যদি জানতে

সেই ঝরনা, গোধূলিবেলায় এক ঝাক পাখি
জীবনের স্রোতে ক্লান্ত হয়ে- নিষ্ফল ডাকাডাকি।
সেই জ্যোৎস্না, নীশিথরাতে এক ঝাক তারা
সময়ের স্রোতে শ্রান্ত হয়ে- কেঁদে কেঁদে হয় সারা।
আছো কী তুমি বন্ধু আমার, গহন নদীর বাঁকে?
আছো কী তুমি বন্ধু আমার, উথাল প্রানের বাঁকে?
এই নদীজল, এই সমতল;
এই ঝরনা, এই চরাচর;
এ সবই মায়া, মিছে মরিচীকা।
এ সবই ছায়া, অনন্ত শূন্যতা!
সেই সমুদ্র, বেদনার জলে মাখা এক ঝাক ঢেউ
তোমার পদতলে আছড়ে পড়ে- হয়ে গেছে, অচেনা কেউ।
সেই পাহাড়, মিঠে রোদে ঢাকা এক ঝাক সবুজ
তোমার হৃদয় ছুয়ে ছুয়ে হয়েছে অবুঝ!
শুনেছো কী তুমি বন্ধু আমার, সুদূরের সেই ডাক?
শুনেছো কী তুমি বন্ধু আমার, সুদূরের সেই ডাক?
হায়, যদি জানতে!!
এ সবই মায়া, ধূ ধূ মরিচীকা।
এ সবই ছায়া, ধূ ধু শূন্যতা!

৩৮৯ বার দেখা হয়েছে

২ টি মন্তব্য : “যদি জানতে”

মন্তব্য করুন

দয়া করে বাংলায় মন্তব্য করুন। ইংরেজীতে প্রদানকৃত মন্তব্য প্রকাশ অথবা প্রদর্শনের নিশ্চয়তা আপনাকে দেয়া হচ্ছেনা।