বাইশ দিনে গড়া

প্রতিটি বিষন্ন দিনের শুরু বুঝি এই

অথচ দেহে কোন ক্লান্ত চিহ্ন নেই

অসহ্য অব্যক্ত কষ্ট কতটা সহজে বলা

আমার স্বভাব তারিলেও,হয়না সহজে চলা।

এতদিনের যত খুনসুটি আজ পালাচ্ছে পিছু দ্বারে

দ্বিধাবোধ যত আঁকড়ে ধরছে তোমার অধরা করে

ক্ষনিকের রক্তক্ষরন বুঝে নিতে পারনি

তবুতো বিপন্ন বিষন্ন রাতে আমাকে ধরে রাখনি

নাজুক লতানো তনু হারিয়ে যাবার ভয়ে

ছোট তরী খুজে ফিরে মধ্য রাতের লয়ে।

আমাকে কাছে টেনে কেন তুমি আড়ালে?

অজানা সংশয়ে কেন ভয় বাড়ালে?

এতটা সংকুল পথ পাড়ি দিয়ে যেখানে

আমাকেই মেলে ধরি,দ্বিধা তোমার সেখানে।

করেছ সাহায্য আমায় না পাওয়ার ব্যথাতে

অথচ চলেছ বেদনা বহে না পাওয়ার রেখাতে

আজ অব্যক্ত বাসনা তোমাকে উজারিব ভেবে

গতরাত মোর হয়েছে গত নির্লিপ্ত রবে।

আমাকে কাদিয়ে তুমি বুঝি সুখ পাও?

কাছে টেনে তবে কেন দুরে তুমি চলে যাও?

আসনা আমরা তবে নিজ থেকে না পালিয়ে

জয়ী হই সব বাধা ভেঙ্গে ফেলে জ্বালিয়ে।

 

৩৩৬ বার দেখা হয়েছে

১টি মন্তব্য “বাইশ দিনে গড়া”

মন্তব্য করুন

দয়া করে বাংলায় মন্তব্য করুন। ইংরেজীতে প্রদানকৃত মন্তব্য প্রকাশ অথবা প্রদর্শনের নিশ্চয়তা আপনাকে দেয়া হচ্ছেনা।