।। ……একুশ তুমি।।

“একুশ তুমি……” সবাই রচেন, আছেন যত কবি;
আমি ভাবলাম ব্যতিক্রমটা চেষ্টা করে দেখি।
“একুশ তুমি……” শুরুতে নয়, রাখবো তোমায় শেষে;
শতেক কথার কাব্যমালা গাঁথবো একখানা কষে।

শিশির ভেজা সবুজ ঘাসে আলতো হাঁটি আমি;
মনটা আমার ছেঁয়ে থাকো শুধুই একুশ তুমি।
ঈষান কোনে মেঘের ভেলা, সুর্য হাসে রাঙী-
প্রাণে আমার দোলাটি দাও, সেওতো একুশ তুমি।

মুখের ভাষায় এত যে স্বাদ, বুঝিনি আগেতো আমি;
প্রতিটি কথায় মধু মাখাও যেন একুশ তুমি।
এলো-মেলো যে যাই বলুক, কানেতে যখন শুনি-
শব্দগুলো মধুর লাগে জেনো একুশ তুমি।

অ, আ, ক, খ, বুকের মাঝে- জানেন অন্তর্যামী;
সকাল-সন্ধ্যা স্বপ্নে বিভোর আমারই একুশ তুমি।
রফিক, শফিক, সালাম, বরকত,… নামগুলো সব জানি।
ধন্য তারা তোমার তরে মহান একুশ তুমি।

বাংলা আমার মায়ের ভাষা, সকল ভাষার রাণী;
আমার গরব তোমায় নিয়ে, প্রাণের একুশ তুমি।
ফুলে ফুলে আজ উঠবে ভরে শহীদ মিনার খানি,
শ্রদ্ধাঞ্জলী নিবেদনে হও অমর একুশ তুমি।

নগ্ন পায়ে শামিল যে হই, চলছে প্রভাতফেরী;
ভালবাসা আর শ্রদ্ধাজড়ানো- একুশে ফেব্রুয়ারী।।

রচনাকালঃ ফেব্রুয়ারী, ২০১০

২৫০ বার দেখা হয়েছে

৪ টি মন্তব্য : “।। ……একুশ তুমি।।”

মন্তব্য করুন

দয়া করে বাংলায় মন্তব্য করুন। ইংরেজীতে প্রদানকৃত মন্তব্য প্রকাশ অথবা প্রদর্শনের নিশ্চয়তা আপনাকে দেয়া হচ্ছেনা।