একটি কৌতুক

অল্পবয়সী একটি ছেলে একদিন নির্জন একটি রাস্তা দিয়ে হেটে যাচ্ছিল। যেতে যেতে পথের ধারে একটি খালি বোতল পরে থাকতে দেখল। তারপর যা করে অল্পবয়সীরা, বোতলে মারলো এক লাথি। ‘হু হু হা হা হা, বিকাটাকৃতি এক জ্বীন বেরিয়ে এসে বলল, “আমি জ্বীন ৫০০ বছর ধরে এই বোতলের মধ্যে আছি, বল তোর কি চাই?” ছেলেটি প্রথমে ঘাবরে গেলেও, জ্বীনের কথা শুনে তো ভীষণ খুশী। ভাবলো, এইতো আমার কপাল খুলে গেল। এখন তো যা চাইব, তাই পাব। একটু ভেবে ছেলেটি বলল, ” কি চাই? গুলশানে একটা বাড়ী চাই”। জ্বীন বলল, “গুলশানে একটা বাড়ী ? ‘হু হু হা হা হা”। তার পরপরই সজোরে একটি চড় কষিয়ে দিল ছেলেটির গালে। ছেলেটিতো হতবাক, “চড় মারলেন কেন?” জ্বীন বলে, “ব্যাটা গর্ধভ, গুলশানে একটা বাড়ীই যদি করতে পারতাম, তবে কি ৫০০ বছর ধরে বোতলের মধ্যে থাকতাম?”

৬৫২ বার দেখা হয়েছে

১৬ টি মন্তব্য : “একটি কৌতুক”

মন্তব্য করুন

দয়া করে বাংলায় মন্তব্য করুন। ইংরেজীতে প্রদানকৃত মন্তব্য প্রকাশ অথবা প্রদর্শনের নিশ্চয়তা আপনাকে দেয়া হচ্ছেনা।