চ্যাম্পিয়ন্স লীগ ০৯/১০ গ্রুপ পর্ব- ড্র

ক্লাব ফুটবলের সবচেয়ে জনপ্রিয় টুর্নামেন্ট ইউয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লীগের ০৯/১০ মৌসুমের গ্রুপ পর্বের ড্র অনুষ্ঠিত হয়েছে। মোট ৩২টি দলকে ৮ গ্রুপে ভাগ করা হয়েছে। প্রতি গ্রুপ থেকে প্রথম দুটি দল পরের পর্বে খেলার যোগ্যতা অর্জন করবে। এবারে গ্রুপ পর্বের ড্রতে তেমন কোন চমক নেই বললেই চলে, ফেবারিট দলগুলো ঝামেলা ছাড়াই পরবর্তী পর্বে উঠে যাবে বলে মনে হয়।
a

গ্রুপ এঃ বায়ার্ন মিউনিখ, জুভেন্টাস, বোর্দো, মাকাবি হাফিয়া।
এ গ্রুপের ফেভারিট বায়ার্ন এবং জুভেন্টাস। ফ্রান্সের বোর্দো চমক দেখাতেও পারে তবে সে সম্ভাবনা কম।

গ্রুপ বিঃ ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড, সিএসকেএ মস্কো, বেসিকটাস, উলফসবার্গ।
বি গ্রুপের থেকে ফেভারিট ম্যান ইউ আর জার্মান চ্যাম্পিয়ন উলফসবার্গ। সিএসকেএ মস্কো নিজেদের মাঠে যেকোন দলকেই আটকে দিতে পারে, ২য় স্থানের জন্য তারাও উলফসবার্গের সাথে লড়াই করবে। ম্যান ইউ’র জন্য গ্রুপ খুব একটা সহজ হয়নি।তাদেরকে খেলতে রাশিয়া এবং তুরস্কে খেলতে যেতে হবে যেখানে এওয়ে ম্যাচ সবসময়ই কঠিন সেই সাথে মুখোমুখি হতে হবে জার্মান চ্যাম্পিয়নদের। ২য় পর্বে উঠতে খুব বেশি সমস্যা না হলেও তিনটি কঠিন এওয়ে ম্যাচ, সে সাথে ভ্রমন দূরত্ব, এ দুইয়ের প্রভাব তাদের ঘরোয়া লীগের পারফর্মেন্সের উপরে পড়তে পারে।
a ম্যান ইউকে সাফল্য পেতে হলে এদের দুজঙ্কেই জ্বলে উঠতে হবে।

গ্রুপ সিঃ এসি মিলান, রিয়াল মাদ্রিদ, মার্সেই, এফসি যুরিখ।
সি গ্রুপের ফেবারিট এসি মিলান এবং রিয়াল। ট্রান্সফার মার্কেটে ঝড় তুলে শক্তিশালী দল গড়েছে রিয়াল, সে সাথে এবারের চ্যাম্পিয়ন্স লীগের ফাইনাল হবে রিয়ালে বার্নাবাউ স্টেডিয়ামে, এবারের মৌসুমে তাই রিয়ালের লক্ষ্য থাকবে চ্যাম্পিন্সীপ। কাকাকে মুখোকুখি হতে হবে তার পুরোনো ক্লাব এসি মিলানকে।
a

গ্রুপ ডিঃ চেলসি, পোর্টো, এথল্যাটিকো মাদ্রিদ, এপিওইএল নিকোসিয়া।
এবারের ড্রতে ডি গ্রুপকে সবপচেয়ে কঠিন গ্রুপ বলে মনে হচ্ছে। চেলসি, পোর্টো, এথল্যাটিকো তিন দলেরই সম্ভাবনা রয়েছে ২য় পর্বে যাবার। তবে এদের মসঝ থেকে আমি এগিয়ে রাখবো চেলসি আর এথলেটিকো মাদ্রিদকে।

গ্রুপ ইঃ লিভারপুল, লিওঁ, ফিওরেন্টিনা, ডেবরেকিন।
ই গ্রুপ থেকে লিভারপুলের পরের পর্বে যাওয়া নিশ্চিত বলা যায়। ২য় স্থানের জন্য লিঁও আর ফিওরেন্টিনার মধ্যে ভালো প্রতিদ্বন্দিতা হবে।

গ্রুপ এফঃ বার্সেলোনা, ইন্টার মিলান, ডায়নামো কিয়েভ, রুবিন কাযান।
এফ গ্রুপের মূল আকর্ষন হবে ইতো আর ইব্রাহোমিভিচ এর লড়াই। বার্সিলোনা আর ইন্টার মিলানের পরবর্তী পর্বে যাওয়া এক প্রকার নিশ্চিত বলা যায়।
a জার্সি বদলে মুখোমুখি।

গ্রুপ জিঃ সেভিয়া, রেঞ্জারস, স্টুটগার্ট, উইনিরিয়া উর্যিকেনি
জি গ্রুপ থেকে ফেভারিট সেভিয়া এবং রেঞ্জার্স। অন্য দল দুটি সম্পর্কে তেমন কোন ধারনা না থাকায় কিছু বলতে পারছি না।

গ্রুপ এইচঃ আর্সেনাল, আকমার, অলিম্পিয়াকোস,স্টান্ডার্ড লীইজ।
এবারের ড্র এর সবচেয়ে ভাগ্যবান দল আর্সেনাল। কাগজে কলমে তারাই সহজতম প্রতিপক্ষের মুখোমুখি হচ্ছে। গ্রুপের ২য় দল হিসেবে হল্যান্ডের লীগ চ্যাম্পিয়ন আকমার ফেবারিট।

গ্রুপ পর্বের খেলা শুরু হচ্ছে ১৫ সেপ্টেম্বর। এ পর্বের মূল আকর্ষন হিসেবে বলা যেতে পারে বায়ার্ন মিউনিখ – জুভেন্টাস, বার্সেলোনা – ইন্টার মিলান, এসি মিলান – রিয়াল মাদ্রিদ এই ম্যাচ গুলো।

এই ড্র এর পাশাপাশি গত মৌসুমের ইউরোপের সেরা খেলোয়ারদেরও পুরষ্কৃত করেছে ইউয়েফা।

সেরা গোলরক্ষকঃ ভ্যান ডার সার (ম্যান ইউ)
সেরা ডিফেন্ডারঃ জন টেরি (চেলসি)
সেরা মিডফিল্ডারঃ জাভি (বার্সিলোনা)
সেরা স্ট্রাইকারঃ লিওনেল মেসি (বার্সিলোনা)
বর্ষসেরা খেলোয়ারঃ লিওনেল মেসি (বার্সিলোনা)

* এহসান ভাইয়ের আদেশেই আমার এই লেখা। অনেক দল সম্পর্কে পর্যাপ্ত ধারনা না থাকায় গ্রুপগুলোর বিশ্লেষন বেশির ভাগ ক্ষেত্রেই পূর্নাঙ্গতা পায়নি। তাই সিসিবির ফুটবলবোদ্ধাদের তাদের বিশেষজ্ঞ মতামত প্রদানের কাছে আবেদন থাকবে।
** বেশ কিছু দলের নামের উচ্চারন নিয়ে আমার সন্দেহ আছে, কোন ভুল থাকলে তা উল্লেখ করার জন্য অনুরোধ থাকল।

১,৫৭৪ বার দেখা হয়েছে

২৮ টি মন্তব্য : “চ্যাম্পিয়ন্স লীগ ০৯/১০ গ্রুপ পর্ব- ড্র”

  1. রকিব (০১-০৭)

    সিসিবির ফুটবলবোদ্ধাদের তাদের বিশেষজ্ঞ মতামত প্রদানের কাছে আবেদন থাকবে।

    খাড়ান আকাশ'দা। দোকান বন্ধ কইরা আইতাছি মতামত দেওয়ার জন্য। 😛 😛
    ইতো-ইভ্রোর লড়াইটা জমবে বলেই আশা রাখছি।


    আমি তবু বলি:
    এখনো যে কটা দিন বেঁচে আছি সূর্যে সূর্যে চলি ..

    জবাব দিন
  2. আহসান আকাশ (৯৬-০২)

    Champions League fixtures, Tuesday 15 September:
    Juventus v Bordeaux,
    Maccabi Haifa v Bayern Munich,
    VfL Wolfsburg v CSKA Moscow,
    Besiktas v Manchester United,
    FC Zurich v Real Madrid,
    Marseille v AC Milan,
    Chelsea v Porto,
    Atletico Madrid v APOEL Nicosia.


    আমি বাংলায় মাতি উল্লাসে, করি বাংলায় হাহাকার
    আমি সব দেখে শুনে, ক্ষেপে গিয়ে করি বাংলায় চিৎকার ৷

    জবাব দিন
  3. এহসান (৮৯-৯৫)

    বহুতদিন পর ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড খারাপ গ্রুপ পাইসে। আমার ধারণা ওরা বাদ পড়বে। আকাশ কোনো চমক দেখে না কিন্তু চমক অবশ্যই আছে। উলফসবার্গ যেখানে ৪র্থ বাছাই দল সেখানে গ্রুপ অফ ডেথ বলা যায় এইটাই।

    সিএসকে মস্কোর স্টেডিয়াম লুঝিনিকিতেই ম্যান ইউ চ্যাম্পিওন্সলীগ জিতেছিলো। কিন্তু এইবার খবএ আসে। মস্কোর সেরা তারকা ওদের ম্যানেজার জিকো। কিন্তু ম্যানেজার হিসাবে ওরে মূল্যায়ন করার সময় আসে নাই। কিন্তু ব্রাজিলিয়ান ম্যানেজারিয়াল রীতি অনুযায়ী ট্যাকটিক্স ভুয়া হবার কথা। কিন্তু ভানিয়ার লাভ আছে স্ট্রাইকার হিসাবে আর কিছু লম্বা রাশিয়ান খেলোয়াড় আছে। আর আছে তুরস্কের এরকিন।

    তুরস্কে গিয়ে যেকোনো দলের সাথেই খেলা কঠিন। ওদের সব গ্যালারী বুম বুম করে ম্নাএ ফ্যানরা দারুণ। বেসিক্টাস সবাইরেই ভুগাবে।

    আর উলসবার্গ তো জার্মান চ্যাম্পিওন। ডিজেকো (DJEKO)একজন সুপার স্ট্রাইকার। আমি অবাক হইসি কোনো বড়দল ওরে এইবার কিনে নাই।

    বেশী লিখতে পারতেসি না। আসলে ম্যান সিটির খেলা দেখতেসি। সুপার খেলা, সুপার ফিজিক্যাল প্লাস ক্ল্যাসিকাল ফুটবল। তেভেজ, আদি, রবিনহো, আয়ারল্যান্ড এর রাইট ফিলিপ্স... জম্পেশ খেলতেসে।এমন খেললে ইংলিশ লীগের বিগ ফোরের নিশ্চিত খবর আসে।

    জবাব দিন
  4. এহসান (৮৯-৯৫)

    চেলসির গ্রুপটা আপাতঃ কঠিন মনে হইলেও আসলে সোজা। পোর্তোর আগের সেই দিন আর নাই। কিন্তু কিছু ইন্টারেস্টিং ব্যাপার আছে। এথলেটিকোর আগুয়েরোরে কিনার অনেক চেষতার পর এখন ওই ব্যাটা চেলসির সাথে গোল করলে চেলসির দুঃখ বাড়বে। আর পোর্তোর সাবেক সোনার ছেলে সিমাও এখন এথলেটিকোতে খেলে। তাই সিমাও এর জন্য বেশ আবেগপ্রবন তাই হবে এটা। কিন্তু চেলসির গ্রুপ চ্যাম্পিওন হবার সম্ভাবনাই বেশী।

    জবাব দিন
  5. এহসান (৮৯-৯৫)

    লিভারপুলের গ্রুপ মোটামুটি সোজা। সোজা এইজন্য যে তেমন কোনো লম্বা সফর নাই। সবগুলো মাঠ জন লেনন এয়ারপোর্ট থেকে দুই আড়াই ঘন্টার পথ। হাঙ্গেরীর ওই দল সম্বন্ধে কোনো ধারণাই নাই। কিন্তু লিয়ন বেশ দুর্বল হয়ে গেছে। তার উপর বেঞ্জেমা নাই। ফিওরেন্টিনা মনে হয় ফাইট দিবে লিভারপুলের সাথে। ইটালিয়ান দলগুলো সব সময়ই গুছানো আর ডিফেন্স টাইট থাকে।

    জবাব দিন
  6. এহসান (৮৯-৯৫)

    ইংলিশ দল গুলোর মধ্যে সবচেয়ে সোজা গ্রুপ আর্সেনালের। আর্সেনাল যেভাবে মৌসুম শুরু করসে, ওরা টপ ফোরের বাইরে যাবে না। ভারমিউলেন্ তো সুপার সাইনিং। ডিফেন্স দারুণ। গালাস তার জীবনের সেরা ফর্মে চলে আসছে। সং, দিয়াবী আর ডেনিলসনও ভালো খেলছে।

    কিন্তু এই গ্রুপে সেকেন্ড হবে বেলজিয়ান স্ট্যান্ডার্ড লীইজ। মারুইনে ফেলাইনী এভারটনে আসায় একটু দুর্বল কিন্তু এখনো অরা বেশ ভালো। Dafour একটা সুপার প্লেয়ার। আগামী মোউসুমে অরে একতা বড় দলে দেখা যাবে আমি নিশ্চিত।

    জবাব দিন
  7. এহসান (৮৯-৯৫)

    এইবারের চ্যাম্পিওন্স লীগের ফেবারিট অবশ্যই রিয়াল মাদ্রিদ। বার্সেলোনার খবর আছে ঘরে বাইরে দুই খানেই। এসি মিলান ভালোই করবে কিন্তু নক আউটে প্রথম খেলাতেই বাদ পড়বে। বাকী দুই দল ভুয়া।

    বার্সেলোনা আর ইন্টার মিলানের গ্রুপেও বাকী দুই দল ভুয়া। কিন্তু মরিনহো এর এতু'ও এর বার্সেলোনা কানেকশন ও অন্যদিকে ইব্রাহোমোভিচ। কিন্তু আমার মনে হইতেসে বার্সেলোনা ইন্টারের কাছে হেরে যাবে। আর যদি তাই ঘটে তাহলে বার্সেলোনা অন্য গ্রুপের চ্যাম্পিওন দল গুলোর মাথা ব্যাথার কারণ হবে।

    এবার ইউরোপের অন্যতম সেরা দল হবে বায়ার্ণ মিউনিখ। ফাটাফাটি দল ওদের। লুকা টনি, ক্লোজা, রিবেরীদের ধরে রাখসে আর আজকে রিয়াল থেকে রোবেনরে কিনেছে। এদের হোল্ডিং মিডফিল্ডার আর সেন্ট্রাল ডিফেন্ডারগুলো যদি ভালো খেলে তাহলে ডার্ক হর্স বায়ার্ণ চ্যাম্পিওনও হয়ে যেতে পারে।

    সবচেয়ে অখাদ্য গ্রুপ হইলো গ্রুপ জ়ি। কিছু লিখলে এইগুলারে বেশী পাত্তা দেয়া হয়ে যাবে।

    জবাব দিন
  8. কামরুল হাসান (৯৪-০০)

    ম্যান ইউ সাপোর্ট করা বাদ দিয়া দিছি।
    এখন আমি বার্সেলোনা। মেসি মেসি আপ আপ।


    ---------------------------------------------------------------------------
    বালক জানে না তো কতোটা হেঁটে এলে
    ফেরার পথ নেই, থাকে না কোনো কালে।।

    জবাব দিন
  9. আমিন (১৯৯৬-২০০২)

    চমৎকার হয়েছে রিভিউ। এহসান ভাইয়ের সাথে আমিও মোটামুটি একমত। ম্যানইউর গ্রুপটা একটু কঠিন হয়ে গেছে। তবে ম্যানইউর সাপোর্টার হিসাবে আমার বিশ্বাশ ম্যানইউ কোয়ার্টার ফাইনাল পর্যন্ত যাবে। তবে এবারের চ্যাম্পিয়নস লিগে বাজি ধরতে হলে আমি চেলসি আর এসি মিলানের পক্ষে যেতাম। চেলসি বেশ শক্তিশালী দল। দলের ব্যালান্স ও চমৎকার আর তার সাথে অ্যানচেলোত্তির চ্যাম্পিয়নস লিগের ভালো করার ধারাবাহিকতা সব মিলিয়ে সম্ভাবনাময়। আর মিলানে আছে রোনালদিনহো। বিশ্বকাপের আগে শেষ মৌসুমে জ্বলে উঠে বিশ্বকাপে র দলের স্থান নিতে চাইবে তাই মিলানকে ধর্তব্যের মাঝে রাখতে হবে। আর্সেনাল ভালো খেলছে , বিগ ম্যাচগুলোতে কতটুকু ধরে রাখতে পারবে তার উপর তাদের সাফল্য নির্ভর করছে। আগামীকালের ম্যানইউর সাথে আর্সেনালের ম্যাচ দেখে অবশ্য আরো ভালো বলা যাবে। বায়ার্ন মিউনিখ ভালো করার সম্ভাবনা আছে। পরপর দুবার চ্যাম্পিয়নস লিগ কেউ জেতে এই ইতিহাস ধরে বার্সা বাদ আর রিয়েল মাদ্রিদ এমনি এমনি বাদ।
    ও হ্যা লিভারপুলের জোর সম্ভাবনা আছে চ্যাম্পিয়ন হওয়ার যতটা তাদের খেলার কারণে তার চেয়ে বেশি ইংল্যান্ড ক্রিকেট দলের এ্যাশেজ জিতার কারণে!!!

    জবাব দিন
  10. হাসান (১৯৯৬-২০০২)

    বোর্দোক্স -- বোর্দো

    সেভিলা -- সেভিয়া

    লিওঁন -- লিঁও

    ফিউরেন্টিনা -- ফিওরেন্টিনা

    বার্সিলোনা -- বার্সেলোনা

    অলিম্পিয়াকস -- অলিম্পিয়াকোস

    আলকামার -- আকমার

    জবাব দিন
  11. এহসান (৮৯-৯৫)

    বার্নেবাউ - বার্নাবাউ, বাংলাদেশে প্রচলিত হলো বার্নব্যু, আমি আগে সচেতন ভাবেই বার্নাবাউ কখনো use করি নাই, kamrul type এর কিছু pongta পোলার ভয়ে। ওরা আবার tease করে এনিওয়েই, বাই দ্য ওয়েই বলে কিনা!!

    জবাব দিন

মন্তব্য করুন

দয়া করে বাংলায় মন্তব্য করুন। ইংরেজীতে প্রদানকৃত মন্তব্য প্রকাশ অথবা প্রদর্শনের নিশ্চয়তা আপনাকে দেয়া হচ্ছেনা।