ঝড়

হুহু করে বয়ে যাওয়া হিমেল হাওয়ায় যেন চলছিলনা আর,কতটা উপলব্ধির ঘাটতি পূরণ করার জন্যই যেন,শাপলার পাতায় টুপটাপ শব্দ তুলে, বৃষ্টিটা নামল বলে। বাতাসে ঝুলে আছে আমের বোলের সুবাস - সেই সাথে কালবোশেখীর আভাষ। ঋতু বদল? না পট বদল
শান বাঁধানো সিঁড়িটা যেন কোন গভীরে নেমে গেছে, শত বছরের পুরোনো দীঘীর কাজল কালো জলের রহস্যে। ডানার ঝটপটি! নিশ্চই এখনো অসংখ্য জালালী কবুতরদের রাজত্ব আশপাশের নারকোল গাছে। দীঘীর পাড়ে রমণী কন্ঠস্বর! মনে হয়, "কূল বঁধুদের" সমাবেশ। কেন যেন ধরেই নিলাম, আজকের জল্পনার বিষয়টি "আমি"। টুপ করে কি যেন পড়ল দীঘীর জলে তরঙ্গ তুলে। পাড়ে গজানো পেয়ারা গাছটি থেকেই হয়তো! এখনো নিশ্চই সেগাছে,সে দিনের মতোই আজও, কাঠবেড়ালীদের অসীম দৌরাত্ন্য! ঠিক তখনি বয়ে গেল ঝড়ো বাতাস। কালবোশেখীর পূর্বাভাস, নাকি আমারই জমে থাকা শত বছরের দীর্ঘশ্বাস!

এবার একটু আমার কথা বলি

ভারত বিভাগের অনেক আগেই বসত বাড়ি ছেড়ে চলে গেছিলাম আমি,  কোনো এক অজানাকে জানার আগ্রহে, অনিশ্চিতের হাত ধরে।  কিসের আশায়? সে আর মনে নেই আজ। তারপর কতো যুদ্ধ হলো, কতো বিজয় এল গেল, কতো পরাজয়ও, কতো কি যে পাওয়া হলো,  কতো কি হারিয়ে গেল পাবার আগেই। যে কখনোই ছিলোনা, সেও হারিয়ে গেল একদিন। কিভাবে? সে প্রশ্নে কি ফল? সে যে আমার “Happiest Sorrow”।
হঠাৎ যেন আমার অন্ধ চোখেও এতদিন পর অশ্রুর আনাগোনা। অবশ্য দৃষ্টিহীনতারও খুব সুবিধা আছে, সে অপরিচিত পরিবেশের নতুনত্বটাকে, এক কথায়, বিনা বিতর্কে, বিনা দ্বিধায়, স্মৃতির প্রেক্ষাপটে বসিয়ে, পরিচিত করে নেয়। আজ অর্ধশতাব্দী পর আমি আবার ফিরে এসেছি সেই দীঘীর সিঁড়িতে। শাপলাগুলো এখনো দলবেঁধে ফুটে আছে কিনা জানিনা; কিন্তু স্মৃতির পাতায় তারা রঙিন।
টুপটাপ থেকে এখন বৃষ্টির দেমাগটা যেন হঠাৎই বেড়ে গেল।দূর থেকে ভেসে এল, ঘুড়ি ওড়ানোতে মত্ত কচি কন্ঠের আওয়জ, ” ঝরে কিন্তু ঘুড্ডি উইরা যাইবোগা”,আরও চিকন একটি স্বর বল্ল ” কাট্টি “। আচমকা একটি কচি হাত আমায় জড়িয়ে ধরে বল্ল, “দিম্মা, চল যাই চল ঘরে ফিরে যাই, ঝড় আসবে এখনই”। সেই ঘরে, যেখানে তুমি কখনোই ছিলেনা, তবু………

৪৫৭ বার দেখা হয়েছে

২০ টি মন্তব্য : “ঝড়”

  1. Runa Shabnam (83-89)

    দিম্মা এখন সিঁড়িটার প্রায় শেষ ধাপে, হাহাকার কিন্তু কমেনি একটুকুও। নিঃশর্ত ভালবাসার গভীরতাটা এমনই।

    অনেক ধন্যবাদ রইল কিন্তু আপনার জন্য, মোস্তাফিজ ভাই :thumbup:


    মানুষ এমনতয়, একবার পাইবার পর
    নিতান্তই মাটির মনে হয় তার সোনার মোহর.........

    জবাব দিন
      • রাজীব (১৯৯০-১৯৯৬)

        আভাষ / আভাস দুটোই হয়। মনে হলো এখানে আভাস টা যায় ।
        আভাষ [ ābhāṣa ] n a preface, a prologue, a prefatory note, an introduction; an introductory talk; a conversation. ̃ণ n. addressing and talking to; conversation; an address, a speech, a talk. আভািষত a. delivered as or mentioned in a speech.
        আভাস [ ābhāsa ] n faint or indistinct presence ('আভােস দাo েদখা'); a shadow; a hint (আভােস জানােনা); glow. আভাস েদoয়া v. to appear faintly or indistinctly; to give a hint, to hint. ̃iিঙ্গত n. hints; slight or indirect suggestion. আভােস iিঙ্গেত adv. by indirect suggestion, by hints.


        এখনো বিষের পেয়ালা ঠোঁটের সামনে তুলে ধরা হয় নি, তুমি কথা বলো। (১২০) - হুমায়ুন আজাদ

        জবাব দিন
  2. রাজীব (১৯৯০-১৯৯৬)

    শাণ না হয়ে শান হবে।
    শাণ মানে যতদূর জানি ধার দেয়া। ধারালো।
    শান2 [ śāna2 ] n. a paved or cemented floor. শান বাঁধােনা v. to pave.


    এখনো বিষের পেয়ালা ঠোঁটের সামনে তুলে ধরা হয় নি, তুমি কথা বলো। (১২০) - হুমায়ুন আজাদ

    জবাব দিন
  3. রাজীব (১৯৯০-১৯৯৬)

    সিড়ি র ড় কে ড দেখাচ্ছে, মানে সিডি দেখাচ্ছে।
    ক্রোম, সাফারি দুটোতেই এমন আসলো।
    তবে আমার ম্যাকের প্রবলেম হতে পারে এটা ।


    এখনো বিষের পেয়ালা ঠোঁটের সামনে তুলে ধরা হয় নি, তুমি কথা বলো। (১২০) - হুমায়ুন আজাদ

    জবাব দিন
  4. রাজীব (১৯৯০-১৯৯৬)

    বধূ হবে মনে হয়।
    বধূ [ badhū ] n a wife; a newly married woman; a bride; a married woman; a daughter-in-law (usu. বধূমাতা). ̃জন n. a married woman esp. one whose husband is alive. ̃বরণ n. ceremoniously welcoming a bride or a daughter-in-law. ̃মাতা n. the daughter-in law. ̃হত া n. killing or murder of a married woman (usu.) in the husband's or father-in-law's house.


    এখনো বিষের পেয়ালা ঠোঁটের সামনে তুলে ধরা হয় নি, তুমি কথা বলো। (১২০) - হুমায়ুন আজাদ

    জবাব দিন
  5. রাজীব (১৯৯০-১৯৯৬)

    :frontroll: :frontroll: :frontroll: :frontroll: :frontroll:
    অনেক কিছু দেখালাম। আশা করি ক্ষমাসুন্দর দৃষ্টিতে দেখবেন।
    আর ফন্ট লাল করে দেয়ায় মে বি ড় এর জায়গায় ড এসেছে।

    আরেকটি ব্যাপারে আপনার দৃষ্টি আকর্ষণ করতে চাই।
    কালবোশেখি, কাঠবেড়ালি, নারকোল, বল্ল/ বল্লো ইত্যাদি বেশ কোমল শব্দগুচ্ছ। কিন্তু কোন কোন জায়গায় এই কোমলতা অক্ষুন্ন থাকেনি বলে মনে হলো।
    নিশ্চই এর জায়গায় নিশ্চয়ই
    সেগাছে র জায়গায় সে গাছে
    আওয়জ এর জায়গায় আওয়াজ
    ---------------

    তবে লেখার মূল সুর অনবদ্য।
    সুন্দর লেখায় একটু ভুল হলে খারাপ লাগে তাই এতো কিছু বলা।
    এমন না যে আমার লেখায় ভুল হয় না। অনেক সময় তো কোন কোন যুক্তাক্ষর লিখতেই পারি না।
    যাদের চোখে পড়ে তারা শুধরে দেন।


    এখনো বিষের পেয়ালা ঠোঁটের সামনে তুলে ধরা হয় নি, তুমি কথা বলো। (১২০) - হুমায়ুন আজাদ

    জবাব দিন
    • Runa Shabnam (83-89)

      অসংখ্য ধন্যবাদ তোমাকেও লেখাটি পড়বার জন্য,আহসান আকাশ। এবং ভালো লাগল জেনে মনটাও ভরে গেল খুব। (সম্পাদিত)


      মানুষ এমনতয়, একবার পাইবার পর
      নিতান্তই মাটির মনে হয় তার সোনার মোহর.........

      জবাব দিন
  6. Runa Shabnam (83-89)

    একটা ফাটাফাটি ধন্যবাদ। আসলে স্ক্রিনশট্ কপি পেস্ট করতে পারলে অনেক ভাল হতো। কারণ "আভাষ" "পূর্বাভাষ" দুটোই তৎসম শব্দ এবং সঠিক। বহু ব্যবহৃত না হলেও বানান ঠিক আছে এখানে।"শাণ" বানানের ব্যাপারে একমত, কারেক্ট করে দিচ্ছি, বঁধু বানানটা রবি ঠাকুরের। নতুন নিয়মে তুমি নিশ্চই ঠিক "দিঘি" বানানের ব্যাপারে, কিন্তু দীঘীও অত্যন্ত সঠিক। প্রায় শেষের দিকে লেখা "ঝর" উদ্দেশ্যমূলক ভাবেই লেখাহয়েছে, ঘুড়ি ওড়ানোতে মত্ত ছোট্ট বাবুটা সঠিক উচ্চারণের খুব একটা ধার ধারেনা বলেই হয়তো।
    কমোল এবং সাধারণ ব্যবহার, দুটোই রাখার চেষ্টা করেছি এই লেখাটিতে। ফন্ট আমি প্রাণপনে চেষ্টা করেও বদলাতে পারলাম না। কিভাবে সে রঙ বদলে ফেল্ল সেটাও জানিনা। কসমসে।
    তুমি কতো কষ্ট করলে লেখাটার জন্য আবারও ধন্যবাদ রাজীব
    কিছু উদাহরণ কপি পেস্ট করলাম

    "বাতাসে কিসের আভাষ পাই | amarblog.com: Bangla Blog ( আমারব্লগ ) with ....."
    "Lake * (বড় দীঘী) - Wikimapia
    wikimapia.org/21123218/Lake-বড়-দীঘী"


    মানুষ এমনতয়, একবার পাইবার পর
    নিতান্তই মাটির মনে হয় তার সোনার মোহর.........

    জবাব দিন

মন্তব্য করুন

দয়া করে বাংলায় মন্তব্য করুন। ইংরেজীতে প্রদানকৃত মন্তব্য প্রকাশ অথবা প্রদর্শনের নিশ্চয়তা আপনাকে দেয়া হচ্ছেনা।