয়েন।সর্বাধিকারী মাইন্ড না খাইলে বড়ই প্রীত হইতাম। এই উক্তিগুলা গ্রাম বাংলাস শাশ্বত সম্পদ,অনাদরে জীর্ণ এ সম্পদগুলো তথাকথিত "ইয়ো ম্যান ওয়াসসাপ" অথবা "হোলি কাউ" ধরণের আজাংরা সংলাপের পরিবর্তে ব্যভার করে দেশীয় ঐতিহ্য রক্ষার আবেদন জানাই।

    জবাব দিন
  2. সায়েদ (১৯৯২-১৯৯৮)

    তৌহিদ,
    ভাই এ তুমি কি দেখাইলা? এ তো ভানুমতির খেল, এ তো ইন্দ্রজাল.... :)) ।

    তাইতো কই , মুরগি পানি খায় মুতে না ক্যান ।
    ঘনই এত ফাক, ফাক না জানি কত ফাক ( এই উক্তির মুল স্রস্টা জনৈক স্টাফ ) ।

    হাসতে হাসতে খুন কইরা ফালাবা নাকি =)) =)) ?
    খুব ভালো হইছে :clap: । চালায়া যাও।
    পুনশ্চ: স্টাফদের (কলেজ+বিএমএ) কথাবার্তা নিয়ে রীতিমত আলাদা ভলিউম বের করা সম্ভব।


    Life is Mad.

    জবাব দিন
  3. আগে গুল্লি মাইরা লই। তারপর কমেন্ট দিমু। :gulli: :gulli: :gulli: :gulli: :gulli: :gulli:
    হাসতে হাসতে কেলেঙ্কারি কইরা ফালাইছি। ফোনে কথা বলতেছিলাম আর লেখাটা পড়তেছিলাম।ওই পাশে ছিল এক মেয়ে(গার্লফ্রেন্ড না)। অরে বইলা ফালাইছি-ঘনই এত ফাক, ফাক না জানি কত ফাক।
    এখন আমার কি হবে?

    জবাব দিন
    • তৌহিদ (৯৫-০১)

      বাংলা সিনেমায় !!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!
      একটু কেমন লাগলো যেন ,
      আমার কাছে এর চেয়ে মনো্মুগ্ধকর একটা কল্পনা হছ্ছে , আমি ঢাকার কোন এক ডাস্টবিনে বসে লাঞ্চ করছি । মনে কিঞ্চিত ব্যাথা পাইলাম...... 🙁 🙁 🙁 🙁 🙁 🙁 🙁 🙁 🙁 🙁 🙁 🙁 🙁 🙁 🙁 🙁 🙁 🙁 🙁 🙁 🙁 🙁 🙁 🙁 🙁 🙁 🙁 🙁 🙁 🙁 🙁 🙁 🙁 🙁 🙁 🙁

      জবাব দিন
  4. আহ্সান (৮৮-৯৪)

    রুমে একা একা লেখাটা পড়লাম। কঠিন মজা পাইছি...। এরপরে কমেন্টগুলো পড়া শুরু করলাম। একেকটা কমেন্ট পড়ি আর অট্টহাসিতে ফেটে পড়ি...। আশে পাশের রুম থাইক্কা লোকজন দৌড়াইয়া আসলো...। তাগোরেও পড়াইলাম...। এইবার তো পুরা মেস উইড়া যাওনের মত অবস্থা হাসির দমকে...।

    উফফফফফফসসসসসস...তোমরা মিয়া একেকজন কঠিন জিনিয়াস...।

    তৌহিদ,
    অসাধারণ হইছে লেখাটা...। চালাইয়া যাও...।

    জবাব দিন

মন্তব্য করুন

দয়া করে বাংলায় মন্তব্য করুন। ইংরেজীতে প্রদানকৃত মন্তব্য প্রকাশ অথবা প্রদর্শনের নিশ্চয়তা আপনাকে দেয়া হচ্ছেনা।