হাওয়ার বুলেট ও একটি ছোট্ট ঘটনা

দিনকতক ধরিয়া ব্লগ পড়িতেছি আর পুরাতন দিনের কথা স্মরণ করিয়া সেই দিন গুলিতে বারংবার ফিরিয়া যাইতেছি। সে যাহাই হোকনা কেন, নিজের শারীরিক এই মূহুর্তের অবস্থার কারণে একটি ছোট্ট ঘটনার কথা মনে পড়িয়া গেল।

কথা হইল, কি এই হাওয়ার বুলেট?
“অন্তর জগতের বায়ু বাহির জগতে প্রবেশ করিবার কালে গূহ্যদ্বারে মৃদু কম্পন জনিত কারণে বাতাসে যে আলোড়ন সৃষ্টি‌‌ হয় তাহাই হাওয়ার বুলেট নামে পরিচিত।” (সুত্রঃ চিকিৎসাশাস্ত্রে অধ্যয়রত (এখন চিকিৎসক) জনৈক দার্শনিক)

মাফ কইরা দেন ভাইজানেরা এইভাবে বঙ্কিম স্টাইলে গুরুগম্ভির ভাষাতে শুরু করার জন্য। আসলে দার্শনিকের সংজ্ঞা বলে কথা। হুবহু না হইলে কি আর চলে। এবার তাহলে আসল কথাতে আসা যাক।
যতদুর মনে পড়ে তখন এইচ. এস. সি. পরীক্ষা শেষ পর্যায়ে। কলেজে তখন নিয়ম ছিল মসজিদে নামাজের সময় ক্লাস ইলেভেন সামনের লাইনে, তারপর দশম/পরীক্ষার্থী…. সব শেষে (সপ্তম শ্রেনীর পর) ক্লাস টুয়েল্ভ স্যারদের সাথে নামাজ পড়বে। কিযে ভাগ্য ছিল আমার সে দিন, প্রিন্সিপাল স্যার মাহবুবুর রহমান ভুইয়া স্যার এর পাশাপাশি দাড়িয়ে ছিলাম। ইমাম সাহেব সবে প্রথম রাকাত (মাগরিবের নামাজ) শুরু করলেন। এমন সময় সামনে থেকে (সম্ভবত ক্লাশ ইলেভেন, মাফ কইরা দিস রে ভাই ভুল হইলে) ভুমিকম্পের মত বিকট একটা শব্দে একটা হাওয়ার বুলেট চারিদিকে ছুটে গেল। একটু ভাবেনতো ভাইজানেরা ঐ সময় ক্যাডেটদের কি অবস্থা। সবাই তো প্রানপণে হাসি চাইপা রাখার চেষ্টা করতাছে (সর্বাধিক সহিষ্ণতার অধ্যবসায়)। হঠাৎ কইরা এক কোনা হতে কারও একজনের হাসি বাইর হইয়া গেল। এরপরতো আর কেও চাইপা রাখতে পারেনা। শুরু হইয়া গেল হাসির ঢেউ। এক পাশ থেকে শুরু হয় আর wave propagation এর মতো আর এক পাশে গিয়া প্রতিফলিত হয়। বুঝতাছেনইতো, তরঙ্গের প্রতিফলনের ধর্ম অনুসারে এইটা কি থামবার কথা! আর এই দিকে আমার কি অবস্থা, পাশেই ভুইয়া স্যার, আমি আমার সব শক্তি দিয়া হাসি চাইপা রাখার চেষ্টা করতেছি। কিন্তু আর পারলামনা, স্যার এর পাশেই খাড়ায়াই হাসিটাকে মুক্ত কইরা দিলাম। যাহোক এভাবে প্রথম রাকাত গেল। এবার দ্বিতীয় রাকাত শুরু হইল, মনে হয় সবাই ঠিক করল আর হাসবেনা। কিন্তু আবার এক কোনা হতে হাসি শুরু হইল এবং একই ঘটনার পুনরাবৃত্তি হইল তৃ্তীয় রাকাত পর্যন্ত। অবশেষে ইমাম সাহেব সালাম ফিরালে, ভুইয়া স্যার বললেন “ইমাম সাহেব, নামাজ হয়নাই, নামাজ আবার পড়ান।” দ্বিতীয়বার অবশ্য হাসি ছাড়াই নামাজ শেষ হইছিল।
পোলাপানেরা, এই ঘটনার সাক্ষীরা একটু আওয়াজ দাও।

২,৪৭৫ বার দেখা হয়েছে

৩০ টি মন্তব্য : “হাওয়ার বুলেট ও একটি ছোট্ট ঘটনা”

  1. “ইমাম সাহেব, নামাজ হয়নাই, নামাজ আবার পড়ান।”

    :khekz: :khekz: :khekz:
    অনেকদিন পর গলা ছাইড়া হাসলাম।

    ব্লগে স্বাগতম ভাইয়া। নামের পাশে কলেজে অবস্থান সময়টা একটু দিয়ে দিবেন কি।

    জবাব দিন
  2. Okay,I do not have Bangla font in the office PC.I was calculating the marks of home journals and sporadically started reading this.The result:I started laughing my gutter off with the loudest voice possible and tear of laughter came out.My departmental head came out of his room and thought that I have gone mad.I was caught red handed using the office PC in checking CCB(while 2 of the faculty members were waiting on the row...)

    Being a shitty TA,I think I am going to get a warning letter....

    But trust me, I don't mind!!!
    =)) =)) =)) =)) =)) =)) =)) =))

    জবাব দিন
  3. জুনায়েদ কবীর (৯৫-০১)

    আঁমিন ভাঁই, শুঁরুতেই কিঁ দিঁলেন মামাঁ... =))

    (নাঁক চাঁইপ্যা ধঁইরা কঁমেন্ট কঁরছি...তাঁই হিঁমেশ রেঁশামিয়া টাঁইপ হঁইয়া গেঁছে :khekz: )


    ঐ দেখা যায় তালগাছ, তালগাছটি কিন্তু আমার...হুঁ

    জবাব দিন
  4. আহসান আকাশ (৯৬-০২)

    আমিন ভাই, ফাটাফাটি...
    মনে আছে ২য় বার নামাজ শুরুর আগে হুজুর বলেছিল," কারো ওজু দরকার হলে করে আসেন" তবে মনে নাই কেও ওজু করতে গিয়েছিল কিনা...


    আমি বাংলায় মাতি উল্লাসে, করি বাংলায় হাহাকার
    আমি সব দেখে শুনে, ক্ষেপে গিয়ে করি বাংলায় চিৎকার ৷

    জবাব দিন
    • আমীন (১৯৯১-৯৭)

      আরে দোস্ত আর কইছনা, একটা জার্নাল এর রিভিউয়ারদের কমেন্ট এর উত্তর প্রস্তুত করতে গিয়া মাথা খারাপ হয়ে গেছে। এমন সব কমেন্ট করছে, মনে হয় হাওয়ার বুলেট ছারলেও দোষ। এমনিতে এখন ভাল আছি।

      তুই ত লেইখা ফাটায়া ফালাইছচ। চালায়া যা। পড়তে খুব ভাল লাগছে।

      জবাব দিন
  5. মুসতাকীম (২০০২-২০০৮)

    আমীন ভাই সাবাস। ভাই হাসতে হাসতে গরাগরি খাইতাছি =)) =)) =)) =)) =)) =)) =)) =)) =))


    "আমি খুব ভাল করে জানি, ব্যক্তিগত জীবনে আমার অহংকার করার মত কিছু নেই। কিন্তু আমার ভাষাটা নিয়ে তো আমি অহংকার করতেই পারি।"

    জবাব দিন

মন্তব্য করুন

দয়া করে বাংলায় মন্তব্য করুন। ইংরেজীতে প্রদানকৃত মন্তব্য প্রকাশ অথবা প্রদর্শনের নিশ্চয়তা আপনাকে দেয়া হচ্ছেনা।