ছোট মুখে বড় কথা

১৫-১৬ ডিসেম্বর, ২০১০।

– “জাগো বাংলাদেশ”
– “যুদ্ধাপরাধীদের বিচার চাই”
– “আমি গর্বিত”
– “রাজাকার নিপাত যাক”
– “৩০ লাখ শহীদের প্রাণের বিনিময়ে পাওয়া সূর্য …………. ”

facebook এ এরকম অনেক status দেখলাম,
CCB তেও অনেক গরম লেখা পড়লাম।

সব্বাই সেদিন বাংলাদেশ নিয়ে অনেক বড় বড় কথা বলল। যুদ্ধাপরাধীদের বিচারের দাবীতে শোরগোল করল। সরকারের কি করা উচিত, পুলিশ-সেনাবাহিনীর কি করা উচিত এগুলো নিয়ে আলাপ আলোচনা করল। কিন্তু আমি অবাক হয়ে দুটো জিনিস দেখলাম,
১. ১৭তারিখ থেকে প্রায় সবাই আবার আগের মত; এবং
২. নিজের কি করা উচিত এটা নিয়ে খুব একটা বেশী মানুষের মাথা ব্যথা নেই!

আমি মেনে নিলাম আমি বাচ্চা মানুষ, এত বড় বড় কথা বলার বা বোঝার বয়স হয়ত এখন হয়ও নি, কিন্তু যারা বললেন ওনাদের তো হয়েছে!
যুদ্ধাপরাধীরা যদি রাস্তায় রাস্তায় ঘুরে বেড়ায় তাহলে তার ৫০% দায়ভার আমাদের কাঁধেও বর্তায়।
কোন রাজনীতিবিদ এর ব্যাংক এ কত কাল টাকা আছে তা আমাদের সবার মুখস্থ কিন্তু আমরা কান রাজনীতি করিনা!

আমাকে সেদিন একজন [এখানের বাসিন্দা] জিজ্ঞাসা করল উইকিলিকস এ আমার দেশ এর কোন কিছু ফাঁস হয়েছে কিনা ……
আমি উত্তর দেওয়ার আগেই আরেকজন বাঙ্গালী যা বলল তার সারমর্ম হল, “বাংলাদেশে যা হয় ওইগুলা এম্নিতেওই ‘LEAK’, তাই উইকিলিকস আর কিছু করতে পারে নাই”
তার অবাক উত্তর “পুলিশ কিছু করে না !”
বেকুবের মত হাসা ছাড়া আমাদের করার কিছু ছিল না …………

আর কত দিন আমরা বেকুবের মত হাসব?
কত দিন চোখ বন্ধ করে এইসব সহ্য করব!

১,২১৪ বার দেখা হয়েছে

৮ টি মন্তব্য : “ছোট মুখে বড় কথা”

  1. গুলশান (১৯৯৯-২০০৫)

    আরে ভাই, বাইরে প্রকাশ না করলেও, ভিতরে সবারই একটা বোধ কাজ করে। সবার যদি নাও হয়, অনেকেরই। যেমন তুমি। বাইরে কতটা প্রকাশ পেল এবং কত বেশি প্রকাশ পেল, তার চেয়ে বেশি গুরুত্বপূর্ণ হল, ভেতরে কতটা বোধ তৈরী হল। অনেকেই বাইরে প্রকাশ করতে পারে না। কিন্তু নিজের কাজটা ঠিকই করে যায়। হয়ত তার মত করে। অন্যরা জানেও না।

    জবাব দিন
  2. নঈম (৮৭-৯৩)

    @ পাবন:
    তোমার মধ্যে যে বোধ জেগে উঠেছে সেটি প্রশংসা যোগ্য। এখানে কাজের অনেক সুযোগ আছে।

    গুলশানের সাথে একমত। সবার কাজের ধারা একভাবে হয়না। এক একজনের প্রতিভা ও দক্ষতা এক এক বিষয়ে। নানা আঙ্গিকে এই বিষয়গুলোর উপর কাজ চলছে। ইন্টারনেটেও বেশ কিছু ভলান্টিয়ার কাজ করছে। তুমিও তোমার ভাল লাগা ক্ষেত্র খুঁজে নিয়ে নিজ অবদান রাখতে চেষ্টা করো।

    জবাব দিন
  3. আসিফ খান (১৯৯৪-২০০০)

    পাবন@ তোমার মাধ্যমে সবাইকে এমনকি নিজের কাছেও জানতে চাচ্ছি।।আমাদের কী কেবল পেটের ক্ষুধা নিবারণেই জীবনের প্রায় পুরোটা চলে যায়? নাকী আমাদের অন্তঃপুরে প্রতিনিয়ত ফুলেফেঁপে ওঠা বা উঠতে থাকা লোভের ক্ষুধা নিবারণে???

    জবাব দিন
  4. ফখরুল (০৪-১০)

    উপদেশ দিতে আমাদের জুড়ি নাই । আর সবাই বেশ বুঝদারও বটে , কেউ ভাল কথা বললে মাথা ঝাকাইতে ঝাকাইতে ঘাড়ের পেশি লুজ কইরা ফালাই - "ঠিক বলছেন", " u r correct", etc. etc......আর মনে মনে ভাবি " আসলে এই কাজটা মনে হয় আমার করার কথা না , অন্য কারও " __ irresponsible এর আরও একটু upgraded version হইলাম আমরা ... অন্য মানুষ, কে কার responsibility পালন করল নাকি সেটা দেখাই আমাদের প্রধান responsibility হয়ে দারিয়েছে , নিজের টা পালন করার চেয়ে __ যতদিন না আমরা নিজেদের কাছে honest হব , ততোদিন কিছুই হবে না । Thnx to pabon ,Good job !

    জবাব দিন
  5. তাইফুর (৯২-৯৮)

    :clap:

    (নিয়মিত লেখা দিন, কমেন্ট করুন … প্রতিদিন অন্তত আধ ঘন্টা হলেও সিসিবির সাথে থাকুন)


    পথ ভাবে 'আমি দেব', রথ ভাবে 'আমি',
    মূর্তি ভাবে 'আমি দেব', হাসে অন্তর্যামী॥

    জবাব দিন

মন্তব্য করুন

দয়া করে বাংলায় মন্তব্য করুন। ইংরেজীতে প্রদানকৃত মন্তব্য প্রকাশ অথবা প্রদর্শনের নিশ্চয়তা আপনাকে দেয়া হচ্ছেনা।