আমার প্রেমিকারা-১০

মেয়ে পটাতে আমার গুরুর উপদেশ শিরোধার্য কারন তা পরীক্ষিতভাবেই অব্যর্থ। তিনি আমাকে সবসময়ই উপদেশ দিয়ে গেলেন-হয় টাকা খরচ কর তা না থাকলে সময় খরচ কর!এই দুই জিনিষ থাকলেই হবে,আর কিচ্ছু লাগবেনা।আমি বলি,গুরু বাদ আর রাখলেন কি?

তবে তাতে ঝুঁকি আছে ঢের, টাকা কিংবা সময় এই দুটোর বিনিয়োগই যে মুনাফার নিশ্চয়তা দেবে এমনটি কিন্তু নয়।সব বিনিয়োগের মত এটাও একি শর্ত মেনে চলে,মুনাফা প্রাপ্তির সম্ভাবনার আধিক্য যত বাড়বে,ঝুঁকি ও সমান তালে বেড়ে চলবে।

তাই নারী পটাতে দরকার বাড়ী,তবে তারচেয়ে ও আজকাল জরুরী হল একখানা গাড়ি। প্রেমিকাদেরই বা দোষ দেই কিভাবে?আজকাল রাস্তা-ঘাটের যে হাল,এই চাওয়া তো বিলাস নয় প্রয়োজনের তালিকায় জায়গা নিয়েছে।লোকে তাই বলে,গাড়ী থাকলে প্রেম করতে খুব সুবিধা।মেয়ে পটানো নাকি তখন হাতের মোয়া!

এই কথা ভুল প্রমান করতেই আমি বিশ্ববিদ্যালয়ের এক সুন্দরী সহপাঠীকে পটিয়েছি।কাকতালীয় ভাবে আমাদের দুজনের বাসা একই পাড়ায় যা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বেশ কাছে যার জন্য গাড়ী নয় রিকশা করেই আসা যায়।প্রেমের আকূলতা প্রকাশ করতে গিয়ে প্রথমেই দ্বারস্থ হয়েছিলাম সুনীল গাঙ্গুলীর।ওকে বলেছি-তোমার জন্য সব করতে পারি?ও বলল, সে আবার কেমন?আমি বলি,পুরো বিশ্বসংসার তন্ন তন্ন করে এনে দিতে পারি ১০৮টা নীল পদ্ম।ও তখন মুচকি হেসে বলে,ও পদ্ম-ফদ্মে আমার আগ্রহ নেই,আপাতত আমাকে রোজ রিকশা করে বাসায় পৌছিয়ে দিলেই হবে!
সেই থেকে আমাদের একসাথে রিকশায় আসা-যাওয়া।একই পাড়ায় বাসা,তাতে সুবিধেই হল। মনের সুখে প্রেম করি আর চোখে আঙ্গুল দিয়ে তখন আমার নিন্দুকদের দেখিয়ে বলি,ব্যাটারা দ্যাখ,গাড়ী ছাড়াও প্রেম হয়।
তবে আসল ঘটনাটি ঘটেছে অনেক পরে।আমাদের বিশ্ববিদ্যালয় জীবনের সমাপ্তির সাথে সাথে আমার প্রেমিকার ও তখন আমার প্রয়োজন ফুরিয়ে গেছে।কারন তখনই আমি বুঝতে পারলাম এখনতো আর বাড়ী ফেরার তাড়া নেই বরং বাড়ীওয়ালা কিংবা গাড়ীওয়ালা প্রয়োজন। তাই আমার মত রিকশাওয়ালা ছেড়ে তিনি এরপরে গাড়ীওয়ালা বাগিয়ে নিয়েছেন আর তাই দেখে আমার শুভাকাংখিরাও এখন আমায় নিয়ে হাসে!মনে মনে ভাবি,যাই হোক খালি রিকশা ভাড়ার উপর দিয়ে গেছে,ডিজেল আর সিএনজির উপর দিয়ে যায়নি!

তবে আজকাল আর কিছু ভাবতে হয়না,আমাদের সব ভাবনার গুরুদায়িত্ব নিয়েছে বহুজাতিক কোম্পানীগুলো আর তাদের বিজ্ঞাপনী সংস্থা।কিভাবে খাব,কিভাবে ঘুমাব,কি খাব,কি পরতে হবে,কি করতে হবে,কিভাবে রান্না করতে হবে,কিভাবে শহীদ মিনারে শ্রদ্ধা জানাতে হবে,কি গান শুনতে হবে এমনকি কিভাবে দেশকে ভালোবাসতে হবে তার দিকনির্দেশনা ও দিচ্ছে তারা।তার উপর দু-দিন বাদে একটা একটা করে দিবস বের করে বিজ্ঞাপনীয় ঘটা করে উদযাপন করা।এরপর মা দিবস,বাবা-চাচা দিবস,ভালোবাসা দিবস,শুয়ে পড়া দিবস,উঠে পড়া দিবস,তামাশা দেখার দিবস,এরকম নানা দিবস আসে,আর আমার প্রেমিকাদের দিবস উছিলায় উপহার দিতে দিতে পকেট ফাঁকা হয়ে পড়ছে।মনে হয় এই সব দিবসের আগে আমাদের কারো মা-বাবা,চাচা-মামা ছিলনা।আমরা ভালোবাসতে ও জানতামনা।এমনকি বিশ্ব হাত-ধোয়া দিবস ও আছে।আর ওদের ভাব দেখে মনে হয় যেন এই জীবনে এর আগে আমাদের কারো হাত ধোয়া হয়নি।ওরাই শেখাল আমাদের।আশঙ্কায় আছি,কদিন বাদে না যেন আবার আমার নামটা নিয়েও কিছু শুরু করে দেয় কিনা! এই যে আমার ‘রবিউল’ চাচার নাম ও ধার করে পেটেন্ট করে ফেলছে ওরা।

আমার এক বিলাত শিক্ষিতা প্রেমিকা আবার এরকমই এক সংস্থায় চাকুরী করে। ওই আমাকে বলে-‘দেখেছো এরেই বলে মার্কেটিং।কিভাবে বিপণন আর বাজারজাত করার জন্য বাজিমাত করে দিতে হয়।আসল কথা হল,ম্যাংগো-পাবলিককে খাওয়ানো’।আমি বলি-ব্যাপারটা এতই সোজা?ওর সাফ কথা-উঠতে বসতে খেতে ঘুমাতে চলতে ফিরতে এমন বিজ্ঞাপনের শক দিয়ে যাচ্ছি,পাবলিকের পালানোর পথ নেই!

আমি ওর মিষ্টি কথায় চিড়ে ভিজতে দেইনি,ওকে বলে দিয়েছি-

‘রবি রবি করে রব তুলে ভাবছো বৃহস্পতি এখন তুঙ্গে, নেটওয়ার্ক ঠিক করে কাস্টমারের মঙ্গল না হলে সব শুক্র বেরিয়ে শনির দশা হবে।তাতে লাভের আকাশে সোমের দেখা মিলবেনা,আর এটা বোঝার জন্য বুধ হবার প্রয়োজন নেই’।

৫,৩১৪ বার দেখা হয়েছে

৫১ টি মন্তব্য : “আমার প্রেমিকারা-১০”

  1. জুনায়েদ কবীর (৯৫-০১)

    মান্নাদা, বরাবরের মতনই জটিল লেখা... 😀

    বস আপনি প্রতি লাইনের পর একটা স্পেস দেন না কেন? আপনার মতন লোকেরাই রাজউক এর নিয়ম ভেঙ্গে রাস্তার জন্য জায়গা না ছেড়েই বাড়ি বানায়... 😛


    ঐ দেখা যায় তালগাছ, তালগাছটি কিন্তু আমার...হুঁ

    জবাব দিন
  2. আছিব (২০০০-২০০৬)

    মান্না ভাই,আপনার m@nna's লাভ কোচিং কেমন চলতেছে?ব্যবসায়িক স্ট্র্যাটেজি আপনি তো জটিল জানেন ভাই,শিজ্ঞিরি আপনার ব্যাপক প্রসার কামনা করছি,প্রচারটা না হয় আমরাই করলাম 😉 😛 :grr:

    এই কে আছিস জুনিওরেরা,শিজ্ঞিরি মান্না ভাই এর লাভ কোচিং এর জন্য প্রচারে নাইমা যা,ফ্রী ফ্রী ফিল্ডিং মারার সুযোগ পাবি :grr:
    আমি এসব থেকে তফাতে আছি আজকাল :shy:

    ভাই......আমার প্রেমিকারা-১০০ পড়ার স্বপ্ন দেখতেছি :dreamy: :boss:

    জবাব দিন
  3. মামুন (০০-০৬)
    ‘রবি রবি করে রব তুলে ভাবছো বৃহস্পতি এখন তুঙ্গে, নেটওয়ার্ক ঠিক করে কাস্টমারের মঙ্গল না হলে সব শুক্র বেরিয়ে শনির দশা হবে।তাতে লাভের আকাশে সোমের দেখা মিলবেনা,আর এটা বোঝার জন্য বুধ হবার প্রয়োজন নেই’।

    :khekz: :khekz: :khekz: =)) =)) =)) :boss: :boss: :boss:

    জবাব দিন
  4. ওয়াহিদা নূর আফজা (৮৫-৯১)

    প্রেমিকাদের নিয়ে মনে হয় একই জায়গায় বেশ কিছুদিন ধরে ঘুরপাক খাচ্ছ। এবার একটু বেলতলা বা ছাদনাতলার দিকে পথ বাড়াও - আমরাও একটু দেখি বেল ভাংগে না তোমার মাথা ভাংগে।


    “Happiness is when what you think, what you say, and what you do are in harmony.”
    ― Mahatma Gandhi

    জবাব দিন
  5. আহসান আকাশ (৯৬-০২)

    মাত্র ১০ পর্যন্ত আসলেন, সেঞ্চুরির অপেক্ষায় আছি :thumbup: :thumbup:


    আমি বাংলায় মাতি উল্লাসে, করি বাংলায় হাহাকার
    আমি সব দেখে শুনে, ক্ষেপে গিয়ে করি বাংলায় চিৎকার ৷

    জবাব দিন
  6. সাবিহা জিতু (১৯৯৩-১৯৯৯)

    লেখাটা ডেফিনেটলী খুবই এন্টারটেইনিং হইছে, কিন্তু মেয়েদের যেমন পচানো পচাইছো, শুধু ক্যাডেটের দোহাই দিয়া ছাইরা দিলাম । না হলে দেখতা, :chup: :chup: :chup: :chup: :chup: :chup:
    :gulli2: :gulli2: :gulli2: :gulli2: :gulli2: :gulli2:
    :duel: :duel: :duel: :duel: :duel: :duel:
    (বাট, পড়তে মজাই লাগছে 😉 )


    You cannot hangout with negative people and expect a positive life.

    জবাব দিন
    • শাহাদাত মান্না (৯৪-০০)

      আপু,আমার কপাল ভালো আপনি বোধহয় আমার আগের লেখাগুলো পড়েননি।পড়লে আমাকে মেরেই ফেলবেন বলে মনে হচ্ছে। 😀

      তবে আসল কথা হল,এটা অনেকাংশে স্যাটায়ারধর্মী লেখা।
      নারীকে পচানো আমার সাধ্যের ও অতীত তাতে ভয় হয় নিজের জননীকেই ছোট করে ফেলি কিনা?
      তবে আমি নারীবাদী নই,এই শব্দটারে আমার গালি বলে মনে হয়।
      আমি মানুষের অধিকারে বিশ্বাসী একজন অতি সাধারণ মানুষ। 🙂

      জবাব দিন
  7. সালেহ (০৩-০৯)

    ‘রবি রবি করে রব তুলে ভাবছো বৃহস্পতি এখন তুঙ্গে, নেটওয়ার্ক ঠিক করে কাস্টমারের মঙ্গল না হলে সব শুক্র বেরিয়ে শনির দশা হবে।তাতে লাভের আকাশে সোমের দেখা মিলবেনা,আর এটা বোঝার জন্য বুধ হবার প্রয়োজন নেই’।


    Saleh

    জবাব দিন

মন্তব্য করুন

দয়া করে বাংলায় মন্তব্য করুন। ইংরেজীতে প্রদানকৃত মন্তব্য প্রকাশ অথবা প্রদর্শনের নিশ্চয়তা আপনাকে দেয়া হচ্ছেনা।