চ্যাম্পিয়ন্স লীগ কোয়ার্টার ফাইনাল প্রিভিউ

(এহসান ভাই মেইল করে চ্যাম্পিয়নস লীগ কোয়ার্টার ফাইনালের প্রিভিউ লিখতে অনুরোধ ( সিনিয়রের অনুরোধ = আদেশ) করার পরেই আমি এই প্রিভিউ লেখার সাহস পেলাম। তবে লিখতে গিয়ে বুঝেছি এটা কতটা কঠিন, বিশেষ করে কিছু দল নিয়ে তেমন কোন ধারনা না থাকায়( পোর্তো, বায়ার্ন)। শেষ পর্যন্ত বেশ কিছু ওয়েব সাইট ঘেটে মোটামুটি একটা কিছু দাড় করিয়েছি, আশা করি সবাই কমেন্টের মাধ্যমে এটাকে অর্থবহ করে তুলবে।)

logo

ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড – পোর্তো
১ম লেগঃ ৭ এপ্রিল, ওল্ড ট্রাফোর্ড, ইংল্যান্ড।

কোয়ার্টার ফাইনালের ড্রতে নিঃসন্দেহে সবচেয়ে ভাগ্যবান দল ম্যান ইউ। পোর্তো কাগজে কলমে কোয়ার্টার ফাইনালের দূর্বলতম দল। ম্যান ইউ এ লড়াই এ পরিষ্কার ফেভারিট।

পোর্তো ২০০৪ সালে চ্যাম্পিয়ন্স লীগে চ্যাম্পিয়ন হবার পথে ম্যান ইউকে পরাজিত করে, তবে সে সময় ম্যানেজার ছিল মোরিনহো। গত পর্বে তারা এথলেটিকো মাদ্রিদকে পরাজিত করে কোয়ার্টার ফাইনালে উঠেছে, তারা ১লা নভেম্বর ২০০৮ থেকে চ্যাম্পিয়ন্স লীগ ও ঘরোয়া লীগে অপরাজিত রয়েছে। পোর্তোর পক্ষে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ খেলোয়ার স্ট্রাইকার লিসান্দ্রো লোপেজ, এবারের চ্যাম্পিয়ন্স লীগে ৬ গোল করে এখন পর্যন্ত ২য় সর্ব্বোচ্চ গোলদাতা। এছাড়াও রয়েছে স্ট্রাইকার ক্রিশ্চিয়ান রড্রিগেজ ও মিডফিল্ডার লুকো গঞ্জালেজ।

porto-v-manchester-united

porto-v-manchester-united


গতবারের চ্যাম্পিয়ন ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড এবার ছুটছে ৫ শিরোপা জেতার লক্ষ্যে, তবে ইংলিশ লীগে পরপর দু ম্যাচ হারার পর তা নিয়ে বেশ সন্দেহ দেখা দিয়েছে। তারপরেও রোনাল্ডো, রুনি, তেভেজ, গিগজ, স্কোলস নিয়ে গড়া আক্রমন ভাগ বিশ্বের যে কোন দলের বিরুদ্ধেই ভয়ঙ্কর হয়ে উঠতে পারে। তবে বারবাতভ ইঞ্জুরির কারনে বাইরে রয়েছে। তবে রক্ষনভাগ ফার্গুসনের চিন্তার কারন হয়ে দাড়াতে পারে, ইঞ্জুরির কারনে বাইরে আছে ওয়েস্ট ব্রাউন আর রাফায়েল,ফার্দিনান্দের খেলা এখনো নিশ্চিত নয়, সে ক্ষেত্রে ভিডিচের সাথে সেন্টার ব্যাকে খেলবে ইভানস, আর জন ও’শে খেলবে রাইট ব্যাক হিসেবে। তবে পুরো সিজনে অসাধারন খেলতে থাকা ভিদিচ শেষ দু ম্যাচে খুবই খারাপ খেলেছে, নতুন পার্টনারশীপে তার খেলার উপর অনেকটাই নির্ভর করবে ম্যাচের ফলাফল। তবে তারপরেও ইউনাইটেড তাদের স্বাভাবিক খেলা পারলে সহজেই পোর্তোকে পরাজিত করতে পারবে।

ভিলারিয়াল – আর্সেনাল
১ম লেগঃ ৭ এপ্রিল, এল মাদ্রিগাল, স্পেন।

কোয়ার্টার ফাইনালের ড্র এ ভিলারিয়াল ও আর্সেনাল উভয় দলই কিছুটা সন্তুষ্ট ছিল, কারন এর থেকে সহজ প্রতিপক্ষ বলতে শুধু পোর্তো ছিল। আর উভয় দলই যথেষ্ঠ আত্মবিশ্বাষী থাকবে সেমিফাইনালে উত্তীর্ণ হবার। তবে শক্তিমত্তা ও বর্তমান ফর্মের বিচারে আর্সেনাল কিছুটা হলেও এগিয়ে থাকবে।
gun__1216220344_villarreal2006
দুদল এর আগে ২০০৫-২০০৬ মৌসুমের সেমিফাইনালে মুখোমূখি হয়েছিল, সেবার আর্সেনালের গোলকিপার জেন্স লেহম্যান শেষ মিনিটে রিকুয়েলমের পেনাল্টি ঠেকিয়ে আর্সেনালকে ফাইনালে তুলে দেয়। এরপরে কোনদলই আর সেমিফাইনালে উঠতে পারেনি।

ভিলারিয়াল এবারের লীগে একটি ম্যাচ হেরেছে, গ্রুপ পর্বে সেলটেকের কাছে ২-০ গোলে, আর ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের সাথে দুবার গোলশুন্য ড্র করেছে। আর্সেনালের সাথে তারা যদি তাদের এই ডিফেন্সিভ পারফরমেন্স বজায় রাখতে পারে আর রসি, সেনা, পিরেস আর নিহাত যদি আর্সেনালের রক্ষনভাগের উপর চাপ সৃস্টি করতে পারে তাহলে ভিলারিয়াল ০৫/০৬ মৌসুমের প্রতিশোধ নিয়ে সেমিফাইনালে উঠে যেতে পারবে। তবে ইঞ্জুরির কারনে মিস করবে কাজোরোলাকে। ভিলারিয়ালের পক্ষে এবারের চ্যাম্পিয়ন্স লীগে সর্বোচ্চ ৪ গোল করেছে লরিয়েন্তে , যার সবগুলোই বদলী হিসেবে নেমে।

আর্সেনাল এবারের মৌসুমে প্রতাশা অনুযায়ী পারফরমেন্স করতে পারেনি, ইংলিশ লীগে চতুর্থ হবার জন্য লড়াই করতে হচ্ছে তাদের। তবে এই মুহুর্তে তারা মৌসুমের সেরা ফর্মে রয়েছে, আগের পর্বে তারা রোমাকে টাইব্রেকারে হারিয়ে তারা কোয়ার্টার ফাইনালে উত্তীর্ণ হয়। ২০০৯ সালে তারা এখনো অপরাজিত রয়েছে। ইঞ্জুরির কারনে তারা মিস করবে ভ্যান পারসিকে, আর আরশাভিন কাপ টাইড হওয়ায় খেলতে পারবে না, তবে ইঞ্জুরি থেকে দলে ফিরেছে ফ্যাব্রিগাস, ওয়ালকট এবং আডাবায়োর। সব মিলিয়ে আর্সেনালকেই ফেভারিট বলব।

লিভারপুল – চেলসি
১ম লেগঃ ৮ এপ্রিল, অ্যানফিল্ড, ইংল্যান্ড।

টানা পঞ্চমবারের মত চ্যাম্পিয়ন্স লীগে মুখোমুখি হতে যাচ্ছে লিভারপুল ও চেলসি। ০৪-০৫ এবং ০৬-০৭ দুবারেই সেমিফাইনালে চেলসিকে হারিয়ে ফাইনালে যায় লিভারপুল আর গতবছর এর বদলা নিয়ে সেমিফাইনালে লিভারপুলকে হারিয়ে ১ম বারের মত ফাইনালে উঠেছিল চেলসি। এবারের ইংলিশ লীগে দুবার মুখোমুখি হয়েছে এ দুদল, দুবারই জয় পেয়েছে লিভারপুল। তবে ম্যাচ দুটোই ছিল স্কলারি চেলসির ম্যানেজার থাকা অবস্থায়, গাস হিডিঙ্ক দায়িত্ব নেবার পর থেকে চেলসি ফর্মে ফিরে এসেছে, আর হিডিঙ্ক আন্তর্জাতিক পর্যায়ে নক-আউট কম্পিটিশনে অন্যতম সফল ট্যাক্টেশিয়ান।
GYI0000601632.jpg
তবে লিভারপুল এই মুহুর্তে দুর্দান্ত ফর্মে রয়েছে, শেষ ৪ ম্যাচে তারা ১৪ গোল করেছে, রিয়াল মাদ্রিদ, ম্যান ইউ দুদলকেই দিয়েছে ৪ গোল করে। সেই সাথে রাফায়েল বেনিটেজ ও জেরার্ড তাদের চুক্তি নবায়ন করেছে লিভারপুলের সাথে, যা মোর‌্যাল বুস্টার হিসেবে কাজ করেছে পুর দলের জন্য। তাদের মূল তারকা হচ্ছে ফার্নান্ডো টরেজ ও স্টিভেন জেরার্ড। সেই সাথে রয়েছে ডার্ক কুয়েট, আলোনসো, রিয়েরা, যারা সবাই এখন ফর্মে আছে। চেলসির ফর্মের উন্নতির পিছনে হিডিঙ্কের সাথে সাথে এসিয়েনের ইঞ্জুরি থেকে ফিরে আসাও যথেষ্ঠ ভূমিকা রেখেছে, সে সাথে বালাক, ল্যাম্পার্ড ও ছন্দ ফিরে পেয়েছে। এ দুদলের খেলায় গোল খুব বেশি হবে বলে মনে হয় না, তবে লিভারপুলকেই ফেভারিট মানতে হবে।

বায়ার্ন মিউনিখ – বার্সিলোনা
১ম লেগঃ ৮ এপ্রিল, ন্যু ক্যাম্প, স্পেন।

s_56eto toni-ribery-bayern-munich
ইউরোপিয়ান ফুটবল ইতিহাসের দুই জায়ান্টের মধ্যে এই লড়াই হয়ে উঠতে পারে কোয়ার্টার ফাইনালের সবচেয়ে আকর্ষনীয় ম্যাচ। তবে বায়ার্ন মিউনিখ সাম্প্রতিক কালে ইউরোপে তেমন কোন সাফল্যই পায়নি, অন্যদিকে বার্সিলোনা এই মুহুর্তে ইউরোপের সবচেয়ে আকর্ষনীয় দল। বায়ার্ন ১২-১ গোলের এগ্রিগেটে স্পোর্টিং লিসবনকে উড়িয়ে কোয়ার্টার ফাইনালে উঠলেও বার্সিলোনার বিপক্ষে তাদের সফলতার সম্ভাবনা কম, জার্মান লীগের সর্বশেষ ম্যাচে তারা হেরেছে ৫-১ গোলে, অবশ্য সে ম্যাচে খেলেনি বায়ার্নের মূল চালিকা শক্তি ফ্রাঙ্ক রিবেরি। বার্সিলোনার সাথে জিততে হলে রিবেরির সাথে সাথে জ্বলে উঠতে হবে জাস্টিন সোয়ার্স্নাইগার, লুকা টনি ও মিরোস্লাভ ক্লোজকে।বার্সিলোনা এ মৌসুমের শুরু থেকেই অসাধারন ফর্মে রয়েছে, মেসি, ইতো আর অরি মিলে লীগে এ পর্যন্ত ৫৯ গোল করেছে।মিডফিল্ডে আছে জাভি, ইনিয়েস্তা। বায়ার্নের পক্ষে তাদেরকে আটকে রাখা কঠিন হবে। তাই বার্সিলোনাকেই আমি ফেভারিট মানবো।

আশা করি সবাই যার যার প্রেডিকশন জানাবে…

৭,১৫৫ বার দেখা হয়েছে

১২৮ টি মন্তব্য : “চ্যাম্পিয়ন্স লীগ কোয়ার্টার ফাইনাল প্রিভিউ”

  1. কামরুল হাসান (৯৪-০০)

    ১। ম্যান ইউ
    ২। আর্সেনাল
    ৩। লিভারপুল
    ৪। বার্সেলোনা

    B-) B-) B-)


    ---------------------------------------------------------------------------
    বালক জানে না তো কতোটা হেঁটে এলে
    ফেরার পথ নেই, থাকে না কোনো কালে।।

    জবাব দিন
  2. এহসান (৮৯-৯৫)

    স্পেনিশ লীগে কোনো কোচ বেশী দিন টিকে না। আর স্পেনে এখন পর্যন্ত সবচেয়ে বেশী দিন ধরে টিকে (২০০৪) আছে ভিয়ারিয়ালের চিলিয়ান কোচ ম্যানুয়েল পেলেগ্রিনো। অনেকেই হয়তো জানে না কিন্তু পেলেগ্রিনো চাচা খুব ভালো ট্যাকটিশিয়ান। তাই আমার ধারনা আর্সেনাল ভিয়ারিয়াল খেলাটা অনেক টাইট হবে এবং যতসহজে আর্সেনালের সাপোর্টাররা সব কিছু নিশ্চিত ধরে নিচ্ছে তত সোজা হবে না। .
    ভিয়ারিয়ালের দুইটা ভালো ডিফেন্সিভ মিডফিল্ডার আছে, সিয়েনা আর আর ঊরুগুয়ের সেবাস্টিয়ান ইগুরেন। এই দুইজন প্রতিপক্ষের সৃজনশীলতা নষ্ট করে দিতে পারে। ম্যান ইউ এর সাথে ওল্ড ট্রাফোর্ডে ০-০ ড্র তাদের ডিফেন্সিভ শক্তির প্রমান দেয়। কিন্তু সান্তি কারজোলা ইঞ্জুরড হয়ে যাওয়াটা একটা বিশাল ক্ষতি। কিন্তু চিলিয়ান মাতি ফার্নান্দেজ় আর আর্জেন্টাইন প্লেমেকার Ariel Ibagazaও আছে। আমার ধারনা আজকে যদি ভিয়ারিয়াল যদি কোনো গোল না খায় ওইটাই ওদের জন্য ভালো রেজাল্ট। আর ভিয়ারিয়াল এমি্রেটস এ গিয়ে গোল করে ফেলতে পারে। রসি, কানী, নিহাত, লরেন্তে গালাস আর তুরে কে ভালোই জ্বালানোর ক্ষমতা রাখে।
    আর্সেনাল হারলে মজা লাগবে কিন্তু তারপরো আমি চাই আর্সেনাল জিতুক। কারন এই ভোদাইরা যত খারাপ ফর্মেই থাকুক ম্যান ইউ এর সাথে দারুন খেলে। তাই আমি সেমিফাইনালে আর্সেনাল রে চাই।

    আজকে কি লাইভ কমেন্ট্রি চলবে?

    অফটপিকঃ কালকে একটা দারুন খবর পড়লাম। ভেবেছিলাম একটা লেখা দিবো। যাই হোক লিংক দিলাম। ম্যাঞ্চেস্টার এরিয়ার এক লোকাল খেলায় প্রতিপক্ষের এক খেলোয়ার পশ্চাতদেশ দিয়ে সশব্দে বায়ু নির্গত করায় রেফারী পেনাল্টী শট পুনরায় নিতে বলেন এবং বায়ু নির্গতকারী ওই খেলোয়ারকে অশোভন আচরনের দায়ে হলুদ কার্ড দেখান। 😕

    জবাব দিন
    • কামরুল হাসান (৯৪-০০)
      অফটপিকঃ কালকে একটা দারুন খবর পড়লাম। ভেবেছিলাম একটা লেখা দিবো। যাই হোক লিংক দিলাম। ম্যাঞ্চেস্টার এরিয়ার এক লোকাল খেলায় প্রতিপক্ষের এক খেলোয়ার পশ্চাতদেশ দিয়ে সশব্দে বায়ু নির্গত করায় রেফারী পেনাল্টী শট পুনরায় নিতে বলেন এবং বায়ু নির্গতকারী ওই খেলোয়ারকে অশোভন আচরনের দায়ে হলুদ কার্ড দেখান।

      :khekz: :khekz: :khekz:


      ---------------------------------------------------------------------------
      বালক জানে না তো কতোটা হেঁটে এলে
      ফেরার পথ নেই, থাকে না কোনো কালে।।

      জবাব দিন
    • আহসান আকাশ (৯৬-০২)

      বস ঐ খবরটা দেখেছিলাম, হাসতে হাসতে শেষ... তবে কোচের কথা শুনে তো মনে হলো কাহিনি আছে একটা, ১ম কিকটা তো মিস করেছিল...

      আমার মনে হয় ইংলিশ লীগের ডিসাইডিং ফ্যাক্টর হবে আর্সেনালের সাথে ম্যান ইউ আর লিভারপুলের ম্যাচ, চেলসির সাথেও ম্যাচ আছে।


      আমি বাংলায় মাতি উল্লাসে, করি বাংলায় হাহাকার
      আমি সব দেখে শুনে, ক্ষেপে গিয়ে করি বাংলায় চিৎকার ৷

      জবাব দিন
  3. এহসান (৮৯-৯৫)
    ইংলিশ লীগের ডিসাইডিং ফ্যাক্টর হবে আর্সেনালের সাথে ম্যান ইউ আর লিভারপুলের ম্যাচ

    হতে পারে। কিন্তু ভিলার সাথে মাচেদার গোলটাও ডিসাইদিং ফ্যাক্টর হতে পারে। এই দারুন গোল টা গোল অফ দ্য সিজন না হলেও মোস্ট ইম্পরট্যান্ট গোল অফ দ্য সিজন হইতে পারে 🙁

    জবাব দিন
    • আহসান আকাশ (৯৬-০২)

      ১৭ বছরের পোলা,ভাবতে অবাকই লাগে...কি গোলটাই না দিল :boss:

      তবে আমি কিন্তু ব্যাপক খুশি হইছিলাম, ভিলা আরও পিছায় পড়ল, আর ম্যান ইউ'র সাথে পয়েন্ট পেয়ে গেলে ওদের মোর‌্যাল আর বিলিভ অনেক বেড়ে যেত, এখন আর ৪র্থ'র জন্য আর্সেনালের সাথে না, ৫ম এর জন্য এভারটনের সাথে ফাইট দিবে ওরা :grr:


      আমি বাংলায় মাতি উল্লাসে, করি বাংলায় হাহাকার
      আমি সব দেখে শুনে, ক্ষেপে গিয়ে করি বাংলায় চিৎকার ৷

      জবাব দিন
    • আহসান আকাশ (৯৬-০২)

      সেটা হইছে পরের স্টেজ নিশ্চিত হয়ে যাওয়ায় পোর্তোর সাথে শেষ ম্যাচে(এওয়ে) আর্সেনাল ইয়াং প্লেয়ার নিয়ে খেলে হেরে যায়, তার আগে হোম ম্যাচে আর্সেনাল ৪-০ গোলে হারায় পোর্তোকে।


      আমি বাংলায় মাতি উল্লাসে, করি বাংলায় হাহাকার
      আমি সব দেখে শুনে, ক্ষেপে গিয়ে করি বাংলায় চিৎকার ৷

      জবাব দিন
  4. হাসান (১৯৯৬-২০০২)
    ২০০৯ সালে তারা এখনো অপরাজিত রয়েছে।

    একমত হতে পারছি না। কারণ আগের পর্বে কিন্তু ভিলারিয়েল ম্যাচ জেতায় পরবর্তী রাউন্ডে কে যাবে তা নির্ধারণ করতে টাইব্রেকের প্রয়োজন হয়েছিল।

    জবাব দিন
  5. আহসান আকাশ (৯৬-০২)

    টিম নিউজঃ

    ভিলারিয়ালঃ Diego Lopez, Angel, Godin, Rodriguez, Capdevila, Cani, Senna, Eguren, Ibagaza, Rossi, Llorente. Subs: Viera, Pires, Franco, Fernandez, Nihat, Javi Venta, Fuentes.

    আর্সেনালঃ Almunia, Sagna, Toure, Gallas, Clichy, Denilson, Song Billong, Fabregas, Walcott, Nasri, Adebayor. Subs: Fabianski, Vela, Silvestre, Djourou, Bendtner, Eboue, Gibbs.

    ম্যান ইউঃ Van der Sar, O'Shea, Vidic, Evans, Evra, Fletcher, Carrick, Scholes, Ronaldo, Rooney, Park. Subs: Foster, Neville, Eckersley, Giggs, Nani, Tevez, Macheda.

    পোর্তোঃ Helton, Sapunaru, Rolando, Bruno Alves, Cissokho, Lucho Gonzalez, Fernando, Raul Meireles, Lopez, Hulk, Rodriguez. Subs: Nuno, Stepanov, Mariano Gonzalez, Costa, Madrid, Farias, Sektioui.


    আমি বাংলায় মাতি উল্লাসে, করি বাংলায় হাহাকার
    আমি সব দেখে শুনে, ক্ষেপে গিয়ে করি বাংলায় চিৎকার ৷

    জবাব দিন
  6. আহসান আকাশ (৯৬-০২)

    ব্রুনো আলভেজ এর ভাগ্য ভাল যে ও কলম্বিয়ার না, তাহলে এস্কাবারোর মত শুট করত


    আমি বাংলায় মাতি উল্লাসে, করি বাংলায় হাহাকার
    আমি সব দেখে শুনে, ক্ষেপে গিয়ে করি বাংলায় চিৎকার ৷

    জবাব দিন
  7. এহসান (৮৯-৯৫)

    আর্সেনাল যা খেলতাছে কোনো চান্স নাই।খেলা শেষ হবার আগেই ১/২ টা লাল কার্ড হইতে পারে। আর এরমধ্যে ১টা খাইসে, আহসান কিছু দেখি কয় না...

    পোর্তোও ভালো খেলতাছে। এওয়ে গোল একটা পেয়ে গেছে। আর একটা পাবে মনে হয়।ীভাবে চল্লে আইজকা মাচেদা, তেভেজ সবাইরে ২য় হাফের শুরুতেই লাগবে

    জবাব দিন
  8. আহসান আকাশ (৯৬-০২)

    হাল্ক তো পুরা পাগলা, পুরা ম্যাচে কোন পাস দিছে কিনা সন্দেহ, বল পাইলেই পাগলের দৌড় বল নিয়ে :)) :)) :)) তবে বল হোল্ড করতে পারে ভাল


    আমি বাংলায় মাতি উল্লাসে, করি বাংলায় হাহাকার
    আমি সব দেখে শুনে, ক্ষেপে গিয়ে করি বাংলায় চিৎকার ৷

    জবাব দিন
  9. আহসান আকাশ (৯৬-০২)

    আদাবায়োরের গোলটা দেখলাম... এইটা কি গোল দিল 😮 😮 😮

    জিদানের এই রকম একটা দেখছিলাম, তবে আদাবায়োরেরটা ওইটার চেয়েও ফাটাফাটি হইছে


    আমি বাংলায় মাতি উল্লাসে, করি বাংলায় হাহাকার
    আমি সব দেখে শুনে, ক্ষেপে গিয়ে করি বাংলায় চিৎকার ৷

    জবাব দিন
    • রকিব (০১-০৭)

      আদা জল খাইয়া লাগছিল, গোল হইবো না আবার।
      তবে আর্সেনাল-ভিলারিয়াল এর ম্যাচটা শেষ দিকে কেমন নিস্তেজ লাগছে। সেই তুলনায় ম্যান ইউ-পোর্তো স্পিডি ছিল। :-B


      আমি তবু বলি:
      এখনো যে কটা দিন বেঁচে আছি সূর্যে সূর্যে চলি ..

      জবাব দিন
      • আহসান আকাশ (৯৬-০২)

        পোর্তো অসাধারন এটাকিং ফুটবল খেলছে, পুরো ৯০ মিনিট, তাও ম্যান ইউ'র সাথে ওল্ড ট্রাফোর্ডে... অনেক দিন পর এই রকম খেলা দেখলাম।


        আমি বাংলায় মাতি উল্লাসে, করি বাংলায় হাহাকার
        আমি সব দেখে শুনে, ক্ষেপে গিয়ে করি বাংলায় চিৎকার ৷

        জবাব দিন
      • এহসান (৮৯-৯৫)
        আর্সেনাল-ভিলারিয়াল এর ম্যাচটা শেষ দিকে কেমন নিস্তেজ লাগছে। সেই তুলনায় ম্যান ইউ-পোর্তো স্পিডি ছিল।

        একমত।আল্মুনিয়া আর গালাস ইঞ্জুরড হয়ে যাওয়াতে আক্রমনে আর্সেনাল বদলী খেলোয়াড় নামাতে পারতেসিলো না। তাই আর্সেনাল গোল না খাওয়ার জন্য খেলসে। আর এডিবায়র বল ধরে খেলা স্লো করার জন্য একক স্ট্রাইকার হিসাবে খেলতেসিলো। চামে গোল পেয়ে গেছে। এপ্রিল মাসে আর্সেনাল রে ৮টা খেলা খেলতে হবে। এস্টন ভিলার আর কোনো বড় খেলা নাই। তাই আর্সেনালের আগামীবার চ্যাম্প লিগে খেলা একটু অনিশ্চিত হয়ে পড়তে পারে।

        মনে হচ্ছে হোম ম্যাচে পোর্তো ধরা খাবে।

        আমার মনে হচ্ছে না। হাল্ক তো ম্যান ওফ দ্য ম্যাচ। জেনুইন পেনাল্টি দিলো না। পেনাল্টি ছাড়াও এভ্রা আর ভিদিচ ক্রমাগত বেচারারে মারসে।ঙ্কিন্তু মাইরে কোনো কাম হয় নাই। এই জন্যই অর নিক নেম হাল্ক। পোর্তোতে গিয়ে রেফারীর ফেবার ম্যান ইউ পাবে না মনে হয়।

        দ্রগবা আর এসিয়েন ফিরে আসায় হঠাৎ করেই ব্যালেন্সড হয়ে গেছে। কালকে মনে হয় আনেলকা খেল্বে না। চেলসির হিডিংককেই বেশী ভয়। সারাজীবন আন্ডারডগ টীম নিয়া ভালো খেলে গেলো... দক্ষিন কোরিয়া, রাশিয়া...

        জবাব দিন
        • আহসান আকাশ (৯৬-০২)

          এস্টন ভিলা'র টাফ ম্যাচ বলা যায় শুধু এভারটনের সাথে, ওরাও ৫ম এর জন্য ফাইট দিচ্ছে ১ পয়েন্ট পিছনে আছে মাত্র। তবে বাকি যে ম্যাচ গুলো আছে সব রেলিগেশনে ফাইট দেয়া দল গুলোর সাথে, এরা এই শেষ সময়ে এসে এতটাই মরিয়া হয়ে খেলে যে প্রায়ই বেশ কিছু রেজাল্ট বের করে নেয়, সেটাই এখন ভরসা। ম্যান ইউ'র ও এ রকম ২/১ টা ম্যাচ আছে।


          আমি বাংলায় মাতি উল্লাসে, করি বাংলায় হাহাকার
          আমি সব দেখে শুনে, ক্ষেপে গিয়ে করি বাংলায় চিৎকার ৷

          জবাব দিন
  10. আহসান আকাশ (৯৬-০২)

    গোল খাইয়া চেলসি তো পুরা পাগলা হয়ে গেছে... দ্রগবা কি মিস করল ওইটা!!


    আমি বাংলায় মাতি উল্লাসে, করি বাংলায় হাহাকার
    আমি সব দেখে শুনে, ক্ষেপে গিয়ে করি বাংলায় চিৎকার ৷

    জবাব দিন
  11. আহসান আকাশ (৯৬-০২)

    চরম মজা পাচ্ছি লিভারপুল-চেলসির এই ফ্রি ফ্লোইং খেলা দেখে :clap: :clap:


    আমি বাংলায় মাতি উল্লাসে, করি বাংলায় হাহাকার
    আমি সব দেখে শুনে, ক্ষেপে গিয়ে করি বাংলায় চিৎকার ৷

    জবাব দিন
  12. আহসান আকাশ (৯৬-০২)

    দ্রগবা ঠিক মত খেললে চেলসি মিনিমাম ২ গোলের লীড নিতে পারত


    আমি বাংলায় মাতি উল্লাসে, করি বাংলায় হাহাকার
    আমি সব দেখে শুনে, ক্ষেপে গিয়ে করি বাংলায় চিৎকার ৷

    জবাব দিন
  13. এহসান (৮৯-৯৫)

    তলেপেটে ব্যাথা করতেছে। হাফ তাইমের আগেই কেইস করে ফেলা উচিত ছিলো। এখন হারামী গুস কি চাল চাল্বে আল্লাহই জানে। এখন পর্যন্ত সব ঠিক মত আগাইতেছে।

    জবাব দিন
  14. আহসান আকাশ (৯৬-০২)

    নাহ... এক রেইনাই তো লিভারপুলরে ডুবায় দিল x-(


    আমি বাংলায় মাতি উল্লাসে, করি বাংলায় হাহাকার
    আমি সব দেখে শুনে, ক্ষেপে গিয়ে করি বাংলায় চিৎকার ৷

    জবাব দিন
  15. আহসান আকাশ (৯৬-০২)

    বার্সিলোনারে সেমিফাইনালেও আর আটকানো গেলো না, লিভারপুল হইলে একটু চান্স ছিল...


    আমি বাংলায় মাতি উল্লাসে, করি বাংলায় হাহাকার
    আমি সব দেখে শুনে, ক্ষেপে গিয়ে করি বাংলায় চিৎকার ৷

    জবাব দিন
  16. আহসান আকাশ (৯৬-০২)

    এইটা কি খেলা দেখতেছি 😮 ...

    এর জন্যই ফুটবল বস :boss: :boss: ... ক্রিকেট বা অন্য কোন খেলা এর ধারে কাছেও নাই


    আমি বাংলায় মাতি উল্লাসে, করি বাংলায় হাহাকার
    আমি সব দেখে শুনে, ক্ষেপে গিয়ে করি বাংলায় চিৎকার ৷

    জবাব দিন

মন্তব্য করুন

দয়া করে বাংলায় মন্তব্য করুন। ইংরেজীতে প্রদানকৃত মন্তব্য প্রকাশ অথবা প্রদর্শনের নিশ্চয়তা আপনাকে দেয়া হচ্ছেনা।