দুটি গান

আউলা-ঝাউলা চুল
——————– ড রমিত আজাদ

আউলা-ঝাউলা চুল, তোমার আউলা-ঝাউলা চুল,
সেই চুলেরই খোপায় তুমি রাখছো জবার ফুল।
মিষ্টি-মধুর মুখ, তোমার মিষ্টি-মধুর মুখ,
ঐ মুখে চাইয়া আমি পাই যে মনে সুখ।

বাঁকা দুইটা চউখ, তোমার বাঁকা দুইটা চউখ,
ঐ দুই চউখে আমার পরাণ পইড়া রউখ।
মিঠা মিঠা হাসি, তোমার মিঠা মিঠা হাসি,
ঐ হাসিরই জালে পইড়া তোমায় ভালোবাসি।

কুসুম কুসুম হাত, তোমার কুসুম কুসুম হাত,
ঐ হাত তুইলা মুখে খাইবো আমি ভাত।
এই অধমের দিকে তুমি একবার চাইয়া দেখো,
তোমার প্রেমের সোহাগ দিয়া জীবন ভইরা রাখো।

ঝিরিঝিরি হাওয়া হয়ে নেচেছি
——————– ড রমিত আজাদ

আমি তোমার গানে,
ঝিরিঝিরি হাওয়া হয়ে নেচেছি।
আমি তোমার সুরে,
চৈতালী মেঘ হয়ে ভেসেছি।

শুধু তুমি আছো বলে,
এই মন পাখা মেলে,
বাগিচার ফুলে ফুলে হেসেছে।
শুধু তুমি আছো বলে,
সন্ধ্যা-প্রদীপ জ্বেলে,
জ্বোনাকীরা ঝিলিমিলি জ্বলেছে।

আকাশের তারাগুলো,
দেয়ালী জ্বালিয়ে দিলো,
পূর্ণিমা চাঁদ হেসে,
রাতজাগা পাখী হয়ে জেগেছে।

কোলাহল থেমে গেলে,
অরূনিমা নীলাচলে,
সাত রঙে রংধনু
অপরূপ সাজে যেন সেজেছে।

আমি তোমার গানে,
ঝিরিঝিরি হাওয়া হয়ে নেচেছি।
আমি তোমার সুরে,
চৈতালী মেঘ হয়ে ভেসেছি।

৩২৮ বার দেখা হয়েছে

মন্তব্য করুন

দয়া করে বাংলায় মন্তব্য করুন। ইংরেজীতে প্রদানকৃত মন্তব্য প্রকাশ অথবা প্রদর্শনের নিশ্চয়তা আপনাকে দেয়া হচ্ছেনা।