১ টাকার কুপন

ক্যাডেট কলেজের অভিজ্ঞতা আমার ৬ ভাগের ৪ ভাগ। কারন আমি এস, এস, সি দিয়ে চলে আসছি।অনেকদিন পর সি সি বি র কিছু ব্লগ পরে আমি স্রিতিকাতর হয়ে পরি।তাই লিখতে বস্লাম। আমি ভাল লিখতে পারি না। সব সময় আমি বাংলায় সব থেকে কম নাম্বার পাইতাম।তাই আগেই সবার কাছে ক্ষমা চেয়ে নিলাম।
আমার কাহিনী আমার এক বন্ধুকে নিয়ে লেখা। তখন আমরা ক্লাস সেভেন এ নতুন আসছি। ১ম ক্যান্টিন খুলছে। খুব মজা করে ১ প্যাকেট পট্যাটো চিপ্স খাইলাম।তার সাথে হাফ বোতল কোক।সবার ধাক্কাধাক্কি তে বাকি অরধেক কোক পড়ে গেছিল।যাই হোক খুবই মজা করে খাইলাম।এরপর যথারিতি নামায পরে প্রেপ এ গেলাম। গিয়ে দেখলাম পাশে বসা তিতাস হাউসের শরিফ এর মন খারাপ। মানে কেউ পাঙ্গা দিসে।জিজ্ঞেস করলাম কি হইসে?? বলল যে পানিশ্মেনট খাইসে।আমি একটু ভাব দেখায় বললাম এইটা ত ক্যাডেট কলেজ,পানিশ্মেন্ট খুবই সাধারন ব্যাপার।ও বলল ওর নাকি কোনো দোষ ছিল না। আমি ওকে সান্তনা দিবার আগাই প্রেপ গারড ভাইয়া ঢুকে সবাই কে জায়গায় বস্তে বলল। বশে শান্ত বালক এর মত বই খুললাম। আমার এক্টা বাজে সভাব ছিল- আমি কেন জানি প্রেপ এ পড়তে পারতাম না। এ জন্য ক্যাডেট লাইফ এ অনেক পাঙ্গা খাইছি।জাই হক মুল ঘটনাতে আসি। ৫ মিনিট পরে মনে পড়ল শরিফ ক তো জিজ্ঞেস করা হইল না।উঠে গিয়ে ভাইয়ার কাছ থেকে অনুমতি নিয়ে ওর কাহিনি শুনলাম……………ওর রুম লিডার ভাইয়া নাকি ২০ টাকার কুপন দিয়ে নাকি অরেঞ্জ ক্রিম বিস্কিট কিনতে বলছিল। বিস্কিট ছিল ১৯ টাকার। ১ টাকার কুপন এর বদলে ওকে ১ টা বিঙগো চক্লেট দিছিল।ও যখন ঐ bingo চক্লেট ভাইয়া ক দেয় তখন নাকি ভাইয়া বলে এইটা কি আনছ??ও বলল ভাইয়া ১ টাকার কুপন নাই। ভাইয়া বলছিল তোমার কাছেও নাই?? শরিফ না বুঝে বলছিল ভাইয়া আসে কিনতু কি করব?? ভাইয়া বলছিল এত বড় বেয়াদব?আমাকে জিজ্ঞেস কর কি করব।আজকে প্রেপ এ রেডী হয়ে কানে ধরে long up হয়ে থাকবে । আমি অবাক হয়ে বললাম ১টাকার কুপন এর জন্য পাঙ্গা খাইলি? এমন অবস্থায় ডিউটি মাস্টার এর আগমন। বলল কি ব্যাপার কি করছ? পড়তে যাও। আমি বললাম স্যার আমার কলম হারায় গেসে 😛 স্যার বলল তারাতারি জায়গায় বস। বসে পড়লাম। কিন্তু কিছুখন পর প্রেপ গারড ভাইয়ার ডাক………নাম কি? কোন হাউস? গাইড কে? তারপর বলল মিথ্যা বলছ কেন? কারন আমি ও জানি এম্ন কি ভাইয়া ও জানে আমি কলম এর জন্য যাইনি। হান্ডস ডাউন করে ৫টা পুশ আপ দিলাম ভাইয়ার আদেশে। সবাই অবাক হয়ে দেখতেসিল কারন ওই টাই সিল আমাদের ফরম এর প্রথম প্রেপ এ পানিশ্মেন্ট। প্রেপ শেষে সবার প্রশ্ন কি হইসিল? কেন এমন করলি?
উত্তরে আমি যত না আমার কাহিনি বলসিলাম তার থেকে বন্ধু দের বেশি ১ টাকার কাহিনি টা বেশি বলসিলাম।

২,৪৭৯ বার দেখা হয়েছে

২৮ টি মন্তব্য : “১ টাকার কুপন”

  1. এরকম কাহিনী সবার জীবনেই ঘটেছে আমাদের কম-বেশী...
    😛

    বানান অনেক ভুল। এইটা সংশোধন করবা। পড়তে অস্বস্তি লাগে, যেহেতু সবাই আগ্রহ করে পড়ে চেষ্টা করিও যেন এই জাতীয় সীমাবদ্ধতা এড়াতে পার।

    সিসিবির সাথেই থাক।

    জবাব দিন
  2. নাজমুল (০২-০৮)

    ক্লাস এইট এর লাইফটা আমার মতে ক্লাস সেভেন থেকেও পিকুলিয়ার। নতুন ক্ষমতা আসার কারণে কারো মাথা ঠিক থাকেনা।
    যেমন তোমার ভাইয়া ১ টাকার জন্য এমন করসে কিন্তু ঠিক এই জিনিসটা যদি একটা ১০ এর কিংবা ১১ এর ক্যাডেট এর সাথে হতো তাহলে সে বলতো চকলেটটা তুমি খেয়ে ফেলো। ক্লাস এইটে এমন হাস্যকর কিছু কাজ করেছি এখনো ভাবলে হাসি আসে আবার লজ্জাও লাগে :shy:
    লেখা ভালো হয়েছে ভাইয়া :clap:
    বানানের দিকে হালকা খেয়াল রেখো 🙂

    জবাব দিন
  3. কামরুলতপু (৯৬-০২)

    ব্লগে স্বাগতম। শুভ লেখালেখি। ও এখানে প্রথম আসলে সানাউল্লাহ ভাইর সাথে দেখা করতে হয়। এরপর ভাইয়া তোমাকে বরণ করে নিবে। ভাইয়ার সাথে দেখা করে একবার ব্লগ এডজুট্যান্ট স্যার এর সাথেও দেখা করে নিও। তাহলে বরণের রীতিনীতি শিখিয়ে দিবে ভাইয়া।

    জবাব দিন
  4. এহসান (৮৯-৯৫)

    শুভ ব্লগিং!!
    কোন প্রিয় পোস্ট নেই কেন? খুজেঁ খুজেঁ আমার ব্লগগুলো পড়ে ফেল।
    কামরুল আর শওকত ভাইয়ের ব্লগগুলো Avoid করবা। এগুলো বড়দের ব্লগ.

    আন্দালিবের লেখা...... বেশ বুঝেছো মনে হইল। 😕 কিছুই বলার নাই....

    জবাব দিন
  5. শরিফ (০৪-১০)

    এই আব্দুল্লাহ তুই এতো চাপা মারিস কেন।উনি কি আমকে ২০ টাকা দিয়েছিল।উনি আমাকে ২০ টাকা দিয়ে বিস্কুট আনতে পাঠান নি।উনি ২ টাকা দিয়ে ১ তা বিংগু আনতে পাঠিয়েছিল।আমি খালুকে একটা দিতে বললে খালু দুইটা দেয়।আমি তাকে দুইটা দিলে উনি বলে এক টাকা কই।আমি বললাম এক টাকা খালুর কাছে নেই তাই দুইটা চকোলেট দিসে............।।

    জবাব দিন
  6. মাসরুফ (১৯৯৭-২০০৩)

    আবদুল্লাহ,লেখা ভাল হইছে।বানানের একটু যত্ন নিস,আমার বানান গুলা জিহাদ বেচারার ঠিক করতে হইতো,তুই ব্লগে সবচেয়ে জুনিয়র দেইখা ফাই ফরমাইশ খাটাবি এমন কেউ নাই...বেচারা...

    কিপ গোয়িং!

    জবাব দিন

মন্তব্য করুন

দয়া করে বাংলায় মন্তব্য করুন। ইংরেজীতে প্রদানকৃত মন্তব্য প্রকাশ অথবা প্রদর্শনের নিশ্চয়তা আপনাকে দেয়া হচ্ছেনা।