ম্যাডাম আমদের দিকে একটু তাকান।

বেশ কয়দিন হল আমার মনে একটা প্রশ্ন এসেছে। একজন বাঙ্গালির কত টুকু দেশপ্রেম থাকলে এই দেশের বাইরে যাওয়ার সুযোগ থাকা সত্তেও এখানে বাস করবে ? কি অদ্ভুত একটা দেশ।

যে দেশে অধিকাংশ মানুষ দারিদ্র সীমার নীচে বাস করে সে দেশের বানিজ্য মন্ত্রী বলেন আপনারা কম খান তাইলে জিনিস পত্রের দাম কমবে। যেই দেশে ছিন্‌তাইকারীর গুলিতে বাবার কোলে তার মেয়ের মৃত্যু হয় আর স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী বলেন আল্লাহর মাল আল্লাহ নিয়ে গেছেন।এই দেশে জনগনের ইচ্ছার বিরুদ্ধে তেল গ্যাস নিয়ে অসংলগ্ন অসামঞ্জস্যপুর্ন এরকম চুক্তি হয় যেন দেশটা সরকারের বাপের। এ দেশে বিরোধী দল এমন একটা জনগনের ইস্যু চোখে দেখেনা দেখে নেত্রীর বাড়ি ছাড়তে বলছে “হরতাল”। রাজপুত্রের নামে মামলা হইছে “হরতাল” দেশটা মনে হয় ওর বাপের। আমরা বালছাল ১৫ কোটি মানুষ বানের জলে ভাইসা আইছি।

এই মজার দেশের আমি একজন গরিব বাসিন্দা। আমি সারা দিন, সারা সপ্তাহ, সারা বছর দুষিত বাতাসে শ্বাস নেই, শব্দে আমার প্রতিদিন ২টা পেইনকিলার খাইতে হয় মাথা ব্যাথা ভাল করার জন্য, ফরমালিন দেয়া খাবার বেশী দামে খাই। রোজ দুই বেলা ২+২=৪ ঘন্টার অমানুষিক যুদ্ধ করে, বাস সিএনজি ওয়ালাদের গালি দিতে দিতে জ্যাম ঠেলে অফিসে যাই আর ফিরি। সব কিছুর পরও আমি এখানেই থাকতে চাই।

(যে প্রসংগে লিখতে বসেছি)

আমার যখন কোন বিপদ হয় আমি ভাবি যে পুলিশ আছে র‍্যাব আছে আমকে সাহায্য করবে। সাহায্য না করুক মিনিমাম ক্ষতি তো করবে না। যদিও কখনো যাই না। তারপরও একটা মানষিক সান্তনা। কিন্তু সাম্প্রতিক ঘটনাগুলো আমাকে আতংকের ভিতর রেখেছে।

১)  র‍্যাব কথা নাই বার্তা নাই গুলি করে হাঁটুর বাটি উরিয়ে দিল লিমনের, যেখানে তদন্ত তো দূরের কথা ওর নামে কোন অভিযোগই নাই,

২) থানায় ধরে নিয়ে ডাকাত বানিয়ে অমানুষিক নির্যাতন করল কাদেরের ওপর , অথচ কোন দোষই দেখাতে পারল না বেচারা ছেলেটার,

৩) ডাকাত বলে নিরীহ ছয় জন ছাত্রকে পুলিশের সামনে পিটিয়ে মেরে ফেলল আমিন বাজারে , পুলিশ তাকিয়ে তাকিয়ে দেখল,

৪) নোয়াখালিতে পুলিশ উস্কানি দিয়ে গণধোলাইএর নাটক করে মেরে ফেলল নিরাপরাধ মিলন কে,

৫) আবার ডিবি পুলিশের পরিচয় পত্র দেখিয়ে যেখান সেখান থেকে সাদা গাড়িতে উঠিয়ে  নিয়ে যাচ্ছে কারা যেন !!! তাদের লাশ পাওয়া যাচ্ছে রাস্তাঘাটে।

আমি তো রাত-বিরাতে রাস্তা ঘাটে থাকি, আমাকে বা আপনাকেও যেকোন জায়গা থেকে উঠিয়ে নিয়ে ডাকাত বলে পিটাতে পারে, না হলে গনপিটুনির নাটক করে একাবারে ওপার পাঠিয়ে দিতে পারে, না হলে গুলি করে হাঁটুর বাটি উড়িয়ে দিতে পারে !!!

আমরা এখন কার কাছে নিরাপত্তা চাব? আসেন সবাই এক সাথে বলি…………………

“মাননীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী, ম্যাডাম আপনার তো  পরিবার, সন্তান-সন্ততি নাই। আমাদের ১৫কোটি মানুষ কে আপনার নিজের পরিবার ভেবে যদি আমাদের নিরাপত্তার দায়িত্বটুকু নিতেন আমরা খুবই প্রীত হইতাম।”

গুছিয়ে লিখতে পারলাম না। কিন্তু আমার সত্যি ইদানিং ভয় হয়। কি হবে আমাদের?

১,২৭৭ বার দেখা হয়েছে

৮ টি মন্তব্য : “ম্যাডাম আমদের দিকে একটু তাকান।”

  1. ওয়াহিদা নূর আফজা (৮৫-৯১)

    পাড়ায় যখন দুজন গুণ্ডা সর্দার দাড়িয়ে যায় তখন একজন আরেকজনকে খুন করে শেষ করে ফেলে। এখন মনে হয় আমাদের অপেক্ষা করে থাকতে হবে দেশের দুজন গুণ্ডি কখন একজন আরেকজনকে শেষ করে। না, আমি আর ভাল কিছু লিখতে পারলাম না। গনতন্ত্রের নামে আমরা কেন এইসব নয়ছয় গিলবো? আর দেশে তো স্পষ্ঠ দ্বৈত একনায়কতন্ত্র চলছে। একজন নূর হোসেন প্রয়োজন। যে একদিকে লিখবে 'একজন প্রমানিত ব্যর্থ, অজ্ঞ, অশিক্ষিত প্রধানমন্ত্রীকে আর সরকার প্রধান হিসেবে দেখতে চাই না।' আরেকদিকে লেখা থাকবে ' রাজনৈতিক দলে যথার্ত গনতন্ত্র চাই।'
    আমাদের দেশটা এখনও যে টিকে আছে তার জন্য দেশের মানুষকে বাহবা দিতে হয়। এরকম বিকল রাষ্ট্রযন্ত্রের মধ্যে বাস করেও মানুষ সাধ্য মতো তাদের স্বাভাবিক রাখছে।


    “Happiness is when what you think, what you say, and what you do are in harmony.”
    ― Mahatma Gandhi

    জবাব দিন
  2. আজিজুল (১৯৭২-১৯৭৮)

    কণ্ঠ আমার রুদ্র আজিকে, বাঁশি সঙ্গীত হারা।.........।
    ........................,

    তাইতো তোমায় শুধাই অশ্রু জলে,
    যাহারা তোমার বিষাইছে বায়ু, নিভাইছে তব আলো,
    তুমি কি তাহাদের ক্ষমা করিয়াছ , তুমি কি বেসেছো ভাল ?
    - রবীন্দ্র নাথ ঠাকুর।


    Smile n live, help let others do!

    জবাব দিন
  3. রাব্বী (৯২-৯৮)

    বাস্তবতা বড়োই কঠিন ভায়া! ম্যাডাম বলো আর স্যার বলো, সবাই রাজনীতি করে ক্ষমতায় যাবার জন্য এবং পয়সা বানানোর জন্য - বাকি সব মিথ্যা।

    পুলিশের কথা বললে। অন্য প্রসঙ্গে যাই। ওলন্দাজ এক নৃবিজ্ঞানী (নামটা এখন মনে পড়ছে না) একটা রিপোর্টে লিখেছিল - উন্নত দেশগুলোতে নিরাপত্তা দেয় রাষ্ট্র এবং ঝুঁকির জন্য উন্নত দেশের মানুষ বিনিয়োগ করে ইন্সুরেন্স কোম্পানিতে। কিন্তু বাংলাদেশের মানুষ নিরাপত্তা এবং ঝুঁকির জন্য বিনিয়োগ করে আত্মীয়-স্বজন এবং পাড়া-প্রতিবেশীদের কাছে।


    আমার বন্ধুয়া বিহনে

    জবাব দিন
  4. রেজা শাওন (০১-০৭)

    রাব্বী ভাইের সাথে সহমত। সাথে আরেকটু যোগ করতে চাই,

    যে দেশের মানুষেরা নৃশংসতার এমন ভয়াবহ চিত্র, অহরহ দেখাতে পারে, তারা তাদের জন্য ঠিক তেমন নেতাই পায়। বিবেকবোধের একটা জায়গায় আমরা খুব পিছিয়ে আছি

    জবাব দিন
  5. নাজমুল (০২-০৮)

    ভাইয়া আমিও এই নিয়ে কিছু লিখতে চাচ্ছিলাম। কিন্তু কিভাবে লিখবো সেটা খুজে পাচ্ছিলাম না, ধন্যবাদ লেখার জন্য।
    কিন্তু সরকারকে এত দোষ দিলেন, আর যেই ভদ্রলোকেরা ইট এর বাড়ি, লাঠির বাড়ি, লাথি, ঘুষি দিয়ে ছেলেটাকে মেরে ফেললো তারা!!!!!!!
    সেই দেশের মানুষ হয়ে আমরাতো এখন সরকারকে কিছু বলার অধিকার রাখিনা। ধরে নিলাম ওই লোক গুলাকে বোঝানো হইসে যে মিলন ডাকাত!!!, কিন্তু একজন ডাকাতকে মানুষ কিভাবে মাথায় ইটের বাড়ি দিয়ে মেরে ফেলতে পারে!!!!!!!
    আমি একবার আমাদের এলাকায় ডাকাত মারতে দেখসি, তখন আমি ৫/৬ এ পড়ি, বিশ্বাস করতে পারবেননা, যারা লাঠি,দা দিয়ে ডাকাত/চোরটাকে পিটাইতেসিলো তাদের কোনো হাত ও কাপেনাই মারার জন্য।

    বর্তমান প্রধানমন্ত্রী তো সারাদিন কান্নাকাটি করে তার পরিবার এর সবাইকে মেরে ফেলসে, তার তো বোঝা উচিত এইসব ব্যাপার

    জবাব দিন

মন্তব্য করুন

দয়া করে বাংলায় মন্তব্য করুন। ইংরেজীতে প্রদানকৃত মন্তব্য প্রকাশ অথবা প্রদর্শনের নিশ্চয়তা আপনাকে দেয়া হচ্ছেনা।