ঢেউপুরাণ

তেরো নদী পার হয়ে
সাত সমুদ্রে নেমে
আপনমনে দুলতে
শুরু করেছিলো,
একটুও না থেমে
অতঃপর ফিসফিসিয়ে
ফিসফিসিয়ে চলেছে
কখনোবা হিসহিসিয়ে
আচমকা, অহমিকায়
কেশর ফুলিয়েছে;
যত এগিয়েছে
অহেতুক
লাফিয়ে লাফিয়ে
গর্জে উঠেছে শুধু,
প্রতিবারের মতো
পুরনো কথা ভেবে
আক্রোশে
অভিমানে
গুমরে উঠে
ফুলতে ফুলতে
ফুলতে ফুলতে
থইথই কথামালার
ফেনিল উচ্ছ্বাসে
একলাফে
প্রায় আকাশ ছুঁয়ে ফেলেই
সমস্ত বুদ্বুদসমেত
হুড়মুড় ক’রে
শেষমেশ
তোমার পায়ে
ভেঙে পড়েছে…..

৩,২৩১ বার দেখা হয়েছে

৪০ টি মন্তব্য : “ঢেউপুরাণ”

  1. ওবায়দুল্লাহ (১৯৮৮-১৯৯৪)

    খুব সুন্দর দাদা।

    একেবারে উৎপত্তি থেকে নিয়তি পর্যন্ত এঁকেছেন - প্রতিটি ধাপ ছুঁয়ে ছুঁয়ে।

    পড়তে পড়তে যেন নোনা জল এর মাদকতা পেয়ে বসলো।

    :dreamy:


    সৈয়দ সাফী

    জবাব দিন
  2. কামরুল হাসান (৯৪-০০)

    বড় হয়ে আমিও আপনার মত কবিতা লিখতে চাই। 🙂

    হিসহিসিয়ে আর বুদবুদ বানানে টাইপো হয়ে গেছে।


    ---------------------------------------------------------------------------
    বালক জানে না তো কতোটা হেঁটে এলে
    ফেরার পথ নেই, থাকে না কোনো কালে।।

    জবাব দিন
  3. জুলহাস (৮৮-৯৪)

    নুপুরদা......

    আমি হতাশ...আপনারে নিয়া হতাশ... 😛 😛

    নদী-রে কই থাইক্যা টাইনা আইনা সাগরে ফালাইলেন... অথচ...মাঝি-র কাছে আনলেন না!!! 😉 😉

    আইচ্ছা...ব্যাপার না... আমি আবার লুবনান-এর শাকিরা...হাইফা...এইগুলারে নিয়া আছি তো...নদী না হইলেও চলবো!! :goragori: :goragori:
    তয় ভাইজান...বইদ্যাশে আছি বইলা...অধমরে ভুলিয়েন না...
    পরেরবার কিন্তু আমারে/আমাগোরে লইয়া লেহা চাই...!


    Proud to be an ex-cadet..... once a cadet, always a cadet

    জবাব দিন

মন্তব্য করুন

দয়া করে বাংলায় মন্তব্য করুন। ইংরেজীতে প্রদানকৃত মন্তব্য প্রকাশ অথবা প্রদর্শনের নিশ্চয়তা আপনাকে দেয়া হচ্ছেনা।