আহা! এমন যদি হত!!!

লিওনার্দো দ্য ভিঞ্চি উড়োজাহাজের ছবি এঁকেছিলেন। সেটা ছিল শুধুই তার কল্পনা। তার কল্পনা আজ বাস্তব। উড়োজাহাজের টেকনোলজী আজ কোথায় চলে গেছে তা আর বলার অপেক্ষা রাখে না। আজকের ওয়্যারলেস টেকনোলজীর কথাই বলি। ম্যাক্সওয়েলের সেই যুগান্তকারী চারটি সূত্র দিয়েই নাকি যার শুরু। ম্যাক্সওয়েল কি স্বপ্নেও ভেবেছিলেন যে লিওনার্দো দ্য ভিঞ্চির কল্পনার সেই উড়োজাহাজও একদিন ওয়্যারলেস কন্ট্রোলে আকাশে সানন্দে উড়বে! কি জানি! ভেবেছিলেন হয়তোবা।

তবে আজকালকার টেকনোলজীর ব্যবহার দেখে আমরা অনেকেই কিছুক্ষনের জন্যে ফিরে যাই অতীতের কোন এক মুহুর্তে, মনে পড়ে যায় সায়েন্স ফিকশনের কোন বইয়ের গল্প অথবা কোন মুভির কাহিনি। মনের অজান্তেই বলে ফেলি “আরে! এরকমই তো পড়ছিলাম সেই বইটাতে অথবা দেখেছিলাম সেই মুভিটাতে!”। এরকমই হচ্ছে আসলে অহরহ আজকাল। এখন সায়েন্স ফিকশন দেখেই শুধু শেষ করি না, সাথে স্বপ্নও দেখি অনেক সহজে। অনেকটা সংশয়বিহীনভাবেই ভাবি কোন একদিন এটাও হবে বাস্তব।

এরকমই একটা শর্ট মুভি দেখলাম ইউটিউব-এ। ব্রুস ব্রানিটের বানানো এ স্বল্প সময়ের ভিডিও টা দেখে খুউবি মজা পাইলাম। মনে মনে ভাবতেছি “আহা! যদি আমিও পছন্দের মানুষটার জন্যে এক ঘন্টায় এরকম বানায়ে দিতে পারতাম!”। কি জানি অদূর ভবিষ্যতে এরকমও হবে হয়তোবা। বর্ণনা না করে ইউটিউব থেকে ভিডিওটাই নিচে দিয়ে দিলাম। দেখার পর আমার মতো অনেকেই বলে উঠতে পারেন – “ আহা! এমন যদি হত!”। বেস্ট অফ লাক।

২২ টি মন্তব্য : “আহা! এমন যদি হত!!!”

    • শরিফ সাগর (৯৭-০৩)

      বন্ধু ওইভাবে একটুও চিন্তা করিনি। বিধাতা হওয়া যেমন অসম্ভব এক ঘন্টায় ওইরকম বাস্তবে বানানোও অসম্ভব।
      তবে ভার্চুয়ালী এরকম হতে পারে অদূর ভবিষ্যতে। এখন স্ট্রাটেজী গেমে অথবা থ্রি ডি সফটওয়্যার দিয়ে খুব সহজেই মাউস ইউজ করে এরকম ডিজাইন করা যায়। এখানে যে জিনিসটা আমার মনে ধরেছে সেটা হচ্ছে হলোগ্রাফিক ত্রিমাত্রিক অপারেশন। হাতের মাইক্রো কম্পিউটার টার ছোট্ট বাটনটাতে ক্লিক করে এখনকার বাস্তবের কম্পিউটার টাচস্ক্রিনটাকে শূন্যের মাঝে হলোগ্রাফিক টাচস্ক্রিন হিসেবে স্থাপন করা যেতেও পারে কোন একদিন। যদিও ইতিমধ্যে রিমোট কন্ট্রোলার ছাড়াই দূর থেকে আঙ্গুলের মুভমেন্ট দিয়েই কন্ট্রোলের টেকনোলজী বের হয়ে গেছে। তাই হলোগ্রাফিক টাচস্ক্রিনও আমার মনে হয় এখন শুধু সময়ের ব্যাপার। আমি এটাই বুঝাতে চাইছিলাম।

      জবাব দিন
  1. জাবীর রিজভী (৯৯-০৫)

    আমার এখানে নেটের স্পীড খুব কম।১-২ kb/s থাকে।যতটুকু streaming হইছে (৪ সেকেন্ড),টাইম লাগছে ১০ মিনিট! মেজাজ টা গরম হইয়া গেছে।আবার লিঙ্কটাও দেওয়া নাই। 🙁

    ৪ দিন হইল html আর dreamweaver নিয়া পইরা আছি।শখের বশে শিখতেছি।বাধ্য হইয়া এই পেজটার source code বাইর কইরা আনেক খুইজা ভিডিওটার লিংক বাইর করলাম।এখন keepvid থেইকা ডাউনলোড দিছি।দেইখা কমেন্ট করমু। 😐 :-B

    জবাব দিন

মওন্তব্য করুন : আহসান আকাশ (৯৬ - ০২)

জবাব দিতে না চাইলে এখানে ক্লিক করুন।

দয়া করে বাংলায় মন্তব্য করুন। ইংরেজীতে প্রদানকৃত মন্তব্য প্রকাশ অথবা প্রদর্শনের নিশ্চয়তা আপনাকে দেয়া হচ্ছেনা।