আমি ক্ষমা চাচ্ছি ।

আমরা এমন কেন? কেন সবসময় চারপাশে এগুলা দেখি আর চুপ করে থাকি? এখানে কে নিরাপদ? আমার মা? আমার বোন?আমার মেয়ে? আমার প্রেমিকা? আমার স্ত্রী? কে? বারবার আমাদের শুনতে হয় , দেখতে হয় এ সব নির্যাতনের ঘটনা? রাস্তার বখাটে থেকে শুরু করে শিক্ষক কারও কাছ থেকেই কি মেয়েরা রেহাই পাবে না?আমাদের আদিম প্রবৃত্তি গুলোকে কখনই  কি আমরা নিয়ন্ত্রণ করতে পারবনা? পরিমলের মত লোকেরা সবসময় বেঁচে যাবে।প্রতিদিন যখন আমাদের বাসার মেয়েরা বাইরে যায়, তখনি কোন না কোন ভাবে আমাদেরই মত কেউ মন্তব্য ছুড়ে দেয়।আমরা তার প্রতিবাদ করতে পারি না কেন? আমাদের মনের ভিতরেও অমন ইচ্ছা থাকে বলে?এত পড়ালেখা, জ্ঞান বুদ্ধি কি কাজে লাগাবো আমরা? শুধু পয়সা কামানোর জন্য?কাদের জন্য কামাবো?আমার পরিবারের নিরাপত্তাই তো নাই।

আমার ছোট বাচ্চা মেয়েটা স্কুলে যাবে আর পরিমল ওকে ধর্ষণ করবে?আমার বউয়ের নাক আমি কামড় দিয়ে কেটে নেব,চোখে আঙ্গুল দিয়ে চোখ উপরে ফেলব?আমার বোনকে সালিশের নামে জনসম্মুখে পেটানো হবে। আর আমরা দেখব।

ভিকারুন্নেসার মত একটা স্কুলে পরিমলের মত একটা লোককে নিয়োগ দেয়া হল।যার এর আগে রাজউক কলেজ থেকে চাকরি চলে গিয়েছিল ছাত্রী হয়রানীর অভিযোগে।সেই লোকটাকে ভিকারুন্নেসায় চাকরি দেয়া হল পদোন্নতি দিয়ে।হারামির বাচ্চা ধরা পড়ছে।আশা(!!!!!!!!) করি বিচার হবে। আশা করি এমন শাস্তি দেয়া হবে যেন সব পরিমলেরা দুশ্চিন্তায় পরে যায়।

কিন্তু যে প্রিন্সিপাল জানোয়ারটাকে নিয়োগ দিলো,পুরো ঘটনাটাকে চাপিয়ে রাখার চেষ্টা করল,হারামিটাকে বাঁচানোর চেষ্টা করল তার কি হবে? যে মহিলা বলল “এটা একটা ননভায়োলেন্ট মিউচুয়াল সেক্স।” যে মহিলা মানব বন্ধনে যেতে চাওয়া বাচ্চা মেয়েগুলোকে বলল “মানব বন্ধনে পুলিশ পেটাবে,যারা মার খেতে চাও যেতে পারো ।” তার কি হবে? আমি তো ভাবতেই পারছি না এত গুলো বাচ্চা মেয়ের অভিভাবক হিসেবে এতো ভাল একটা মহিলাকে নিয়োগ দেয়া হয়েছে।

আমাদের ছেলেদের আমরা কোথায় পড়তে পাঠাব? যেখান থেকে বেরিয়ে ও মেয়েদের সম্মান করতে  শিখবে? আমাদের মেয়েকে কোথায় পড়তে পাঠাবো? যে খান থেকে ও সুস্থ ভাবে বাসায় ফিরবে?

এই লেখাটা এলোমেলো। ভাষাও ঠিক রাখতে পারি নাই।আমি যে গালিগুলো দিতে চাচ্ছিলাম সেগুলোর বানান আমি পারি না।তাই সেন্সর্ড গালি দিলাম।কিন্তু রাগ মিটলো না। আমি তাদের, সেই সকল সিনিয়রদের দৃষ্টি আকর্ষণ করছি, ভাইয়া বা আপুরা এই বিষয়গুলা নিয়ে যাদের কাজ করার বা সামান্য কিছু করার ক্ষমতা আছে,প্লীজ কিছু করেন।আমার ভবিষ্যৎ মেয়েটা প্রতিদিন বাইরে থেকে নিরাপদে বাসায় ফিরুক আমি শুধু এটুকুই চাই।

আর সকল মেয়েদের কাছে আমি ক্ষমা চাচ্ছি “পরিমলের” মত শুয়োরের বাচ্চাগুলোও নিজেদের পুরুষ দাবী করে বলে।

১,৩২২ বার দেখা হয়েছে

১২ টি মন্তব্য : “আমি ক্ষমা চাচ্ছি ।”

  1. তানভীর (০২-০৮)

    আমরা এখনো জাতি হিসেবে সভ্য হয়ে উঠতে পারিনি।আমরা সমাজের সব স্তরে অন্যায় এতো বেশি দেখি যে , এগুলোকে আমরা মেনে নিয়েছি।প্রতিবাদ করতে আমরা ভুলে গেছি।
    আমরা নিজেরা যদি অঙ্গিকার করি আজ থেকে আমাদের সামনে কোনো অন্যায় হতে দেব না,সব খারাপ কাজে বাঁধা দেবো, তাহলে হইত রুখে দাঁড়ানো সম্ভব। সেই সাহস ও মনোবল আমাদের সবার হোক এই কামনা করি।

    জবাব দিন
  2. সাবিহা জিতু (১৯৯৩-১৯৯৯)
    আমাদের ছেলেদের আমরা কোথায় পড়তে পাঠাব? যেখান থেকে বেরিয়ে ও মেয়েদের সম্মান করতে শিখবে? আমাদের মেয়েকে কোথায় পড়তে পাঠাবো? যে খান থেকে ও সুস্থ ভাবে বাসায় ফিরবে?

    :hatsoff:


    You cannot hangout with negative people and expect a positive life.

    জবাব দিন
  3. আমিন (১৯৯৬-২০০২)

    নন ভায়োলেন্ট মিউচুয়াল সেক্স হলেও যে চাইল্ড এবিউস হয় সেই জ্ঞান না রেখে ভিখারুন্নেসার প্রিন্সিপালের পদ কিভাবে আকড়ে আছেন সেটা বড়ৈ চিন্তার বিষয়।

    আর যতই সময় যাচ্ছে আমরা আগের চেয়ে আরো আদিম হয়ে যাচ্ছি আরো ভায়োলেন্ট হয়ে যাচ্ছি। এই ঘটনাগুলো কোন বিচ্ছিন্ন ঘটনা নয় বরং আমাদের পুরুষতান্ত্রিক সমাজের নোংরামির নগ্নপ্রকাশ।

    এসব বিষয়ে আমার ভাবনা গুলোও খুবই বিক্ষিপ্ত।
    লেখাটা ভালো লাগলো। পরিমলের মত জানোয়াদের বিচার হোক আর আমাদের ভিতরে লুকিয়ে পরিমলকে আমরা হত্যা করি -- এটাই হোক সবার চাওয়া।

    জবাব দিন
  4. আসাদুজ্জামান (১৯৯৬-২০০২)
    পুরুষতান্ত্রিক সমাজের নোংরামির নগ্নপ্রকাশ।

    ........ যেখানে আবার কিনা প্রধান, স্বরাষ্ট্র আর পররাষ্ট্র মন্ত্রী মহোদয়ারা মহিলা।

    একটু শুদ্ধিকরণ প্রয়োজন মনে হচ্ছে...

    দলীয়তান্ত্রিক রাষ্ট্রের দলীয়করনের আর দলের আবরনে সাত খুন মাফের নগ্নপ্রকাশ।

    জবাব দিন
  5. মোর্শেদ (৯৮-০৪প.ক.ক)

    সবাইকে ধন্যবাদ। আসলে আমরা নিজেরা থিক হলেই পরিমলেরা আমন কিছু করার সাহস পাবে না বলে আমার মনে হয়। কিন্তু আমাদেরই তো সাহসের অভাব।


    মোর্শেদ_(৯৮-০৪)পাবনা ক্যাডেট কলেজ

    জবাব দিন
  6. শমিক

    যদিও প্রকাশ হওয়ার অনেক অনেকদিন পরে পড়লাম লেখাটা, তাও কমেন্ট দিচ্ছি।

    অনেক ভাল হয়েছে লেখাটা, অসাধারন এক কথায়। শুধু এটা বলার জন্য পাসওয়ার্ড রিকভার করে লগ ইন করলাম। এসব কথাগুলো ঘুরে-ফিরেই মনে হয়, বিভিন্ন সময়ে বিভিন্ন ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে মনে হয়, কিন্তু সবাইকে বলতে পারিনা এভাবে। খুব ভাল লিখেছিস দোস্ত। থ্যাংকস লেখাটার জন্য। :clap:

    জবাব দিন

মন্তব্য করুন

দয়া করে বাংলায় মন্তব্য করুন। ইংরেজীতে প্রদানকৃত মন্তব্য প্রকাশ অথবা প্রদর্শনের নিশ্চয়তা আপনাকে দেয়া হচ্ছেনা।